fbpx
           
       
           
       
করোনার টিকা গ্রহণকে বৈধ ফতোয়া দিলো ‘বিশ্ব মুসলিম উলামা সংঘ’
ডিসেম্বর ২৯, ২০২০ ১০:১১ অপরাহ্ণ

বেলায়েত হুসাইন

বিশ্ব বাজারে আলোচিত করোনা ভাইরাসের দুটি টিকার ব্যাপারে নিজেদের মতামত পেশ করেছে ‘ইন্টারন্যাশনাল ইউনিয়ন অব মুসলিম স্কলারস’ বা বিশ্ব মুসলিম উলামা সংঘ। আন্তর্জাতিক উলামায়ে কেরামের ঐক্যবদ্ধ এ সংস্থার মহাসচিব শায়খ আলি মুহিউদ্দিন কারাদাগি জানিয়েছেন, জার্মান-আমেরিকান গবেষণাপ্রতিষ্ঠান ফাইজার ও বায়োএনটেকের যৌথ উদ্যোগে আবিস্কৃত টিকা ব্যবহারে শরয়ী কোন প্রতিবন্ধকতা নেই। তবে শর্ত হল-যতক্ষন গবেষক চিকিৎসকগণ এটার অনুমোদন দিবেন ততক্ষণ পর্যন্তই তা বৈধ থাকবে।

শনিবার ‘করোনার টিকা ব্যবহারে চিকিৎসাবিজ্ঞানীদের নির্ভরতার প্রয়োজনীতা’ শিরোনামে এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে তিনি এ কথা জানান। তিনি বলেন, সারাবিশ্ব থেকে করোনা ভ্যাকসিন গ্রহণ বিষয়ক অসংখ্য প্রশ্নের উত্তর স্বরূপ আমাদের এই সিদ্ধন্ত জানানো হলো।

এ বিষয়ে শায়খ কারাদাগি আরো বলেন, যদি চিকিৎসকগণ কোন জাতি কিংবা কোন নির্দিষ্ট ব্যক্তিদের ব্যাপারে এই টিকা ব্যবহারের প্রয়োজনীয়তা মনে করেন তাহলে শরীয়তের উদ্দেশ্য অনুযায়ী মানুষের জীবন বাঁচাতে এবং মানব সমাজকে এই মহামারির সংক্রমণ থেকে রক্ষা করতে তা ব্যবহার করা অত্যন্ত জরুরি। চিকিৎসাবিজ্ঞানীদের সম্মিলিত অভিমত হল- এই ভ্যাকসিনে কোন ক্ষতি বা ক্ষতিকারক উপাদান নেই। সুতরাং বৈশ্বিক উদ্ভূত পরিস্থিতিতে এটির ব্যবহারই অধিক সংগত।

পবিত্র কোরআনের সুরা নাহলের ৪৩ নাম্বার আয়াত , ‘অতএব তোমরা জ্ঞানীদের নিকট জিজ্ঞাসা করো যদি তোমরা না জানো’-এর উদ্ধৃতি দিয়ে তিনি বলেন, আল্লাহ তাআলার এই নির্দেশের ভিত্তিতেই ‘গবেষক চিকিৎসকদের অনুমোদনের’ শর্ত আরোপ করা হয়েছে। তা ছাড়া মহান আল্লাহ সুরা ফুরকানের ৫৯ নাম্বার আয়াতে বলেছেন, ‘এ বিষয় সম্পর্কে যে অবগত, তাকে জিজ্ঞাসা করো।’

যেসব আলেম টিকার ব্যাপারে সম্যক জ্ঞান না রেখেই মতামত পেশ করছেন তাদের সতর্ক করে শায়খ কারাদাগি বলেছেন, তারা যেন রাসুল (সা.)-এর এই কথাকে স্মরণ করে ‘তোমাদের যে আগে (অজ্ঞাতাপ্রসূত) ফতোয়া দিবে সে আগে জাহান্নামে যাবে’। কেননা, কোরআন-সুন্নাহ, ফিকহের মূলনীতি এবং উদ্দেশ্য সম্পর্কে অজ্ঞ ব্যক্তি ফতোয়া প্রদানের যোগ্য নয়।

তিনি উল্লেখ করেন, আমরা জেনেছি, চিকিৎসাবিজ্ঞানীরা এই টিকার ওপর পরিক্ষা চালিয়ে এর সুবিধা ও ইতিবাচক প্রভাব সম্পর্কে নিশ্চিত হয়েছেন এবং একইসঙ্গে তারা এটার অনুমোদন দিয়ে এর উপর নির্ভরও করেছেন। সুতরাং এটার ব্যবহার বৈধ।

‘ইন্টারন্যাশনাল ইউনিয়ন অব মুসলিম স্কলারস’-এর আগে-ই এই টিকা দুটি হালাল হওয়ার কথা জানিয়েছে যুক্তরাজ্যের মুসলিম কমিউনিটির ইসলামী আইন বিশেষজ্ঞ দল। তা ছাড়া ব্রিটিশ ইসলামিক মেডিক্যাল অ্যাসোসিয়েশনও (বিআইএমএ) এটি হালালের ওপর মত দিয়েছে।

সূত্র: আল জাজিরা মুবাশির ও আনাদুলু আরবি

-কেএল

সর্বশেষ সব সংবাদ