fbpx
           
       
           
       
শিশুদের রক্ত দান করলেন আরতুগ্রুলের ‘আল্প গাজী’
জানুয়ারি ১৪, ২০২১ ৩:৪৭ অপরাহ্ণ

আওয়ার ইসলাম: বিশ্বব্যাপী খ্যাতনামা ইতিহাসভিত্তিক তুর্কি সিরিয়াল কেয়ামত: আরতুগ্রুলের অভিনেতা ও অভিনেত্রীরা তাদের কাজ দিয়ে প্রতিনিয়ত পাকিস্তানের জনগণের মন জয় করে চলেছেন। এই সিরিজের একজন অভিনেতা অসাধারণ ব্যক্তিত্বের অধিকারী সেলাল আল সিরিয়ালে কমান্ডার আবদুর রহমান আল্প গাজীর ভূমিকায় অভিনয় করছেন।

তিনি বর্তমানে পাকিস্তানের করাচিতে অবস্থান করছেন। পাকিস্তান ভ্রমণে তিনি করাচির একটি শিশু হাসপাতালে রক্ত দিয়েছেন। তার এই মহৎ কর্মকাণ্ডে সবাই আনন্দিত। তার রক্ত থ্যালাসেমিয়ায় আক্রান্ত শিশুদের চিকিৎসার জন্য ব্যবহার করা হবে। এ রোগে আক্রান্তদের শরীরে স্বাভাবিকের চেয়ে কম হিমোগ্লোবিন তৈরি হয়ে থাকে।

তুরস্ক থেকে আগত ওই তারকা পাকিস্তান ও তার জনগণের প্রতি ভালোবাসা প্রকাশ করে ইনস্টাগ্রামে দীর্ঘ ক্যাপশন দিয়ে একটি ছবি পোস্ট করেছেন। যেখানে তিনি লিখেছেন, ‘আমি আমার জীবনের বিশেষ মুহূর্ত যাপন করছি। হৃদয়বান মানুষদেরকে এই শিশুদের পাশে দাঁড়ানোর জন্য উৎসাহিত করতে আমি রক্ত দিয়েছি।’ তিনি সামর্থ্যবান সবাইকে রক্তদান করতে আহ্বান জানিয়েছিলেন। তার এ পদক্ষেপের মাধ্যমে পাকিস্তানের জনগণ তার রক্তের সম্পর্কের ভাইয়ে পরিণত হয়েছে বলেও তিনি ওই পোস্টে উল্লেখ করেছেন।

তিনি পোস্টে আরো জানিয়েছেন, ‘যদি পাকিস্তানি ভাইয়েরা আমার দেয়া রক্ত গ্রহণ করে ইনশাআল্লাহ এর মাধ্যমে আমাদের মাঝে রক্তের সম্পর্ক তৈরি হবে। আমি এখান থেকে আমার সকল ভাইকে আহ্বান জানাতে চাই দয়া করে আপনারাও রক্ত দিন। থ্যালাসেমিয়া ও অন্য রোগীদের জন্য রক্তদান অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। আমরা এভাবে অন্যের জীবন বাঁচাতে পারি।’

বিএমটি সার্জন ও ওমার সানা ফাউন্ডেশনের সিকিউরিটি জেনারেল ডা. সাকিব আসারি বলেন, তুরস্কের রক্ত পাকিস্তানি শিশুর শরীরে প্রবাহিত হলে দুই জাতির মধ্যে রক্তের ভাইয়ের সম্পর্ক তৈরি হবে। খ্যাতনামা তুর্কি সিরিয়াল কেয়ামত : আরতুগ্রুল বিশ্বজুড়ে মুসলিম দর্শকদের কাছে ‘গেমস অফ থ্রোনস’ হিসেবে তুলনীয়। সিরিজটিতে ত্রয়োদশ শতাব্দীর এশিয়া মাইনর নামে খ্যাত আনাতোলিয়া চিত্রিত হয়েছে এবং উসমানীয় সাম্রাজ্য প্রতিষ্ঠার আগের গল্প বর্ণিত হয়েছে। ওই সাম্রাজ্যের প্রথম নেতা এরতুগরুল গাজীর সংগ্রামের চিত্র তুলে ধরা হয়েছে সিরিয়ালটিতে।

২০১৩ সালে পাকিস্তানি টিভি চ্যানেলে ১১টি তুর্কি নির্মিত টিভি সিরিজ ও দু’টি সিনেমা দেখানো হয়েছিল। ওই বছর ৩৪ হাজার তুর্কি পর্যটক পাকিস্তানে ভ্রমণ করে। এই সংখ্যাটি ২০১৮ সালে এক লাখ ১৩ হাজারে বৃদ্ধি পায় এবং ২০২০ সাল নাগাদ সংখ্যাটি এক লাখ ২০ হাজারে উন্নিত হয়। নভেম্বর ২০২০ সালে তুরস্কের টিআরটি ওয়ার্ল্ড নিউজ চ্যানেলের ডিজিটাল কৌশল ও কনটেন্টের পরিচালক বলেন, ‘কেয়ামত : আরতুগ্রুল’ সিরিজটির উর্দু ইউটিউব চ্যানেলে এক কোটির বেশি সাবস্ক্রাইবার রয়েছে।

তিনি আমাদের সফলতার পেছনে অবদান রাখার জন্য সকল ভক্ত ও শুভাকাঙ্ক্ষীদের ধন্যবাদ জানিয়েছেন। পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান ২০১৯ সালে তুরস্ক সফরের পর থেকে পাকিস্তান টেলিভিশন করপোরেশন উর্দুতে সিরিজটি ডাবিং করছে। সূত্র : ইয়েনি সাফাক

এমডব্লিউ/

সর্বশেষ সব সংবাদ