196092

বিএনপির নেতৃত্বে জাইমাকে আনার পরামর্শ

আওয়ার ইসলাম: বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়া দীর্ঘদিন ধরেই অসুস্থ। ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানও আইনের চোখে দুর্নীতির মামলায় সাজাপ্রাপ্ত পলাতক আসামি। সব মিলিয়ে নেতৃত্ব সংকটে ভুগছে দেশের প্রধান বিরোধী রাজনৈতিক দলটি। তাছাড়া বিভিন্ন মামলা-মোকাদ্দমার কারণে আগের মতো রাজপথে নামতে পারছেন না সিনিয়র নেতারা।

এমতাবস্থায় আসন্ন দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে এবং ভবিষ্যতের কথা বিবেচনা করে ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের মেয়ে ব্যারিস্টার জাইমা রহমানকে নেতৃত্বে আনার পরামর্শ দিয়েছেন বিএনপিপন্থী বুদ্ধিজীবী হিসেবে পরিচিত গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ও ট্রাস্টি ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী। তবে দলটির বর্তমান চেয়ারপার্সন ও সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়ার পরামর্শেই সব কিছু পরিচালিত হবে, এমনটাই প্রস্তাব রেখেছেন তিনি।

আগামী জাতীয় নির্বাচনে আওয়ামী লীগ সভানেত্রী ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রতিদ্বন্দ্বী হিসেবে জাইমাকে গড়ে তুলতে এখন থেকেই কাজ করার পরামর্শ দিয়েছেন তিনি। বলেছেন, তরুণ নেতৃত্ব আসলে তবেই সুদিন ফিরবে বিএনপিতে। বর্তমান প্রেক্ষাপট বিবেচনায় দলের কাউন্সিলও জরুরি হয়ে পড়েছে বলে উল্লেখ করেছেন তিনি। গতকাল তার মতামত নিয়ে একটি প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে দেশের একটি ইলেক্ট্রনিক গণমাধ্যম।

সেখানে ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী বলেন, বেগম জিয়ার শরীর এখনো মোটামুটি ভালো আছে। তিনি যদি জাইমা রহমানকে তার উপদেষ্টা হিসেবে নিয়োগ দেন, তাহলে জাইমা ভালোভাবে বিএনপিকে নেতৃত্ব দিতে পারবে। তাছাড়া তারেক এখন অবসরপ্রাপ্ত। তাই দলে তরুণ নেতৃত্ব আসা দরকার। এক্ষেত্রে শেখ হাসিনার ভালো প্রতিদ্বন্দ্বী হতে পারে জাইমা। তাহলেই দলে পরিবর্তন ও গতি আসবে।

প্রতিবেদনে বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান মেজর (অব.) হাফিজ উদ্দিন আহমেদও তার মতামত তুলে ধরেছেন, ‘তারেক রহমানের সহধর্মিনী ডা. জোবাইদা রহমান দলের মধ্যে খুব জনপ্রিয়। আবার তাদের মেয়ে জাইমা ব্যারিস্টারি পাস করেছেন। তারা যদি রাজনীতিতে আসেন তাহলে বিএনপির জন্য ভালো হবে এবং রাজনীতিতেও সুবাতাস বইবে। এতে দলের নেতাকর্মীরা নতুনভাবে উদ্দীপ্ত হবেন।’

-এটি

Please follow and like us:
error1
Tweet 20
fb-share-icon20

ad