fbpx
           
       
           
       
শিরোনাম :
টুইটারে নিষিদ্ধ হচ্ছেন ট্রাম্প!
ডিসেম্বর ০৫, ২০২০ ৯:০৮ অপরাহ্ণ

আওয়ার ইসলাম:২০ জানুয়ারির পর সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম টুইটারে নিষিদ্ধ হতে পারেন বর্তমান মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। ওই সময় তিনি আর প্রেসিডেন্ট না থাকায় বিশেষ সুবিধা পাবেন না। ফলে টুইটার কর্তৃপক্ষ মিথ্যা তথ্য ছড়ানোয় তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে পারবে।

বিখ্যাত মার্কিন ম্যাগাজিন ফোর্বসকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে টুইটারের এক মুখপাত্র বৃহস্পতিবার এমন কথাই জানিয়েছেন।

উল্লেখ্য, কোভিড-১৯ নিয়ে ট্রাম্প টুইটারে টানা ষড়যন্ত্র তত্ত্ব প্রচার করেছেন। এ ছাড়া দেশটির নির্বাচনে কারচুপির অভিযোগ তুলে টুইটারে নানা মিথ্যা দাবি করে আসছেন। যদিও দেশটির নির্বাচনী কর্মকর্তারা এবং বিচার বিভাগ সেগুলো প্রত্যাখ্যান করেছেন।

ট্রাম্পের দাবিগুলো এতটাই ভিত্তিহীন ছিল যে, টুইটার কর্তৃপক্ষকে সত্যতা যাচাই করতে এবং নির্দিষ্ট টুইটের ওপর সতর্কতার লেবেল লাগাতে বাধ্য হতে হয়েছে। কিন্তু টুইটারের ওয়ার্ল্ড লিডার নীতির আওতায় পড়ায় এতোদিন ট্রাম্পের বিরুদ্ধে কোনো ব্যবস্থা নিতে পারেনি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমটি।

জানা যায়, টুইটার কর্তৃপক্ষ গত কয়েক মাস ধরে ট্রাম্পের বেশ কিছু টুইটে সতর্কতা চিহ্ন লাগিয়ে দিয়ে সেগুলো গোপন করে রাখে। তার পরও থামছেন ট্রাম্প। তবে ২০ জানুয়ারির পর ট্রাম্প আর ওয়ার্ল্ড লিডার নীতির আওতায় পড়বেন না। তখন একজন সাধারণ নাগরিকের মতোই তাকেও টুইটারের নীতিমালা মেনে চলতে হবে বলে জানান ওই মুখপাত্র।

অর্থাৎ ২০ জানুয়ারি হোয়াইট হাউস ছাড়ার পর টুইটারের নীতিমালা না তিনিও ‘শাস্তি’র আওতায় পড়বেন এবং এক পর্যায়ে তিনি নিষিদ্ধ হতে পারেন।

উল্লেখ্য, টুইটারে খুবই জনপ্রিয় ডোনাল্ড ট্রাম্প। কারণ তিনি নিয়মিত পোস্ট করেন টুইটারে। এ কারণে ৮ কোটি ৮৭ লাখ ব্যবহারকারী তাকে অনুসরণ করছে।

-এটি

সর্বশেষ সব সংবাদ