শুক্রবার, ১৯ এপ্রিল ২০২৪ ।। ৬ বৈশাখ ১৪৩১ ।। ১০ শাওয়াল ১৪৪৫


খেজুরের স্বাস্থ্যগুন

নিউজ ডেস্ক
নিউজ ডেস্ক
শেয়ার

শাহনূর শাহীন: খেজুর। আরব বিশ্বের সবচেয়ে জনপ্রিয় ফল। বাংলায় বলা হয় খেজুর আরবীতে খুরমা।সৌদি আরবসহ আরব বিশ্বে হাজার হাজার মাইল এলাকা জুড়ে খেজুর চাষ হয়। এক সৌদি আরবই নিজ দেশে উৎপাদিত খেজুরে নিজেদের চাহিদা মিটিয়ে পৃথিবীর বিভিন্ন দেশে খেজুর রপ্তানি করে থাকে।

বহির্বিশ্বে এরাবিয়ান খেজুরের চাহিদাও ব্যাপক। রমজান মাসে মুসলিম বিশ্বে খেজুরের চাহিদা বেড়ে হয় আকাশচুম্বি। রমজানে রোজার শেষে ইফতারিতে খেজুর না হলে যেন ইফতারিটাই পূর্ণ হয় না। খেজুরের রয়েছে চমৎকার কিছু স্বাস্থ্য গুন।

চলুন জেনে নেই খেজুরের উপকারিতা:-
দৃষ্টিশক্তি বাড়ায় : দৃষ্টিশক্তি বৃদ্ধিতে খেজুর গুরুত্বপূর্ণ ভুমিকা পালন করে। প্রতিদিন খেজুর খাওয়ার অভ্যাস করলে রাতকানা রোগ ভালো হওয়ার যথেষ্ট সম্ভাবনা রয়েছে।

ক্ষুধা কমায় :  অল্প কয়েকটা খেজুর খেয়েই দীর্ঘ সময়ের জন্য ক্ষুধা নিবারণ সম্ভব। এটি পাকস্থলীকে কম খাবার গ্রহণে উদ্বুদ্ধ করে। আর এই কয়েকটি খেজুর শরীরের শর্করার চাহিদাও পূরণ করবে। ফলে শর্করাজাতীয় অন্যান্য খাবার না খেলেও খুব একটা সমস্যায় পড়তে না।

হজমে সহায়ক : অতিরিক্ত খাওয়া-দাওয়া করলে অনেক সময় বদহজম ভীষণ সমস্যা হয়ে  দাড়ায়। এই সমস্যা থেকে সহজে মুক্তি দিতে পারে কয়েকটি খেজুর।

স্বাস্থ্যকর খাবার : খেজুরে কোনো কোলেস্টেরল এবং বাড়তি চর্বি থাকে না। ফলে আপনি সহজেই খেজুর খাওয়া শুরু করতে পারেন।

রক্ত বাড়ায় : যারা রক্তস্বল্পতায় ভুগছে, তারা নিয়মিত খেজুর খেতে পারে। এই ফল শরীরের রক্তের চাহিদা মেটাতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখে।

কোষ্টকাঠিন্য দূর করে : খেজুরে আছে এমন সব পুষ্টিগুণ, যা খাদ্য পরিপাক হতে সাহায্য করে এবং কোষ্টকাঠিন্য রোধ করে। ডায়রিয়া হলে কয়েকটি খেজুর খান, বেশ উপকার পাবেন।

ক্যান্সার প্রতিরোধ : অবাক হলেও সত্য, খেজুর ক্যান্সার প্রতিরোধে সহায়তা করে। এক গবেষণায় দেখা গেছে, খেজুর পেটের ক্যান্সার প্রতিরোধ করে।

এসএস/


সম্পর্কিত খবর