194194

বুড়িগঙ্গায় লঞ্চডুবি মামলার প্রধান আসামী গ্রেফতার

আওয়ার ইসলাম: বুড়িগঙ্গা নদীতে লঞ্চডুবির ঘটনায় মোট ৭ জনকে আসামী করে মামলা করেছিল পুলিশ। প্রধান আসামী ছিলেন ময়ূর-২ লঞ্চের মালিক মোসাদ্দেক হানিফ সোয়াদ। গতকাল বুধবার গভীর রাতে তাকে আটক করে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী।

এর আগে আটক করা হয়েছিল লঞ্চটির সুপারভাইজার আব্দুস সালামকে। আটক এই দুই জনের তথ্যের ভিত্তিতে খুব দ্রুত বাকি আসামীদের গ্রেফতার করা সম্ভব, বলছেন দায়িত্বপ্রাপ্ত পুলিশ কর্মকর্তা।

গত ২৯ জুন সকালে শ্যামবাজার এলাকা সংলগ্ন বুড়িগঙ্গা নদীতে বিশালাকার ময়ূর-২ লঞ্চের ধাক্কায় ডুবে যায় ছোট লঞ্চ মর্নি বার্ড। এ সময় লঞ্চটিতে প্রায় অর্ধশত যাত্রী ছিলেন। হাতে গোনা কয়েকজন সাতার কেটে তীরে চলে আসলে বাকিরা লঞ্চটির মধ্যে আটকা পড়ে মৃত্যুবরণ করেন। উদ্ধারকারী দল ৩৪টি মৃতদেহ উদ্ধার করে।

এ নিয়ে গঠিত তদন্ত কমিটি এটিকে স্রেফ দুর্ঘটনা বলতে নারাজ। তারা বলছেন, চলন্ত লঞ্চটি নতুন এক সহ-চালকের হাতে ছেড়ে দিয়েছিলেন আসল চালক। মর্নি বার্ড তার গতিতে ঠিকভাবেই চলছি। ময়ূর-২ নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ধাক্কা দেয় ছোট দোতলা লঞ্চটিকে। মুহূর্তের মধ্যেই সেটা পানির নিচে তলিয়ে যায়।

এই ঘটনাকে ‘পরিকল্পিত’ হত্যাকাণ্ড বলে মন্তব্য করেছেন নৌপরিবহন প্রতিমন্ত্রী খালিদ মাহমুদ। এর পাশপাশি প্রত্যেক মৃতের পরিবারকে দেড় লাখ টাকা করে দেয়ার ঘোষণা দিয়েছেন তিনি।

-এএ

ads