শিরোনাম :
সালতামামি ২০২১: মুসলিম বিশ্বের যে ঘটনাগুলো আলোচিত
জানুয়ারি ০২, ২০২২ ১০:৪৬ অপরাহ্ণ

আওয়ার ইসলাম ডেস্ক: বদলে গেছে পৃথিবীর হালচাল। করোনায় পাল্টে গেছে অনেক কিছু। যুদ্ধ, রাজনীতি, কূটনীতি, ক্ষমতার পালাবদল, শত্রুর-মিত্রে পরিণত কিংবা মিত্রের শত্রুতা ছাপিয়ে সর্বাধিক আলোচিত বিষয় করোনার প্রকোপ নিয়ন্ত্রণ ও টিকার ডোজ। এই বাইরেও বিশ্বে নানা ঘটনা নাড়া দিয়েছে বিশ্বাবাসীকে।

মুসলিম বিশ্বের জন্যও ২০২১ ছিল ঘটনাবহুল। নানা ঘটনার মধ্য দিয়ে শেষ হয় বছরটি। এ বছর সংঘটিত ইসলাম ও মুসলিম বিশ্বের তাৎপর্যপূর্ণ ঘটনাগুলো তুলে ধরা হলো-

দ্বিতীয়বারের মতো সীমিত পরিসরে হজ

এ বছরের ১৮ থেকে ২২ জুলাই করোনাকালে দ্বিতীয়বারের মতো সীমিত পরিসরে হজ সম্পন্ন হয়েছে। এতে ১৫০টি দেশের ১৮ থেকে ৬৫ বছর বয়সীরা অংশ নেন। অনলাইনে সাড়ে পাঁচ লাখ আবেদনের মধ্যে প্রায় ৬০ হাজার হাজি নির্বাচন করা হয়। তবে ২০২০ সালের মতো এ বছরও কোনো হজযাত্রী করোনায় আক্রান্ত হননি।

প্রথমবার মক্কা ও মদিনায় নারী নিরাপত্তাকর্মী নিয়োগ

প্রথমবার মক্কা ও মদিনায় নারী নিরাপত্তাকর্মী নিয়োগ এ বছর প্রথমবারের মতো নারী হজযাত্রী ও মুসল্লিদের নিরাপত্তায় নারী সৈনিক নিয়োগ দিয়েছে সৌদি আরব। এর আগে রিয়াদের কিং ফাহাদ সিকিউরিটি কলেজে নারী সৈনিক নিয়োগ ও প্রশিক্ষণের ঘোষণা দেওয়া হয়। এরপর প্রথমবারের মতো পবিত্র মসজিদে নববিতে ৯৯ জন নারী নিরাপত্তাকর্মী নিয়োগ দেওয়া হয়। এ ছাড়া মক্কা ও মদিনার পবিত্র দুই মসজিদের পরিচালনা পর্ষদের শীর্ষ পদেও উচ্চশিক্ষিত একাধিক নারীকে নিয়োগ দেওয়া হয়।

তাকসিম স্কয়ারে মসজিদ উদ্বোধন

তাকসিম স্কয়ারে মসজিদ উদ্বোধন এ বছরের ২৮ মে তুরস্কের বিখ্যাত তাকসিম স্কয়ারে নবনির্মিত মসজিদ উদ্বোধন করা হয়। নির্মাণ পরিকল্পনার দীর্ঘ ৭০ বছর পর জুমার নামাজের মাধ্যমে আনুষ্ঠানিকভাবে তা উদ্বোধন করেন প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়িপ এরদোয়ান। তুরস্কের জাতীয় আন্দোলনগুলোর সঙ্গে জড়িত এই স্কয়ারে নির্মিত এ মসজিদে একসঙ্গে চার হাজারের বেশি মুসল্লি নামাজ আদায় করতে পারেন।

নারী মুহাদ্দিসদের জীবনীমূলক গ্রন্থ প্রকাশ এ বছরের শুরুতে ইসলামের ইতিহাসের ১০ হাজারের বেশি নারী হাদিস বিশেষজ্ঞের জীবনী নিয়ে ৪৩ খণ্ডের এই ঐতিহাসিক গ্রন্থ প্রকাশ করে সৌদিভিত্তিক প্রকাশনা প্রতিষ্ঠান দারুল মিনহাজ। দীর্ঘ ১৫ বছরের গবেষণার পর ‘আল ওয়াফা বি আসমাইন নিসা’ নামের সুবিশাল গ্রন্থটি রচনা করেন ভারতীয় আলেম ক্যামব্রিজ ইসলামিক কলেজের প্রধান ড. মুহাম্মাদ আকরাম নদভি।

অযোধ্যায় মসজিদ কমপ্লেক্সের নির্মাণকাজ শুরু

এ বছরের ২৬ জানুয়ারি বাবরি মসজিদের বিকল্প মসজিদের নির্মাণকাজ শুরু হয়। অযোধ্যার ধন্নিপুর গ্রামে আনুষ্ঠানিক নির্মাণকাজ শুরু করে দ্য ইন্দো-ইসলামিক কালচারাল ফাউন্ডেশন (আইআইসিএফ)।

মুসলিম কাউন্সিল অব ব্রিটেনের প্রথম নারী সেক্রেটারি

যুক্তরাজ্যের মুসলিম জনগোষ্ঠীর সর্ববৃহৎ সংগঠন মুসলিম কাউন্সিল অব ব্রিটেনের (এমসিবি) সেক্রেটারি জেনারেল হিসেবে প্রথমবারের মতো জারা মুহাম্মদ নামের একজন নারী নির্বাচিত হয়েছেন। এর আগে তিনি অ্যাসিস্ট্যান্ট জেনারেল সেক্রেটারি হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন ৩০ বছর।

ভারতীয় নারীর প্রথম আরবি সাহিত্য পুরস্কার লাভ

এ বছর প্রথমবারের মতো এক ভারতীয় নারী আরব বিশ্বের নোবেল পুরস্কার খ্যাত আমিরাতের শেখ জায়েদ বুক অ্যাওয়ার্ড পেয়েছেন। যুক্তরাষ্ট্রের শিকাগো বিশ্ববিদ্যালয়ের আরবি সাহিত্য ও ইসলাম শিক্ষার অধ্যাপক ড. তাহেরা কুতুবুদ্দিন এই পুরস্কার লাভ করেন। আবু ধাবি জাতীয় গ্রন্থমেলায় ১৫তম শেখ জায়েদ বুক অ্যাওয়ার্ড প্রাপ্ত ১০৬ জন লেখককে পুরস্কার হিসেবে দুই লাখ ডলার করে প্রদান করা হয়।

বাইডেনের প্রথম মুসলিম প্রতিনিধি নিয়োগ

যুক্তরাষ্ট্রের আন্তর্জাতিক ধর্মীয় স্বাধীনতা বিষয়ক রাষ্ট্রদূত হিসেবে রাশেদ হোসেনকে চূড়ান্ত অনুমোদন দিয়েছে মার্কিন সিনেট। গত ১৭ ডিসেম্বর এক টুইট বার্তায় এ তথ্য জানিয়েছে দেশটির অফিস অব ইন্টারন্যাশনাল রিলিজিয়াস ফ্রিডম। এর আগে গত ৩০ জুলাই মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন আন্তর্জাতিক ধর্মীয় স্বাধীনতা বিষয়ক অ্যাম্বাসাডর অ্যাট লার্জ হিসেবে তাকে মনোনয়ন দেন।

বাংলাদেশিসহ পাঁচ বিজ্ঞানীকে ইরানের সম্মাননা

পাঁচ মুসলিম বিজ্ঞানীকে ইরানের বিখ্যাত মোস্তফা পুরস্কার দেওয়া হয়েছে। তাদের নগদ ১০ লাখ মার্কিন ডলার পুরস্কার হিসেবে দেওয়া হয়। এই পুরস্কার পেয়েছেন হার্ভার্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক কামরান ওয়াফা, যুক্তরাষ্ট্রের প্রিন্সটন বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত বিজ্ঞানী জাহিদ হাসান এবং লেবাননের মুহাম্মদ সায়েগ, মরক্কোর ইয়াহইয়া তায়ালাতি ও ইকবাল চৌধুরী।

উগুর শাহিন ‘ম্যান অব দ্য ইয়ার’ উপাধি

কোভিড-১৯ মহামারি প্রতিরোধে টিকা আবিষ্কার করে অগ্রণী ভূমিকা রাখায় ২০২২ সালে বিশ্বের ৫০০ প্রভাবশালী মুসলিম ব্যক্তি হিসেবে ‘ম্যান অব দ্য ইয়ার’ উপাধি পেয়েছেন তুর্কি বংশোদ্ভূত জার্মান বিজ্ঞানী উগুর শাহিন।

জর্দানের রাজধানী আম্মানভিত্তিক গবেষণাপ্রতিষ্ঠান রয়াল ইসলামিক স্ট্র্যাটেজিক স্টাডিজ সেন্টার (আরআইএসএসসি) এই উপাধি প্রদান করে। জার্মান প্রতিষ্ঠান বায়োএনটেক ও যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক ফার্মা প্রতিষ্ঠান ফাইজারের যৌথ উদ্যোগে তাদের তৈরি টিকা পুরো বিশ্বে সবচেয়ে বেশি ব্যবহৃত হয়।

কাবার প্রধান ক্যালিগ্রাফারের বিরল সম্মাননা

কাবার গিলাফের প্রধান ক্যালিগ্রাফার বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত আলেম মুখতার আলম সৌদি আরবের নাগরিকত্ব লাভ করেন। বিভিন্ন পেশার দক্ষ বিদেশি নাগরিকদের সৌদি আরবে নাগরিকত্ব লাভের অংশ হিসেবে তাকে নাগরিকত্ব দেওয়া হয়। ১১ নভেম্বর ২০২১ সৌদি বাদশাহ সালমান বিন আবদুল আজিজের এক রাজকীয় নির্দেশনায় বিভিন্ন পেশার বিশিষ্ট ব্যক্তিদের নাগরিকত্ব দেওয়ার কথা জানানো হয়।

ইউনেসকোর সাংস্কৃতিক ঐতিহ্যের তালিকায় আরবি ক্যালিগ্রাফি

আরবি ক্যালিগ্রাফিসহ বেশ কয়েকটি আরবি শিল্প ইউনেসকোর সাংস্কৃতিক ঐতিহ্যের স্বীকৃতি পেয়েছে। গত ১৫ ডিসেম্বর জাতিসংঘের শিক্ষা, বিজ্ঞান ও সংস্কৃতি বিষয়ক এই সংস্থা এক বিবৃতিতে এ তথ্য জানিয়েছে। গত ১৩ থেকে ১৮ ডিসেম্বর ফ্রান্সের রাজধানী প্যারিসে অনুষ্ঠিত ইউনেসকোর স্পর্শাতীত সাংস্কৃতিক ঐতিহ্য বিষয়ক আন্তঃরাষ্ট্রীয় কমিটির (ইন্টারগভর্নমেন্টাল কমিটি অন ইনট্যানজিবল হেরিটেজ) ১৬তম সভায় এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। এতে ক্যালিগ্রাফিসহ কয়েকটি আরবি শিল্পকে ‘মানবতার অধরা বা স্পর্শাতীত সাংস্কৃতিক ঐতিহ্যে’র তালিকাভুক্ত করা হয়।

আরব লীগের শিক্ষা, সংস্কৃতি ও বিজ্ঞান সংস্থার তত্ত্বাবধানে সৌদি আরবসহ ১৫টি আরব দেশের সফল সহায়তার পর ইউনেসকো এ ঘোষণা দেয়। ‘আরবি ক্যালিগ্রাফি : জ্ঞান, দক্ষতা ও অনুশীলন’কে আনুষ্ঠানিকভাবে বিশ্ব ঐতিহ্যের তালিকাভুক্ত করা হয়। ধর্মীয় গ্রন্থে আরবি ক্যালিগ্রাফি ব্যবহারের গুরুত্ব ছাড়াও ভাষার অগ্রগতি ও উন্নয়নে এর গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা আছে। শতাব্দীর পর শতাব্দী ধরে তা আরব সংস্কৃতি, রীতিনীতি ও ধর্মীয় মূল্যবোধের প্রচার-প্রসারে অবদান রেখেছে।

বিশ্ব ঐতিহ্য সংস্থা বিবৃতিতে জানিয়েছে, মূলত আরবি ক্যালিগ্রাফি আরব ও মুসলিম বিশ্বের মৌলিক সংস্কৃতির প্রতীক। আরবি ক্যালিগ্রাফিকে সংস্থাটি আরবি ভাষা লেখার শিল্প হিসেবে উল্লেখ করে এটিকে সাদৃশ্য ও সৌন্দর্যের প্রতীক বলে জানায়।

-এটি

সর্বশেষ সব সংবাদ