কম্পিউটারের সামনে বসে সারাদিন কাজের ক্ষতি ১০টি সিগারেটের সমপরিমাণ!
আগস্ট ০১, ২০২১ ৯:৩৮ অপরাহ্ণ

আওয়ার ইসলাম ডেস্ক: ধূমপান যে শারীরিক ক্ষতি হয় সেকথা সবারই জানা। একবার ভেবে দেখুন, আপনি ধূমপান করছেন না অথচ ১০টি সিগারেটের সমপরিমাণ ক্ষতি হচ্ছে! অবাক হলেও এমনটা হরহামশোই হচ্ছে যারা কম্পিউটারের সামনে টানা ঘাড় গুঁজে কাজ করে যাচ্ছেন ঘণ্টার পর ঘণ্টা।

অনেকক্ষণ ধরে চেয়ার-টেবিলে বসে কম্পিউটারের দিকে এক দৃষ্টিতে তাকিয়ে থাকলে শুধু যে ঘাড়ে ব্যথা করে তা কিন্তু নয়, বাড়ে হৃদরোগের আশঙ্কা, বাড়ে রক্তে শর্করার মাত্রা এবং ক্যানসারের মতো অসুখের শঙ্কাও। এর পাশপাশি অতিরিক্ত কাজের চাপে শারীরিক ক্লান্তি জমতে থাকে। মাথা ব্যথা, মানসিক অবসাদও দেখা দিতে পারে।

যারা কম্পিউটারের সামনে বসে অফিস করছেন, শুধু তারাই নন, যারা গাড়ি চালানোর পেশায় আছেন, তাদের ক্ষেত্রেও এই ধরনের সমস্যা দেখা যাচ্ছে বলেও জানানো হয়েছে সাম্প্রতিক কিছু গবেষণাতে। গোটা দশেক সিগারেটের সমপরিমাণ ক্ষতি হচ্ছে দিনের পর দিন। এ রকম সমস্যায় কী করবেন তাও জানিয়েছেন চিকিৎসকেরা।

অফিসে তো কাজ করতেই হবে। তাই কাজের ফাঁকে ফাঁকে মাঝে মাঝে ওঠে দাঁড়াতে হবে। আর এটা করবেন অন্তত ২০ থেকে ৩০ মিনিটের মধ্যে।

কাজের মাঝে যখনই ফোন আসবে তখনই ওঠে দাঁড়াবেন। কথা বলার সময়টুকু হাঁটুন। দেখবেন ভালো লাগবে।
যদি মাঝে মাঝে দাঁড়িয়ে কাজ করা সম্ভব হয় তাহলে দাঁড়িয়ে কাজ করুন। সব সময় হয়তো দাঁড়িয়ে কাজ করা ঠিক হবে না। কিন্তু সুযোগ পেলেই দাঁড়িয়ে কাজ করার সুযোগটা হাতছাড়া করবেন না।

কম্পিউটারের টেবিলের উচ্চতা একটু বাড়িয়ে নিতে পারেন। আপনাকে যেনো নীচের দিকে তাকিয়ে কাজ না করতে হয়। বরং কম্পিউটারের মনিটরটি যেনো আপনার চোখের উচ্চতায় থাকে।

কাজের সময়ের বাইরে কিছুক্ষণ বরাদ্ধ রাখুন শরীরচর্চার জন্য। শরীরকে চাঙ্গা রাখতে অফিসের চেয়ার-টেবিলে বসেই ছোট ছোট কিছু ব্যায়াম করে নিতে পারেন। এগুলো হচ্ছে- নেক রোলস, শোল্ডার রোলস, সিটেড বাইসাইকেল ক্রাঞ্চেস, শোল্ডার স্ট্রেচ ইত্যাদি।

এনটি

সর্বশেষ সব সংবাদ