fbpx
           
       
           
       
কওমিধারার আলেমদের জন্য ৭ পরামর্শ
নভেম্বর ২৮, ২০২০ ৯:০৩ অপরাহ্ণ

আওয়ার ইসলাম: আপনারা আগের মতোই মাদরাসা আবাদ অব্যাহত রাখার পাশাপাশি এই কাজগুলো শুরু করুন।

১) দেশের প্রতিটি জেলা সদর, মহানগর, পৌরসভায় অন্তত একটি করে হলেও জাতীয় কারিকুলামের বাংলা মাধ্যমের স্কুল চালু করুন। স্কুলগুলোর আয়তন এই পরিমাণ হবে, যাতে চালু হবার দশ বছরের মধ্যে অন্তত ১০০০ ছাত্র-ছাত্রী পড়ানো যায়।

স্কুলের ম্যানেজমেন্ট থাকবে কওমিপন্থী আলেম ওলামা ও কওমি ধারার ব্যবসায়ীদের হাতে। স্কুলের শিক্ষক-শিক্ষিকা নিয়োগ,অর্থনৈতিক কাযক্রম পরিচালনা সবকিছুতেই নিজেদের নিয়ন্ত্রণ ষোলআনা বজায় রাখবেন।

কওমি ধারা পরিচালিত স্কুলগুলোকে এমপিওভুক্ত করবেন না বা করার চেষ্টা করবেন না। স্কুলগুলো পরিচালনার জন্য সমাজের স্থানীয় ধনাঢ্য ও সাধারন জনগণের অর্থ সাহায্য গ্রহণ করবেন। পর্যায়ক্রমে থানা সদর ও গ্রাম অঞ্চলেও এরকম ছোট-মাঝারি স্কুল চালু করুন। ক্রমান্বয়ে কলেজ পর্যায়েও সম্প্রসারণ করা যাবে। স্কুল কলেজগুলো হবে ইসলামী মিশনারী ধরনের।

২) দেশের বিভাগীয় শহরগুলোতে কওমি ধারা পরিচালিত হাসপাতাল চালু করুন। হাসপাতালগুলোর অর্থনৈতিক পলিসি হবে সামাজিক ব্যবসা। পর্যায়ক্রমে জেলা সদরগুলোতেও চালু করা যাবে।

৩) নানান ফরমেটের সামাজিক সেবা সংস্থা গড়ে তুলুন।

৪) কওমিপন্থী আইনজীবিদের সমন্বয়ে দুস্থ অসহায় নারীদের জন্য লিগাল এইড সংস্থা গড়ে তুলুন।

৫) কওমি ধারার স্কাউট সংগঠন গড়ে তুলুন। যাদের কাজ হবে দেশের শহর গ্রামের ছোট ছোট চলার রাস্তা, বাঁশ-কাঠের পুল ও সেতু মেরামত করে দেয়া। এক্ষেত্রে স্থানীয় সমাজপতি ও জনগণের কাছ থেকেই প্রয়োজনীয় অর্থ সংগ্রহ করা হবে। কওমি ধারার স্কাউটরা সাংগঠনিক ম্যানেজমেন্ট ও শ্রম দিয়ে সহযোগিতা করবে।

৬) দেশের কওমি ধারার রাজনৈতিক সংগঠনগুলো কোন রকম নির্বাচনে অংশগ্রহণ করবে না। তবে দেশের ও জনগণের স্বার্থে রাজনৈতিক কর্মসূচীতে থাকবে। তাতে দেশের সেকুলার ও জাতীয়তাবাদী রাজনৈতিক দলগুলোর উপর ইসলামপন্থী প্রবণতার প্রেশার অব্যাহত থাকবে। নির্বাচনের সময় কওমি ধারাগুলো দেশের অন্য রাজনৈতিক দলগুলোকে হয় সমর্থন দিবে না হয় নিরপেক্ষ থাকবে। তবে এই সমর্থন দেয়া কিংবা নিরপেক্ষ থাকা কিংবা নেপথ্যে অসমর্থন করা সবকিছুরই ভিত্তি হবে দেশের জনগণের ও ইসলামের স্বার্থে।

৭) আগের যুগের মতো সূফি ধারার খানকাহর ব্যাপকভিত্তিক প্রচলন করুন।

রাষ্ট্রক্ষমতা হাসিল করা নয় বরং দেশকে ব্যাপকভিত্তিক ইসলামাইজ করাতে দেশের কওমি ধারার সফট পাওয়ার হিসেবে ভূমিকা রাখার জন্য বিশাল সম্ভাবনা আছে।

পরামর্শগুলো মো. রিফাত চৌধূরীর ফেসবুক থেকে নেয়া

-এটি

সর্বশেষ সব সংবাদ