রুহুল আমীন খান উজানীর কবিতা: ইজতেমায় নেই বহু কিছু
জানুয়ারি ১৪, ২০২৩ ৮:০২ অপরাহ্ণ

বিশ্ব ইজতেমায় আছেতো বহুকিছু
তবে বেশ কিছুই নেই,
আল্লাহর পথে দাওয়াতে একাকার
গায়রুল্লাহর কাছে সুওয়ালের অবকাশ নেই।

ইসলামের ব্যানারে কতো সভা-সমিতি,
যতোসব জলসাজুলুস,
রঙ বেরঙের কুপন রশিদে চাঁদা তহসিলের কৌশল,
যত্রতত্র অর্থমোহে কৃত্রিম মাজার উরুস।

তাবলীগ বলে দীনের দাওয়াতের অন্তরালে
রুজি রোজগার সমীচীন নয়,
চাইবো প্রানভরে তবে মালিকের কাছে
গোলামের কাছে নয়।

অমানবতার কোনো ঠাঁই নেই
ইজতেমার শান্তির ময়দানে,
জাগতিক মোহের নেই কোনো উৎস
সম্প্রীতির এই অনুপম কাননে।

মানুষই মানুষের সার্বিক যন্ত্রণার আধার
প্রমান দিচ্ছে চলমান জনসমাবেশ,
ইজতেমা বলে প্রতিটি উম্মত কল্যাণ পরশ,
‘না’ বলুন যতোসব হিংসা-বিদ্বেষ।

আরাম আয়েশ উশৃংখল বিলাসিতা
সমূলে উৎপাটিত ইজতেমা ময়দানে,
প্রতিটি মানুষকে আহবান জানায়
জীবন গড়ুন সবাই মানব কল্যাণে।

বর্ণ গোত্র শ্রেণী বৈষম্য
মানবসৌধকে করে চুরমার,
ইজতিমা দিচ্ছে সাম্যের আহবান
স্রষ্টার মহানত্বে আল্লাহু আকবার।

মানুষ মাত্রই এই যুগে অতি ব্যস্ত
মূলত নিজেরে নিয়েই নিজে,
তাবলীগের দাওয়াত দীনের দাওয়াত
বেরুতে হবে সর্বস্তরের কল্যাণের খোঁজে।

স্বার্থপরতা নিষ্ঠুরতা হটিয়ে ফলায়
ইকরামের নয়নাভিরাম ফলন,
সকল অনৈতিকতা ‘না’ বলুন
কায়েম করুন রহমতি অঙ্গন।

পরিলক্ষিত হয় না ইজতেমায় মারামারি
দেখা যায় না আর্থিক লেনদেনের দরবার,
পরিবেশই মানুষ গড়ার জীবনভেলা
সুপরশই মানুষের জীবনাধার।

দর্শনে দর্শনে দার্শনিক বটে
দর্শনে পরস্পরে আছে প্রতিযোগিতা,
বিশ্ব দার্শনিকদের এই মহাইজতেমা
লাখো বৈচিত্রের মাঝে ঐক্যের কথা।

শেষ নবীজির (সাঃ) সুন্নতরাজি কায়েমে
ইজতেমা ময়দান দেয় প্রেরণা
শিরিক বিদআতের মূলোৎপাটনে
যোগায় অকৃত্রিম নিখুঁত চেতনা।

সংকলক
মো: মোসাব্বির রাহমান
বিশেষ সংবাদদাতা

-এটি