188269

করোনায় আক্রান্ত বাবার লাশ নিয়ে সপ্তাহ ধরে ঘুরছেন ছেলে, দাফনে বাধা

আওয়ার ইসলাম: বাবা মারা গেছেন, সেই পাহাড়সমান শোক তো আছেই, সঙ্গে যোগ হয়েছে সীমাহীন ক্ষোভ। এক সপ্তাহ হয়ে গেল, বাবার লাশটা যে এখনো কবরস্থ করতে পারেননি! ইরাকের হতভাগ্য এই ছেলের নাম সাদ। বাবা করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুবরণ করেছেন, তাই কেউ কবরস্থ করতে দিচ্ছে না।

এএফপির খবরে বলা হয়, ইরাকে করোনা আতঙ্ক প্রবল হয়ে উঠেছে। ভাইরাস ছড়িয়ে পড়তে পারে, এমন আশঙ্কায় কোনো এলাকাতেই কোভিড-১৯ রোগে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুবরণ করা কাউকে কবর দিতে দেওয়া হচ্ছে না। এতে স্থানীয় বাসিন্দাদেরকে উস্কানি দিচ্ছে কিছু ধর্মীয় নেতা। শহরের বাসিন্দাদের বাধার কারণে গোরস্থানগুলোতে এমন লাশ দাফন করতে পারছে না।

হাসপাতালে কিংবা বাড়িতে, যেখানেই করোনাভাইরাসে কেউ মারা যাচ্ছে, লাশ পাঠিয়ে দেওয়া হচ্ছে মর্গে। সাদ বাবার সৎকারের জন্য গোরস্থানে গোরস্থানে ঘুরছেন, কিন্তু কেউই অনুমতি দিচ্ছে না। পাড়া-প্রতিবেশীরাও তাদের জায়গায় কবরস্থ করতে দেবে না। দেবে না এলাকার কোথাও। কান্নাজড়িত কণ্ঠে সাদ বলেন, বাবার জন্য শোক করার সুযোগও আমার হয়নি। মৃত্যুর এক সপ্তাহের বেশি সময় ধরে ঘুরছি, বাবাকে মাটিতে রাখতে পারছি না।

ইরাকে এখন পর্যন্ত ৫৪৭ জন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। মারা গেছেন ৪২ জন। ধারণা করা হচ্ছে, প্রকৃত সংখ্যা আরো অনেক বেশি। কারণ পরীক্ষা করা হয়েছে মাত্র ৪ লাখ মানুষকে। দেশটির সরকার ১১ এপ্রিল পর্যন্ত পুরো দেশ লকডাউন ঘোষণা করেছে।

আরেক হতভাগ্য সন্তানের নাম সালেম আল শুমারী। তিনিও বাবার লাশ দাফনের চেষ্টা চালাচ্ছেন। গণমাধ্যমকে তিনি বলেন, মৃত্যু নিয়ে আমাদের আর ভয় নেই। আমাদের একটাই লক্ষ্য, যে করেই হোক, স্বজনের মৃতদেহ দাফন করতে হবে।

-এটি

ad