fbpx
           
       
           
       
শিরোনাম :
সঙ্কটময় ও ভীতিকর পরিস্থিতির জন্য অব্যবস্থাপনা দায়ী: ইসলামী আন্দোলন
এপ্রিল ১২, ২০২১ ১০:১৬ অপরাহ্ণ

আওয়ার ইসলাম: ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ-এর প্রেসিডিয়াম সদস্য অধ্যক্ষ সৈয়দ মোসাদ্দেক বিল্লাহ আল-মাদানী বলেন করোনার উর্ধ্বগতি, সঙ্কটময় ও ভীতিকর পরিস্থিতির জন্য একমাত্র সরকারের অব্যবস্থাপনা ও চরম উদাসীনতা দায়ী। সরকার যেখানে লকডাউনে জনগণের খাদ্য ও সুরক্ষার জন্য সার্বিক ব্যবস্থা নেয়ার কথা, সেখানে সরকার প্রসাশনকে দিয়ে উলামায়ে কেরাম ও নীরিহ মানুষদের গ্রেফতার এবং হয়রানী করে চলছে।

গতকাল (১১ এপ্রিল) রোববার নগরীর হাতিরঝিলে ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ ঢাকা মহানগর উত্তর কর্তৃক “সপ্তাহব্যাপী করোনা সচেতনতার লক্ষে মাক্স বিতরণ” কর্মসূচীর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে সৈয়দ মোসাদ্দেক বিল্লাহ আল-মাদানী উপর্যুক্ত কথা বলেন।

তিনি আরও বলেন পুলিশ প্রশাসন জনগনের জান, মালের নিরাপত্তা প্রদান ও কল্যানের জন্য। অথচ সীমাহীন দলীয়করণের মাধ্যমে পুলিশ প্রশাসনকে জনগনের মুখোমুখি দাঁড় করিয়ে দিয়েছে সরকার। পুলিশের সম্মানিত আইজিপি মহোদয়ের প্রশাসনকে উচ্চ ক্ষমতা সম্পন্ন অস্ত্র ব্যবহারের নির্দেশনা দেয়ার মাধ্যমে জনমনে উদ্বেগ-উৎকন্ঠার সৃষ্টি করেছেন। সরকার ও প্রশাসনের বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তির উলামায়ে কেরামদের নিয়ে করা মন্তব্যে বিদ্বেষী মনোভাব স্পষ্ট হয়ে উঠছে। শহর থেকে গ্রাম সব জায়গায় মাদরাসা শিক্ষকদের তথ্য সংগ্রহ করা, উলামায়ে কেরামদের গ্রেফতার ও হয়রানী করা হচ্ছে। মাদরাসা শিক্ষক ও উলামায়ে কেরামগন স্বল্প আয়ের মানুষ। অবিলম্বে তাদেরকে গ্রেফতার ও হয়রানী বন্ধ করুন। লকডাউনকে উলামায়ে কেরাম ও বিরোধী দল-মত দমনে ব্যবহার করবেন না।

সভাপতির বক্তব্যে অধ্যক্ষ হাফেজ মাওলানা শেখ ফজলে বারী মাসউদ বলেন; করোনা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে সরকার ব্যর্থ হয়ে এখন সরকারের গঠনমূলক সমালোচনাকারীদের দমনে সরকার ব্যস্ত হয়ে গেছে। করোনার শুরুতে আমরা দেখেছি ত্রাণ বিতরণের সময় সরকার দলীয় বিবেচনায় ত্রাণ দেয়া হয়েছে। যে কারনে অনেক অসহায় ও মধ্যবিত্তের মানুষ ত্রাণ থেকে বঞ্চিত হয়েছে। যারা জাতির দুর্দিনেও ত্রাণ চুরি করে তারা জাতীয় গাদ্দার। এই গাদ্দারদের ও এদের আশ্রয়দাতাদের কড়া শাস্তির বিধান নিশ্চিত করত: প্রজ্ঞাপন জারি করুন। প্রতিটি মানুষের বেঁচে থাকার অধিকার প্রতিষ্ঠা করুন, খাদ্য ও সুরক্ষা নিশ্চিত করুন।

আরও উপস্থিত ছিলেন নগর সেক্রেটারী মাওলানা আরিফুল ইসলাম, সহকারী সাংগঠনিক সম্পাদক মুফতী ফরিদুল ইসলাম, প্রচার ও দাওয়াহ সম্পাদক ইঞ্জিনিয়ার গিয়াস উদ্দিন (পরশ), সহকারী অর্থ সম্পাদক চৌধুরী রাকিব হোসাইন, ছাত্র ও যুব সম্পাদক এডভোকেট শওকত আলী হাওলাদার, হাতিরঝিল থানা সভাপতি আব্দুস সাত্তার মুন্সী প্রমুখ।

-এটি

সর্বশেষ সব সংবাদ