শিরোনাম :
মুসলিম নারীর কিডনিতে বাঁচাবে হিন্দু নারী
জুলাই ৩০, ২০১৬ ৪:২২ অপরাহ্ণ
kidniআওয়ার ইসলাম: ঘটনা ভারতের উত্তর প্রদেশে। এক হিন্দু নারীকে বাঁচাতে নিজের কিডনি দান করতে যাচ্ছেন মুসলিম নারী। অথচ দিন কয়েক আগেই এই প্রদেশে গরুর মাংস খাওয়া নিয়ে এক মুসলিমকে প্রাণ দিতে হয়েছে।
কিন্তু এতসব ভাবলে কি চলে? তাইতে সেদিকে না তাকিয়ে সাহায্যে এগিয়ে এলেন ফতেহপুরের শামসাদ বেগম।
শনিবার টাইমস অব ইন্ডিয়ার প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ফতেহপুর জেলার মুসলিম নারী শামসাদ বেগম (৪০) আরতিকে (৩৮) কিডনি দিতে যাচ্ছেন। এরই মধ্যে তাদের সব ধরনের মেডিকেল পরীক্ষা সম্পন্ন হয়েছে। শামসাদ কিডনি দানের ইচ্ছাপত্রসহ যাবতীয় নথিপত্র ফতেহপুর জেলা স্বাস্থ্য বিভাগে জমা দিয়েছেন। এখন সরকারের অঙ্গদান অনুমোদন কমিটির সায় পেলেই পরবর্তী কার্যক্রম চালাবেন চিকিত্সকরা।
শামসাদের ছোট বোন জুনাইদা খাতুনের বান্ধবী আরতি। দুটি কিডনি নষ্ট হয়ে যাওয়ায় এক বছর ধরে মৃত্যুর সঙ্গে পাঞ্জা লড়ছেন।
শামসাদ বলেন, আরতির শারীরিক যাতনা দেখে আমি আর থাকতে পারিনি। রক্তের গ্রুপ পরীক্ষা করিয়ে দেখি আমার আর তার রক্তের গ্রুপ একই। আমি কিডনি দেয়ার জন্য তৈরি। মানুষের ধর্ম সবসময় মানবধর্ম হওয়া উচিত। আমার এই ত্যাগ তারই একটি ছোট অংশ।
১০ বছর আগে শামসাদের স্বামী মারা গেছেন। এরপর থেকে তিনি তার মেয়েকে নিয়ে ফতেহপুরের রাঢ়িবুজুর্গ গ্রামে বাবার বাড়িতে বসবাস করছেন। তার ছোট বোন থাকেন মহারাষ্ট্রের পুনেতে। সেখানে গিয়ে শাহসাদের সঙ্গে দেখা হয় আরতির সঙ্গে।
ফতেহপুরের জেলার প্রধান চিকিত্সা কর্মকর্তা ডা. বিনয় কুমার বলেছেন, তারা শামসাদ বেগমের সব কাগজপত্র স্বাস্থ্য অধিদফতরের কমিটিতে পাঠিয়েছেন, এখন অনুমোদনের অপেক্ষায় রয়েছেন।
আরআর
সর্বশেষ সব সংবাদ