শিরোনাম :
হজরত বিশরে হাফি রহ. এর কিছু নসিহত ও আমাদের শিক্ষা
জানুয়ারি ১১, ২০২২ ৪:৩২ অপরাহ্ণ

মুযযাম্মিল হক উমায়ের।।

তিনি বলতেন, যে ব্যক্তি দুনিয়ার সুনাম-সুখ্যাতি ও প্রসিদ্ধি চায়, সে পরকালের স্বাদ ও নিয়ামত থেকে বঞ্চিত থাকবে৷

তিনি বলতেন, এমন সময় আসবে যখন জ্ঞানী, সুশীল ও নম্র-ভদ্র লোকজনের উপর দুশ্চরিত্র ও নির্বোধ লোকদের ক্ষমতা চালাবে৷

তিনি বলতেন, তোমাদের জন্যে ওই সকল মানুষই যতেষ্ট, যাদের আলোচনার দ্বারা তোমাদের অন্তর জীবিত ও সজীব হবে৷ কারণ, বর্তমানে নিশ্চিত এমন অনেক মানুষ রয়েছে, যাদেরকে দেখলে অন্তর মরে যায়৷

তিনি বলতেন, গতকাল তো চলেই গেছে৷ বর্তমান দিনটি কষ্টের সাথে পাড় হচ্ছে৷ আগামীকাল তো এখনো আসেনি৷ সুতরাং নেক কাজে দৌড়ে আসো৷ প্রতিযোগিতা করে নেক কাজ করো৷

তিনি বলতেন, যাদের স্ত্রীর প্রয়োজন নেই, তারা যেনো তাকওয়া অর্জন করে৷ এবং মহিলাদের রানের পিছনে না পড়ে৷ তবে যদি কারো চার জন স্ত্রীর প্রয়োজন পড়ে, তাহলে সে অপচয়কারী নয়৷

তিনি বলতেন, খারাপ লোকদের সংশ্রবের কারণে ভালো লোকদের প্রতি খারাপ ধারনা সৃষ্টি হয়৷ আর নেক লোকদের সংশ্রব দ্বারা, খারাপ লোকদের প্রতিও সুধারনা সৃষ্টি হয়৷ আর আল্লাহ তায়ালা সুধারনার কারণে কোন বান্দাকে পাকড়াও করবেন না৷ পাকড়াও করবেন কুধারনার কারণে৷

তিনি যদি কোন ফকিরকে হাসতে এবং গাফেল অবস্থায় দেখতেন, তখন তাকে বলতেন, আল্লাহ তায়ালাকে ভয় করো৷ যেনো এই অবস্থায় তিনি তোমাকে পাকড়াও করে না ফেলেন৷

তিনি বলতেন, যখন বান্দা আল্লাহ তায়ালার হকের ক্ষেত্রে কোন ত্রুটি করতে থাকে, তখন আল্লাহ তায়ালা তার থেকে তার প্রিয় জিনিস ছিনিয়ে নেন৷ সূত্র: আকওয়ালে সালফ

-এটি

সর্বশেষ সব সংবাদ