fbpx
           
       
           
       
দোকানপাট খোলা রাখায় ও মাস্ক না পরার দায়ে ৫৫ জনকে জরিমানা
এপ্রিল ০৮, ২০২১ ৮:১৭ অপরাহ্ণ

আওয়ার ইসলাম: ঝালকাঠিতে চতুর্থ দিনেও ঢিলেঢালা লকডাউন চলেছে।

আজ বৃহস্পতিবার বিভিন্ন স্থান ঘুরে দেখা গেছে, জনসাধারণ স্বাস্থ্যবিধি না মেনে মাস্ক পরা ছাড়াই বাইরে ঘোরাফেরা করছে।

শহরের বড় দুটি বাজারে বেচাকেনা হয়। বেশিরভাগ দোকানপাট খোলা। এ অবস্থায় ঝালকাঠি জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করা হচ্ছে। মাস্ক না পরায় এবং দোকানপাট খোলা রেখে বেচাকেনা করায় আজ ৫৫ জনকে ৪৬ হাজার ৩৫০ টাকা জরিমানা করা হয়েছে।

ঝালকাঠি জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের নেজারত ডেপুটি কালেক্টর (এনডিসি) আহমেদ হাসান বলেন, সকাল থেকে জেলা প্রশাসনের দুটি টিম ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করেছে। লকডাউনের নিয়ম ভাঙায় জরিমানা করা হয়েছে।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক কয়েকজন ব্যবসায়ী বলেন, লকডাউনে সবকিছুই ঠিকভাবে চলছে, শুধু আমাদের দোকান খুলতে দেওয়া হচ্ছে না। বাজারে মানুষের ভিড় লেগে আছে। এভাবে লকডাউন চলতে থাকলে ব্যবসায়ীদের না খেয়ে থাকতে হবে। স্বাস্থ্যবিধি মেনেই ব্যবসাপ্রতিষ্ঠান চালাবেন তাঁরা। তবু দোকান খোলার অনমতি দেওয়ার দাবি জানিয়েছেন তাঁরা।

এদিকে করোনায় ঝালকাঠিতে ২৪ ঘণ্টায় ৩৭ জন আক্রান্ত হয়েছে। জেলায় এখন পর্যন্ত মোট ৯৭৯ জন আক্রান্ত হয়েছে। এর মধ্যে ২৩ জনের মৃত্যু হয়েছে।

দ্বিতীয় ডোজের টিকা দেওয়া শুরু: করোনাভাইরাস প্রতিরোধে দ্বিতীয় ডোজের টিকা দেওয়া শুরু হয়েছে আজ সকাল থেকে। সদর হাসপাতালসহ চার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে এ টিকা দেওয়া হচ্ছে। প্রথম ডোজ গ্রহণকারী যাদের মোবাইল ফোনে এসএমএস দেওয়া হয়েছে, কেবল তাদেরই দ্বিতীয় ডোজ দেওয়া হচ্ছে।

ঝালকাঠি জেলায় ১৮ হাজার ৫৪৮ জনকে প্রথম ডোজ টিকা করা হয়। গতকাল বুধবার ১৯ হাজার মানুষকে দেওয়ার জন্য দ্বিতীয় ডোজের টিকা আসে সিভিল সার্জন কার্যালয়ে। আজ সকালেই প্রতিটি কেন্দ্রে টিকা পাঠানো হয়েছে বলে জানিয়েছেন সিভিল সার্জন ডা. রতন কুমার ঢালী।

-এটি

সর্বশেষ সব সংবাদ