198157

শঙ্কা নেই: কালই অনুষ্ঠিত হবে তাকমিল পরীক্ষা

সুফিয়ান ফারাবী।।
স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট>

দুদিন পরেই আল হাইয়াতুল উলইয়ার কেন্দ্রীয় পরীক্ষা। দীর্ঘ একমাস যাবত অক্লান্ত পরিশ্রম করে পরীক্ষার প্রস্তুতি নিয়েছে প্রায় ২০ হাজার শিক্ষার্থী। দীর্ঘদিন শিক্ষা কার্যক্রম বন্ধ থাকায় এমনিতেই অনিশ্চয়তায় ভুগছিলেন সাধারণ শিক্ষার্থীরা। সেসব জল্পনা-কল্পনা পেরিয়ে যখন শিক্ষার্থীরা পরীক্ষার হলে ঢুকবে ঠিক তখনই সামনে এসেছিল আরেক অনিশ্চয়তা।

কওমি মাদরাসার সর্বোচ্চ অথরিটি আল হাইয়াতুল উলয়ার চেয়াম্যান আল্লামা শাহ আহমদ শফীর ইন্তেকালের মাধ্যেমে সে অনিশ্চতায় আরও জোয়ার আসে। এর আগে দেশের শীর্ষ বিদ্যাপীঠ হাটহাজারী মাদ্রাসার শিক্ষার্থীদের আন্দোলনের কারণে অনেকেই ভেবেছিলেন হয়তো পিছিয়ে দেয়া হতে পারে কেন্দ্রীয় দাওরায়ে হাদীস পরীক্ষা। আজ হাটহাজারীতে শাহ আহমদ  শফীর জানাজা শেষে আওয়ার ইসলাম কথা বলেছিল বেফাকুল মাদারিসিল আরাবিয়া বাংলাদেশের একাধিক দায়িত্বপ্রাপ্ত ব্যক্তির সাথে। তারা জানিয়েছেন তাকমিল পরীক্ষা নিয়ে শঙ্কা নেই। যথাসময়ে অনুষ্ঠিত হবে তাকমিল পরীক্ষা।

বেফাকের মহাপরিচালক অধ্যক্ষ জুবায়ের আহমদ চৌধুরী আমাদের জানিয়েছিলেন, হাটহাজারী মাদরাসা শুধু একটি প্রতিষ্ঠান নয়। শাহ আহমদ শফীর ইন্তেকালের পর হাটহাজারীর ছাত্ররা পরীক্ষায় অংশ না নিলে বা চলমান পরিস্থিতির যদি কোন মীমাংসা না আসে তাহলে পরীক্ষা পিছিয়ে দেওয়া হতে পারে। তবে পরিপূর্ণ দায়িত্ব নিয়ে এ কথা জানাননি তিনি। শুধু শঙ্কা প্রকাশ করেছিলেন মাত্র।

এ বিষয়ে স্পষ্ট সিদ্ধান্ত জানতে আওয়ার ইসলাম যোগাযোগ করে আল হাইয়াতুল উলিয়ার কো-চেয়ারম্যান মাওলানা আব্দুল কুদ্দুস ও আল হাইয়াতুল উলিয়া সিনিয়র নির্বাহী সদস্য মুফতি মুহাম্মাদ আলীর সঙ্গে।

মাওলানা আব্দুল কুদ্দুস জানান, এখন পর্যন্ত আলাদা কোনো সিদ্ধান্ত নেয়া হয়নি। নির্বাহী কমিটির মিটিংয়ের মাধ্যমে এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেয়া হবে।

পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলে আজ মুফতি মোহাম্মদ আলী আমাদের জানান, একক কোন প্রতিষ্ঠানের সমস্যা কেন্দ্রীয় পরীক্ষায় কোন প্রভাব ফেলবে না। তাছাড়া ইতিমধ্যে হাটহাজারীর কর্তাব্যক্তিরা বসে মাদরাসার সুষ্ঠু সমাধান বের করেছেন। সুতরাং আল হাইয়াতুল উলইয়ার কেন্দ্রীয় পরীক্ষা গ্রহণে আর কোন বাধা রইল না।

বেফাকের সহকারী মহাসচিব ও হাইয়াতুল উলইয়ার সদস্য মাওলানা মাহফুজুল হক গতকাল আমাদের জানিয়েছিলেন, তাকমিল পরীক্ষা নিয়ে কোনো  শঙ্কা নেই। কর্তৃপক্ষ যাবতীয় প্রস্তুতি চূড়ান্ত করেছে। ইতিমধ্যেই জোনভিত্তিক পরীক্ষার কাগজপত্র পৌঁছে গিয়েছে। নির্ধারিত সময়ে শান্তিপূর্ণভাবে পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে বলে আশা রাখি। তবে হাটহাজারী মাদরাসা পরীক্ষা নিয়ে আমরা পর্যবেক্ষণে আছি। এখন পরিস্থিতি যথেষ্ট শান্ত মনে হচ্ছে।

চূড়ান্ত পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করে মুরুব্বিগণ সিদ্ধান্ত নিবেন। তাছাড়া সারাদেশের অন্যান্য পরীক্ষাকেন্দ্র নিয়ে কোনো জটিলতা নেই। মাওলানা মাহফজুল হক সারাাদেশের পরীক্ষাজোনের দায়িত্বশীল, পরীক্ষার হলের দায়িত্বশীল ও স্থানীয় মাদরাসা পরিচালকদের কাছে তাকমিল পরীক্ষা সুষ্ঠভাবে সম্পন্ন করার জন্য সহযোগিতা কামনা করেছেন।

ওআই/মোস্তফা ওয়াদুদ

আপনার বিজ্ঞাপন দিতে যোগাযোগ করুন- 01640523566