মারকাযুল ফিকরি ওয়াদ দা’ওয়াহ মানিকনগর ইফতা বিভাগে ভর্তি চলছে
মে ০৬, ২০২১ ৪:২১ অপরাহ্ণ

আওয়ার ইসলাম ডেস্ক: রাজধানীর মুগদা থানার অন্তর্গত মানিকনগর এলাকায় অবস্থিত ‘মারকাযুল ফিকরি ওয়াদ দা’ওয়াহ’ মানিকনগরের ইফতা ও অর্থনীতি বিভাগে ভর্তি চলছে। গত ১ম রমজান ১৩ ই এপ্রিল ২০২১ থেকে এ ভর্তি কার্যক্রম শুরু হয়েছে। চলবে আগামী ০৯ ই শাওয়াল ২২ই মে রোজ শনিবার পর্যন্ত কোটা পূরণ সাপেক্ষে। সরাসরি মাদরাসায় এসে ভর্তি হতে চাইলে অবশ্যই সরকারি স্বাস্থ্যবিধি মেনে মাদরাসা অফিসে আসতে হবে। প্রতিষ্ঠানটিতে সারাবছরই অফলাইনের পাশাপাশি অনলাইনেও ক্লাস অনুষ্ঠিত হবে। তাই যেসব শিক্ষার্থী অনলাইনে ক্লাস করতে চান তারাও নিচে প্রদত্ত গুগুল ফরম পূর্ণ করে ভর্তি হতে পারবেন।

🎤যেভাবে ভর্তি হতে পারবেন
✅যারা অনলাইনে ভর্তি হইতে আগ্রহী, তারা নিচের লিংকে গিয়ে গুগল ফরম পূরণ করে ভর্তির কার্য সমাধান করতে পারবে।
https://forms.gle/p5JPczeJ6yhyE5vP7

✅যারা সরাসরি ভর্তি হতে চান। তারা ০১৯১৪৭৩৭৫৯৯, ০১৬৩১৫৪৮৬০৩ নাম্বারে যোগাযোগ করে মাদরাসায় এসে ভর্তি হতে পারবেন।

🎤ভর্তি শুরু
১ম রমজান ১৩ ই এপ্রিল ২০২১ থেকে ০৯ ই শাওয়াল ২২ই মে রোজ শনিবার পর্যন্ত কোটা পূরণ সাপেক্ষে ভর্তি কার্যক্রম চলবে। সরাসরি মাদরাসায় এসে ভর্তি হতে চাইলে অবশ্যই সরকারি স্বাস্থ্যবিধি মেনে আসতে হবে।

ক্লাস শুরু: ১১ই শাওয়াল ২৫ই মে থেকে।

ভর্তি সংক্রান্ত তথ্য
ভর্তি ফি = ২৫০০.০০ টাকা মাত্র।
আবাসিক খরচ = ২৫০০.০০ টাকা মাত্র।
অনলাইন মাসিক ফি = ১০০০.০০ টাকা মাত্র।

✳ অনলাইনে ভর্তি ফি প্রদানের জন্য বিকাশ নাম্বার: ০১৬৩১৫৪৮৬০৩

এর আগে চলতি রমজানে ২০ দিন ব্যাপী দেশের প্রথম অনলাইনে তাখরীজুল আওকাত কোর্স সম্পন্ন হয়েছে। গত ২০ রমজান ছিলো কোর্সটির সমাপনী ক্লাস। কোর্সের সবগুলো ক্লাস নিয়েছেন ফকীহুল মিল্লাত আল্লামা আব্দুর রহমান রহ. এর খাস শাগরেদ মুফতী মুশতাক আহমাদ আল মাদানী।

তাখরীজুল আওকাত কোর্স সম্পর্কে বিস্তারিত দেখুন: বাংলাদেশে এই প্রথম মাদরাসা ছাত্রদের জন্য ‘তাখরীজুল আওকাত’ বা সূর্যের সাথে মিল রেখে নামাজের স্থায়ী ক্যালেণ্ডার তৈরির কোর্স চালু করেছে রাজধানীর মানিকনগরে অবস্থিত ‘মারকাযুল ফিকরি ওয়াদ দা’ওয়াহ’। অনলাইনের পাশাপাশি অফলাইনেও চলবে এ কোর্স। এর মাধ্যমে সূর্যের সাথে মিল রেখে নামাজ, রোজা ও ইফতারের সঠিক সময় নির্ণয় করা যাবে। এবং স্থায়ী ক্যালেণ্ডারে দেওয়া সময় সঠিকভাবে নিরুপণ ও নির্ধারণ করা যাবে।

কোর্সটি কেনাে গুরুত্ত্বপূর্ণ ছিলো?

প্রিয় তালিবুল ইলম ও দীনি ভাইয়েরা! আমরা প্রতিদিন পাঁচওয়াক্ত নামাজ পড়ি। রমজানে রোজা রাখি। দিনশেষে ইফতার করি। নামাজের সময়সূচী, রোজা ও ইফতারের সঠিক সময় নির্ধারণসহ যাবতীয় ইসলামী অনেক বিষয় সূর্যের সাথে সম্পৃক্ত। আর সূর্য দেখে সবাই স্থায়ী ক্যালেণ্ডার প্রণয়ণ করতে পারে না। এটার জন্য বিশেষ প্রক্রিয়া ও আধুনিক সিস্টেম রয়েছে। যা জানা সবার জন্যই জরুরি।

আল্লাহ তায়ালা সূর্যকে উজ্জল ও চন্দ্রকে আলো বিতরণ কারীরুপে সৃষ্টি করেছেন। অতঃপর এর জন্য নির্ধারণ করেছেন মঞ্জিলসমূহ। যাতে মানুষ জানতে পারে দিন, মাস, বছরের সংখ্যা। গণনা করতে এসবের হিসাব। পবিত্র কুরআনে আল্লাহ তায়ালা ঘোষণা করেন, ‘নিশ্চয় নামাজ মুসলমানদের জন্য নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে ফরজ।’ (সূরা নিসা-১০৩)

এ আয়াতের মর্মকে সামনে রেখে এ দেশের অনেক উলামায়ে কেরাম নামাজের সময়সূচী প্রণয়ন করেছেন। তবে এগুলোর সবই পরস্পর বিরোধপূর্ণ। যার কারণে সাধারণ মানুষের মাঝে বিভ্রান্তি সৃষ্টি হচ্ছে। বিভ্রান্তি নিরসনের লক্ষ্যে বিষয়টির প্রতি গুরুত্ব দিয়ে বসুন্ধরা কেন্দ্রীয় দারুল ইফতার সম্মানিত মুফতিয়ানে কেরাম মনোযোগী হোন বাস্তবভিত্তিক সময়সূচী নির্ধারণের জন্য।

সে হিসাবে গত ২৭ সেপ্টেম্বর ১৯৯৬ সালে বৈঠক করেন বাংলাদেশ আবহাওয়া বিষয়ক প্রধান অফিসারদের সঙ্গে। দুই বার আয়োজন করেন বিশেষ সেমিনারের। সেমিনার হয় দেশের বিজ্ঞ আলেমদের নিয়ে। প্রণীত হয় শরয়ী নিতিমালা ও ভৌগলিক নিয়মাবলির সমন্বয়ে নামাজের সময়সূচী।

এক জেলার সময়ের উপর অনুমান করে অন্যান্য জেলার সময়সূচী নির্ধারণ করা ভৌগলিক ফর্মূলার নিরিখে সঠিক নয়-সেদিনের সেমিনার থেকে এমন সিদ্ধান্ত দেন বিজ্ঞজন। সুতরাং দেশের প্রতি জেলার সময়সূচী ভিন্ন ভিন্ন ভাবে প্রণয়ন করা জরুরী।

অতএব আমাদের কোর্সে দেখানো হবে বাস্তবভিত্তিতে শরয়ী নিতিমালা ও ভৌগলিক নিয়মাবলির সমন্বয়ে কিভাবে প্রত্যেক জেলার সময়সূচী বের করা যায়। এ বিষয়ে বাংলাদেশে অনলাইনে কোনো কোর্স নেই। আমরাই প্রথম শুরু করছি ব্যতিক্রমধর্মী এ কোর্স।

কোর্স থেকে শিক্ষার্থীরা যা শিখেছে-
♦ বাংলাদেশের নামাজ ও রোজার স্থায়ী ক্যালেণ্ডার প্রণয়ন।
♦ বিদেশের নামাজ ও রোজার স্থায়ী ক্যালেণ্ডার প্রণয়ন।
♦ যে কোনো জায়গার (জেলা, থানা, ইউনিয়ন ও গ্রাম) নামাজ ও রোজার স্থায়ী ক্যালেণ্ডার প্রণয়ন।

কোর্সটি যারা করেছেন-
♦ আপনি একজন মুসলমান। নামাজের সঠিক সময় জানতে চান। কোর্সটি আপনার জন্য।
♦ যারা এ বছর ইফতা পড়বেন বা আগে পড়ছেন। কিন্তু ‘তাখরীজুল আওকাত’ বিষয়ে ধারণা নেই।
♦ এ ছাড়া কাফিয়া জামাত থেকে নিয়ে দাওরা হাদিস বা দাওরার সমমান ক্লাস পর্যন্ত যারা পড়েছেন তারাও অংশ নিতে পারবেন এ কোর্সে।

★★আরজগুজার★★
মুফতী মুশতাক আহমদ আল মাদানী
প্রতিষ্ঠাতা পরিচালক
মারকাযুল ফিকরি ওয়াদ দা’ওয়াহ

🚉যাতায়াত: ঢাকার যেকোন জায়গা থেকে ইত্তেফাক মোড় কিংবা মানিকনগর বিশ্বরোড থেকে স্টার লাইন কাউন্টারের পাশে ইসলাম মঞ্জিল, (হাজি বিল্লাল হোসেন সাহেবের বাড়ি) ঢাকা।

কোর্স সম্পর্কে বা যে কোনো বিষয়ে বিস্তারিত জানতে নিচের নম্বরেন যোগাযোগ করুন।
📞যোগাযোগ নাম্বার: ০১৯১৪৭৩৭৫৯৯, ০১৬৩১৫৪৮৬০৩

এমডব্লিউ/