সোমবার, ২৪ জুন ২০২৪ ।। ৯ আষাঢ় ১৪৩১ ।। ১৮ জিলহজ ১৪৪৫


নির্বাচনে অংশ নেওয়ার ঘোষণা ইসলামী ঐক্যজোটের


নিউজ ডেস্ক

নিউজ ডেস্ক
শেয়ার
ছবি: সংগৃহীত

আসন্ন দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে অংশ নেওয়ার ঘোষণা দিয়েছে ইসলামী ঐক্যজোট।

সোমবার (২০ নভেম্বর) বিকেলে জাতীয় প্রেস ক্লাবের জহুর হোসেন চৌধুরী হলে মাওলানা আবুল হাসানাত আমিনীর সভাপতিত্বে সংবাদ সম্মেলনে এমন সিদ্ধান্তের কথা জানান দলটির নেতারা।

ইসলামী ঐক্যজোটের চেয়ারম্যান মাওলানা আবুল হাসানাত আমিনী বলেন, ইসলামী ঐক্যজোট মনে করে আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচন হবে অবাধ, সুষ্ঠু, নিরপেক্ষ ও অংশগ্রহণমূলক। তাই ইসলামী ঐক্যজোট সবার অংশগ্রহণে স্বতঃস্ফূর্তভাবে জাতীয় সংসদ নির্বাচন অনুষ্ঠানের জন্য সংশ্লিষ্ট সবার প্রতি জোর দাবি জানাচ্ছে। ইসলামী ঐক্যজোট দেশের স্বাধীনতায় বিশ্বাসী। দেশের স্বাধীন অস্তিত্বের ওপর আঘাত আসে এ জাতীয় কোনো অপতৎপরতা ইসলামী ঐক্যজোট বরদাশত করবে না।

দলটির মহাসচিব মুফতি ফয়জুল্লাহ বলেন, ইসলামী ঐক্যজোট মুফতি আমিনীর চেতনা লালন করে সবসময় স্বাধীনভাবে দেশ ও ইসলামের স্বার্থে নিজস্ব সিদ্ধান্ত গ্রহণ করে থাকে। কারও অন্ধ অনুসরণ ও লেজুড়বৃত্তিতে ইসলামী ঐক্যজোট বিশ্বাসী নয়। দেশ-জাতি, ইসলাম ও মুসলিম উম্মাহর স্বার্থে যা কল্যাণকর মনে করে ইসলামী ঐক্যজোট তাই সিদ্ধান্ত গ্রহণ করে। কোনো সময় বিনা চ্যালেঞ্জে ফাঁকা ময়দানে গোল দেওয়ার সুযোগ কাউকেই দেয়নি। আমরা সংসদ নির্বাচনকে কেন্দ্র করে নির্বাচন কমিশনের সঙ্গে সংলাপে অংশ নিয়েছি। তারা প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন অবাধ, সুষ্ঠু, নিরপেক্ষ ও অংশগ্রহণমূলক নির্বাচন করার। তাই ইসলামী ঐক্যজোটের জাতীয় সংসদ নির্বাচনে অংশ নেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

তবে নির্বাচনে অংশ নেওয়ার ঘোষণা দিলেও তফসিলের সময় পুনর্নিধারণের দাবি জানিয়েছেন মুফতি ফয়জুল্লাহ। তিনি বলেন, নির্বাচন কমিশনের ঘোষিত তফসিল অনুযায়ী এই স্বল্প সময়ের ভেতর প্রার্থীদের নির্বাচনী যাবতীয় প্রস্তুতি নেওয়া বেশ কঠিন হবে। তাই ইসলামী ঐক্যজোট ঘোষিত তফসিল পুনর্বিন্যাস করার জন্য নির্বাচন কমিশনের প্রতি আহ্বান জানাই।

সম্মেলনে নেতারা পাশ্চাত্যের সহযোগিতায় সন্ত্রাসবাদী ইসরাঈলের মজলুম ফিলিস্তিনি মুসলমানদের উপর নজিরবিহীন বর্বোরচিত নির্মম গণহত্যার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে মুসলিম রাষ্ট্রনায়কদের এই অন্যায় হত্যাকান্ড ও জুলুম-নির্যাতন বন্ধে ঐক্যবদ্ধভাবে এগিয়ে আসার আহ্বান জানান। 

এসময় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন উপস্থিত ছিলেন সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান মাওলানা আবদুর রশিদ মজুমদার, ভাইস চেয়ারম্যান অধ্যাপক মাওলানা এহতেশাম সারওয়ার, যুগ্ম মহাসচিব মুফতী তৈয়্যব হোসাইন, মাওলানা আবুল কাশেম, মাওলানা আবুল কাশেম, মাওলানা আলতাফ হোসাইন, মুফতী আবদুল কাইয়্যুম, মাওলানা জিয়াউল হক মজুমদার, মাওলানা আবদুল হাই ফারুকী, সাংগঠনিক সচিব মাওলানা ফারুক আহমদ, সহকারী মহাসচিব মুফতী নাসির উদ্দীন কাসেমী, প্রচার সচিব মাওলানা আনসারুল হক ইমরান, দফতর সচিব মাওলানা রিয়াজত উল্লাহ, ছাত্র বিষয়ক সচিব মাওলানা খোরশেদ আলম, শূরা সদস্য মাওলানা নুরুজ্জামান ও কেন্দ্রীয় সদস্য মাওলানা আশরাফ আলী জেহাদী প্রমুখ।


সম্পর্কিত খবর


সর্বশেষ সংবাদ