197974

ঝাঁজ কমাতে ৫ দেশ থেকে আসছে ১২ হাজার টন পেঁয়াজ

আওয়ার ইসলাম: বাংলাদেশে পেঁয়াজ রপ্তানি বন্ধ করে দিয়েছে ভারত। গতকাল সোমবার হঠাৎ করেই এ সিদ্ধান্তের কথা জানায় দেশটি। এরপর থেকেই দেশীয় বাজারে বেড়ে গেছে পণ্যটির দাম। অবশ্য ভারত রপ্তানি বন্ধ করে দিতে পারে, সে ব্যাপারে আগে থেকেই শঙ্কা ছিল ব্যবসায়ীদের। সে জন্য বিকল্প ব্যবস্থা হিসেবে ইতোমধ্যে পাঁচটি দেশ থেকে পেঁয়াজ আমদানির অনুমতি নিয়েছেন।

চীন, মিয়ানমার, পাকিস্তান, মিশর ও তুরস্ক এই পাঁচটি দেশ থেকে এখন পর্যন্ত ১২ হাজার টন পেঁয়াজ আমদানির অনুমতি পাওয়া গেছে। সেগুলো আনার প্রক্রিয়াও ইতোমধ্যে শুরু করে দিয়েছেন ব্যবসায়ীরা।

আজ মঙ্গলবার চট্টগ্রাম সমুদ্রবন্দরের উদ্ভিদ সংঘনিরোধ কেন্দ্র ও সংশ্লিষ্ট ব্যবসায়ী সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

সংশ্লিষ্টরা জানান, গত বছর ভারত রপ্তানি বন্ধের সপ্তাহ দু’এক পর ব্যবসায়ীরা পেঁয়াজ আমদানিতে সক্রিয় হলেও এ বছর আগে থেকেই বিষয়টি আঁচ করতে পেরেছে তারা। সেজন্য রপ্তানি বন্ধের ১১ দিন আগে গত ৩ সেপ্টেম্বর থেকেই পেঁয়াজ আমদানির অনুমতি নিতে শুরু করেন ব্যবসায়ীরা।

উদ্ভিদ সংঘনিরোধ কেন্দ্র জানায়, মঙ্গলবার সকাল পর্যন্ত বিশ্বের পাঁচটি দেশ থেকে ১০ হাজার ৯১ টন পেঁয়াজ আমদানির অনুমতি পাওয়া গেছে। মোট ২৪টি প্রতিষ্ঠানকে এ অনুমতি দেয়া হয়েছে। এ ছাড়া চট্টগ্রামের ট্রেড ইমপ্যাক্স ঢাকার উদ্ভিদ সংঘনিরোধ কেন্দ্র থেকে ২ হাজার টন আমদানির অনুমতি পেয়েছে। সব মিলিয়ে শিগগিরই ১২ হাজার টন পেঁয়াজ দেশে আসবে।

এ বিষয়ে খাতুনগঞ্জের ট্রেড ইমপ্যাক্স প্রতিষ্ঠানের কর্ণধার ফারুক আহমেদ বলেন, অনুমতি নেয়ার এক দিনের মাথায় ঋণপত্র খোলা হচ্ছে এবং দ্রুতই চালানটি দেশে আনা হবে। তাছাড়া বিশ্ববাজারেও এখন পর্যাপ্ত পরিমাণ পেঁয়াজ মজুত আছে।

চট্টগ্রাম সমুদ্রবন্দরের উদ্ভিদ সংঘনিরোধ কেন্দ্রের উপপরিচালক আসাদুজ্জামান বুলবুল বলেন, গত ১১ দিন আগে থেকেই ব্যবসায়ীরা পণ্যটির আমদানির অনুমতি চাচ্ছেন। দ্রুতই তাদের অনুমতিপত্র দেয়া হচ্ছে।

-এটি

Please follow and like us:
error1
Tweet 20
fb-share-icon20

ad