192066

ভারতে এক মাসেই কাজ হারিয়েছেন ১২ কোটি মানুষ

আওয়ার ইসলাম: মহামারি করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবের কারণে চরম অর্থনৈতিক বিপর্যয়ের মুখে ভারত। সেখানে দীর্ঘ আড়াই মাসের মতো চলমান লকডাউনে কাজ হারিয়ে বেকার হয়ে পড়েছেন কোটি কোটি মানুষ। এর মধ্যে শুধু মে মাসেই কাজ হারিয়েছেন ১২ কোটির বেশি। সংখ্যাটা যে আরো অনেক তা বলার অপেক্ষা রাখে না।

সম্প্রতি এ নিয়ে একটি সমীক্ষা চালায় বেসরকারি ক্ষেত্রে কর্মসংস্থান, অর্থনীতির গতিপ্রকৃতি নিয়ে গবেষণা ও সমীক্ষাকারী বেসরকারি সংস্থা ‘সেন্টার ফর মনিটরিং ইন্ডিয়ান ইকোনমি (সিএমআইআই)’।

সংস্থাটির পক্ষ থেকে দাবি করা হয়, শুধু মে মাসেই কাজ হারিয়ে বেকার হয়ে পড়েছেন প্রায় ১২ কোটি ২০ লক্ষ মানুষ। বেকার শ্রমিকদের নিজ নিজ রাজ্যে ফেরার ছাড়পত্র দেয়ার পরই এমন চিত্র ফুটে উঠে। এক্ষেত্রে সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছেন দিনমজুর, ক্ষুদ্র ব্যবসায়ী, হকার, ফুটপাতের ব্যবসায়ী, নির্মাণ শিল্পের শ্রমিক, রিকশা-অটো চালকদের মতো পেশার লোকজন।

কাজ না থাকায় বর্তমানে প্রতিদিন ট্রেনে করে নিজেদের রাজ্যে ফিরছেন হাজার হাজার শ্রমিক। পরিস্থিতি স্বাভাবিক হওয়ার পর ফের কর্মস্থলে ফিরলেও যে কাজ পাবেন, সেটারও নিশ্চয়তা নেই। তাই উপায় না পেয়ে নিজ বাড়িতে ফিরে যাচ্ছেন তারা। পরিস্থিতি যে কতটা ভয়ানক হতে চলেছে, তা আঁচ করা যায় শ্রমিকদের ঘরে ফেরার ঢল দেখেই।

বিশেষজ্ঞরা বলছেন, ২০১৪ সালে ক্ষমতায় আসার পর নিম্নবিত্তদের কর্মসংস্থানে জোর দিয়েছিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। সেই ধারাবাহিকতায় ২০১৯ সালে বিপুল সংখ্যাগরিষ্ঠতা নিয়ে ফের ক্ষমতায় আসেন তিনি। যদিও বিরোধীদের দাবি, প্রতিশ্রুতি পূরণে ব্যর্থ মোদি সরকার।

তারপরও বেকারত্ব দূর করতে যতটুকু চেষ্টা করেছিল মোদি সরকার, সেটুকু করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ও লকডাউনের কারণে বিপলে গেছে। ফলে নতুন কর্মসংস্থান সৃষ্টির কথা বাদ দিয়ে আপাতত বেকার শ্রমিকদের কাজ ফেরানোই বড় সঙ্কট হয়ে দাঁড়িয়েছে। দিন যত যাচ্ছে পরিস্থিতি আরো ভয়ানক রূপ ধারণ করছে।

-এটি

ad