সোমবার, ১৫ এপ্রিল ২০২৪ ।। ২ বৈশাখ ১৪৩১ ।। ৬ শাওয়াল ১৪৪৫


অনলাইন কেনাকাটায় যেসব বিষয়ে সতর্ক থাকবেন

নিউজ ডেস্ক
নিউজ ডেস্ক
শেয়ার
ছবি: সংগৃহীত

আসন্ন ইদুল ফিতর উপলক্ষে মার্কেট- শপিংমলগুলোতে বেড়েছে ক্রেতাদের ভিড়। এই ভিড় ও জ্যামের শহরে অনেকে কেনাকাটা করেন অনলাইনে। আর অনলাইনে কেনাকাটা আমাদের জীবনযাত্রাকে আরও সহজ করে তুলেছে। কেনাকাটায় সময় ও শ্রম দুটোই বাঁচে। এ কারণে বর্তমানে অনলাইন বিজনেসও ফুলে ফেঁপে উঠেছে। ক্রেতারা ঘরে বসে নিজের পছন্দের পণ্যটি হাতে পাচ্ছেন। অনলাইন মার্কেট থেকে ক্রয়-বিক্রয় করে লাভবান হচ্ছে উভয়পক্ষই। তবে অনলাইন শপিংয়ের যেমন সুবিধা আছে, তেমন কিছু অসুবিধাও আছে।

অনেকেই অনলাইনে কেনাকাটা করতে গিয়ে নানাভাবে প্রতারিত হন। অনেক সময় ছবির সঙ্গে পণ্যের কোনো মিল থাকে না। আবার কখনো অগ্রিম টাকা দেয়ার পরও পণ্য হাতে পান না অনেকেই।

তাহলে কি প্রতারণার ভয়ে অনলাইন থেকে কেনাকাটা বন্ধ করে দেবেন?

একদমই নয়। বরং অনলাইনে পণ্য কিনে যাতে ঠকতে না হয়, তার জন্য হতে হবে সতর্ক। কিছু বিষয় খেয়াল রাখলে আর ঠকে যাওয়ার ভয় থাকবে না। চলুন জেনে নিই কোন বিষয়গুলোর প্রতি খেয়াল রাখবেন–

প্রলোভনে পড়বেন না: আপনাকে আকৃষ্ট করার জন্য সব বিক্রয় প্রতিষ্ঠানই আকর্ষণীয়সব বিজ্ঞাপন দেবে। তাই কোনো আকর্ষণীয় বা লোভনীয় বিজ্ঞাপন দেখলেই হুট করে কিনে ফেলবেন না। প্রথমেই খেয়াল করুন প্রতিষ্ঠানের নাম ও ঠিকানার সঙ্গে মালিকের নাম ও ঠিকানার মিল রয়েছে কি না।

ওয়েবসাইট বা পেইজ যাচাই করুন: আপনি যে ওয়েবসাইট বা পেইজ থেকে পণ্য কিনবেন, সেটি ভালো করে যাচাই করে নিন। অনেক ওয়েবসাইটে প্রবেশের জন্য নতুন করে অ্যাকাউন্ট খুলতে হয়। ফলে আপনার বিভিন্ন তথ্য ওই ওয়েবসাইটে চলে যায়। তাই যে কোনো ওয়েবসাইটে আগেই অ্যাকাউন্ট খুলবেন না।

ট্রেড লাইসেন্স: অনলাইন প্রতিষ্ঠানটির ট্রেড লাইসেন্স রয়েছে কি না জেনে নিন। থাকলে তার নিবন্ধন নম্বর কত তা জেনে নিন। ওয়েবসাইটে ট্রেড লাইসেন্সের কপি আছে কি না তা দেখে নিন। এতে ঠকে যাওয়ার ভয় থাকবে না।

রিভিউ দেখুন: অনলাইনে কোনো পণ্য কেনার আগে ওই কোম্পানি বা পেজের সুনাম কেমন তা যাচাই করুন। এ ক্ষেত্রে আপনি রিভিউ দেখতে পারেন। যদি সব রিভিউ ইতিবাচক হয়, তাহলে সেখান থেকে কিনতে পারেন।

আসল পণ্যের ছবি দেখে কিনুন: পণ্য কেনার জন্য সব কিছু যাচাই-বাছাই করুন। বিশেষ করে পোশাক কেনার ক্ষেত্রে রং, কাপড়ের কোয়ালিটি, সাইজ ইত্যাদি বিষয় সম্পর্কে সঠিক তথ্য জেনে তবেই অর্ডার করুন। এতে পণ্য পাওয়ার পর আর আফসোস করতে হবে না। অনেক সময় ছবির সঙ্গে বাস্তবের পণ্যের মিল থাকে না, এজন্য বিক্রেতার কাছ থেকে ওই পণ্যের আসল ছবি দেখে নিন।

মূল্য পরিশোধ: মোবাইল ব্যাংকিংয়ের মাধ্যমে মূল্য পরিশোধ করতে বললে প্রথমেই টাকা পাঠিয়ে দেবেন না। কয়েকটি নম্বর থেকে ফোন করে যাচাই বাছাই করে তারপরই টাকা পাঠান। নির্দিষ্ট পণ্য যেন পাঠায় এবং পণ্যের সঙ্গে রসিদও যেন পাঠায় সেটি উল্লেখ করে দেবেন। যেসব ওয়েবসাইট বা ফেসবুক পেজ ক্রেতার কাছ থেকে অগ্রিম টাকা আবদার করে, সেখান থেকে পণ্য কেনার ক্ষেত্রে সতর্ক থাকুন।

ক্যাশ অন ডেলিভারি: পণ্য হাতে পাওয়ার পর মূল্য পরিশোধ করার পদ্ধতিকে বলা হয় ক্যাশ অন ডেলিভারি। তাই আগে পণ্য হাতে পেয়ে বিক্রয় প্রতিনিধিকে সরাসরি মূল্য পরিশোধ করা যায় এমন পেজ থেকে কেনাকাটা করাই বুদ্ধিমানের কাজ। পণ্যটি হাতে পাওয়ার পর বিক্রয় প্রতিনিধির সামনেই চেক করে দেখে নিন।

লাইভ দেখুন: যারা পণ্য নিয়ে লাইভে আসে, তাদের পণ্য কিনে ঠকে যাওয়ার আশঙ্কা কম থাকে। কারণ, তারা বিক্রির উদ্দেশ্যেই লাইভ করে থাকে। আর এই লাইভের মানে হলো তাদের কাছে পণ্যটি রয়েছে। আবার পছন্দের পণ্যটির খুঁটিনাটিও লাইভের মাধ্যমে দেখা যায়। তাই যারা পণ্য নিয়ে লাইভ করে তাদের পেজ থেকে পণ্য কেনার চেষ্টা করুন।

চটকদার অফার: যদি কোনো ই-স্টোর আপনাকে খুব কম দামে ভালো পণ্য দেয়ার প্রতিশ্রুতি দেয়, তাহলেও সতর্ক থাকুন। একই পোশাক যদি এক স্থানে দেখেন বেশি দাম ও অন্য স্থানে কম, তাহলে কিন্তু দ্রুত তা কিনতে যাবেন না। কারণ পোশাকের ডিজাইন একই হলেও মেটেরিয়ালে হেরফের থাকতে পারে। ঠিক তেমনই কসমেটিক্স বা সানগ্লাস, বেল্ট, ঘড়ি ইত্যাদি ভালো ব্র্র্যান্ডের জিনিসের রেপ্লিকাও এখন বাজারে আছে। তাই বুঝে শুনে তবেই কিনুন।

বিনু/


সম্পর্কিত খবর


সর্বশেষ সংবাদ