fbpx
           
       
           
       
বন্যার্ত মানুষের মাঝে সুদবিহীন ঋণ সুবিধা ও ত্রাণ ‍বিতরণের আহ্বান শায়খে চরমোনাইর
জুলাই ০৫, ২০২২ ৭:৫৩ অপরাহ্ণ

আওয়ার ইসলাম ডেস্ক: সুনামগঞ্জ বিসম্ভরপুর থানায় বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত অসহায় মানুষদের মাঝে ত্রাণ বিতরণকালে ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের সিনিয়র নায়েবে আমীর শায়খে চরমোনাই বলেছেন, শুধু উন্নয়ন উন্নয়ন বলে স্লোগান দিলেই হবে না, মানুষের মৌলিক চাহিদা পূরণে সরকার চরমভাবে ব্যর্থ হয়েছে।

সিলেট সুনামগঞ্জে বন্যা দুর্গত এলাকায় অসহায় মানুষদের জন্য সরকার কার্যকর কোন উদ্যোগ গ্রহণ করেনি। অবিলম্বে বানভাসী মানুষের পুনর্বাসনে সরকারকে নজর দিতে হবে।

আজ মঙ্গলবার সকাল থেকে সুনামগঞ্জ জেলার বিশ্বম্ভরপুর উপজেলাসহ জেলার বিভিন্ন এলাকায় ত্রাণ বিতরণকালে তিনি এসব কথা বলেন। এ সময় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন সংগঠনের কেন্দ্রীয় সহ প্রশিক্ষণ সম্পাদক মুফতি দেলাওয়ার হোসাইন সাকী, কেন্দ্রীয় সহ সাংগঠনিক সম্পাদক মাওলানা মাহমুদুল হাসান, সৌদি আরব শাখার প্রধান উপদেষ্টা মাওলানা মিজানুর রহমান, জেলা সভাপতি মাওলানা শহিদুল ইসলাম পলাশী, বামুক সদর আবদুল গফুর, সাধারণ সম্পাদক রহমতুল্লাহ, জেলা সেক্রেটারি মাওলানা সোহেল আহমদ, জয়েন্ট সেক্রেটারি মুফতি হোসাইন আল হারুন, সাংগঠনিক সম্পাদক তানভীর আহমেদ তাসনিম, ছাত্র আন্দোলন সভাপতি আইয়ুবুর রহমান প্রমুখ।

মুফতী ফয়জুল করীম বলেন, সরকার বন্যা দুর্গত মানুষের সাথে তামাশা করছে। ইসলামী আন্দোলন ক্ষতিগ্রস্থ বানভাসী মানুষের পাশে ছিলো, আছে এবং থাকবে, ইনশাআল্লাহ। তিনি সারাদেশের বন্যার্ত মানুষের মাঝে সুদবিহীন ঋণ সুবিধা ও কৃষিপণ্য প্রদানের দাবি জানিয়েছেন। সেইসাথে বানভাসি মানুষের দুঃখ কষ্ট লাঘব না হওয়া পর্যন্ত দলের পক্ষ থেকে ত্রাণ তৎপরতা অব্যাহত রাখার ঘোষণা দেন।

সিলেট ও সুনামগঞ্জে বানভাসী অসহায় মানুষের মাঝে ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ-এর আমীর মুফতী সৈয়দ মোহাম্মদ রেজাউল করীম পীর সাহেব চরমোনাই’র নির্দেশে ত্রাণ বিতরণ অব্যাহতভাবে চলছে। দলের ধারাবাহিক কর্মসূচির অংশ হিসেবে দলের সিনিয়র নায়েবে আমীর মুফতি সৈয়দ মুহাম্মদ ফয়জুল করীম শায়েখে চরমোনাই গতকাল সোমবার রাতে ঢাকা থেকে বন্যা দুর্গত জেলা সুনামগঞ্জে পোঁছে জেলা ত্রাণ বিতরণ কমিটির সাথে এক মতিবিনিময়ে মিলিত হন। শায়খে চরমোনাই সুনামগঞ্জের মসজিদ, মাদরাসার ক্ষতিগ্রস্ত ওলামা মাশায়েখ ও আইম্মায়ে মাসাজিদের মাঝে শহীদ মুক্তিযুদ্ধা জগৎজ্যোতি পাবলিক লাইব্রেরী মিলনায়তনে মতবিনিময় সভা, দোয়া মাহফিল শেষে ওলামাদের মাঝে হাদিয়া বিতরণ এবং নগদ অর্থ সহযোগিতা করেন।

পরে স্পিডবোটে করে বিশ্বম্ভরপুর উপজেলার দুর্গম ক্ষতিগ্রস্ত এলাকা পরিদর্শন শেষে সাধারণ মানুষদের মাঝে ফ্যামিলি প্যাকেজ বিতরণ করেন। পরে শান্তিগঞ্জ উপজেলায় ক্ষতিগ্রস্ত এলাকা পরিদর্শন এবং ফ্যামিলি প্যাকেজ বিতরণ করেন। বানভাসী অসহায় মানুষের অবর্ননীয় দু:খ দুর্দশার কথা শোনে শায়খে চরমোনাই তাদের সান্তনা প্রদান করেন এবং সাধারণ অনুযায়ী সহযোগিতার আশ্বাস দেন। যাওয়ার পথে সিলেট জেলার ওসমানীনগর উপজেলার তাজপুর ইউনিয়নে হাদিয়া বিতরণ করেন।

তিনি ইসলামী আন্দোলনের ত্রাণ টিমের স্বেচ্ছাসেবকসহ অন্যান্য সকলের সাথে মতবিনিময় করেন। তিনি সকলকে সিলেট ও সুনামগঞ্জের অসহায় বানভাসী মানুষের স্থায়ী সমাধান না হওয়া পর্যন্ত কাজ করে যাওয়ার তাগিদ প্রদান করেন। দলের কেন্দ্রীয় মনিটরিং সেল গঠন করে সে সেলের মাধ্যমে ইসলামী আন্দোলন, সহযোগি সংগঠনের নেতৃত্বে আগত ত্রাণ টিমকে নির্দেশনা প্রদান করে সে আলোকে ত্রাণ বিতরণ অব্যাহতভাবে চলছে। সমস্যার সমাধান না হওয়া পর্যন্ত ইসলামী আন্দোলনের পক্ষ থেকে সকল ধরণের ত্রাণ, সহযোগিতা, বাড়ীঘর নির্মাণ কাজ অব্যাহত রাখার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেন।

-এটি