193953

করোনাকালে বাংলাদেশের জন্য ডব্লিউএইচও’র পরামর্শ

আওয়ার ইসলাম: করোনা নিয়ে বিশ্বজুড়ে প্রতিদিনই সতর্কবাণী উচ্চারণ করছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও), দিচ্ছে আক্রান্ত ও মৃত্যুর পরিসংখ্যান। চিকিৎসাসেবা ও ভ্যাকসিন আবিষ্কারের সম্ভাব্যতা নিয়েও কথা বলছে সংস্থাটি।

করোনার গতিপ্রকৃতি ও এর ভবিষ্যৎ পরিণতির বিভিন্ন দিকেও নজর রাখছে সংস্থাটি। করোনাকালটা কেমন পার করছে বাংলাদেশ? মহামারির এ পর্যায়ে এসে কীভাবে নাগরিকদের রক্ষা করতে পারে সরকার? এমন নানান বিষয়ে এনটিভির সঙ্গে একান্ত সাক্ষাৎকারে কথা বলেছেন ডব্লিউএইচওর বাংলাদেশে আবাসিক প্রতিনিধি ডা. বারদান জাং রানা।

বাংলাদেশ এখন যে ক্রান্তিকাল অতিক্রম করছে, তাতে সরকারি সেবা সংস্থাগুলোর কাজে সমন্বহীনতায় আক্রান্ত ও প্রাণহানি—দুটোই বাড়ার আশঙ্কা পেশায় চিকিৎসক বারদানের।

করোনা শনাক্ত হওয়ার পর থেকে দীর্ঘ ছুটি বাস্তবায়নের পাশাপাশি সামাজিক দূরত্ব রক্ষা ও স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে জনগণকে বাধ্য করে সরকার। সাধারণ ছুটি তুলে নেওয়ার পর করোনা আক্রান্ত ও মৃত্যুর হার বেড়েছে, এমনটি পর্যবেক্ষণ করে ডা. বারদান জাং রানা বলছেন, এলাকাভিত্তিক লকডাউন বাস্তবায়ন এখন বাংলাদেশের জন্য করোনা মোকাবিলার কার্যকর ব্যবস্থা হতে পারে।

এ ছাড়া ভ্যাকসিন আবিষ্কার না হওয়া পর্যন্ত করোনা মোকাবিলায় সরকারি ব্যবস্থাপনার পাশাপাশি ব্যক্তিগত স্বাস্থ্য সুরক্ষা মেনে চলার ওপর জোর দেন ডা. বারদান জাং রানা। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থায় যোগ দেওয়ার আগে বিভিন্ন দেশ ও অঞ্চলে স্বাস্থ্য ব্যবস্থা নিয়ে কাজ করেছেন চিকিৎসা বিশেষজ্ঞ ডা. বারদান জাং রানা।

-এটি

ad