184829

ছেঁড়া-ফাটা টাকার বিনিময়ে নতুন টাকা ক্রয়, ইসলাম কী বলে?

আওয়ার ইসলাম: আমাদের দেশে পুরাতন ছেঁড়াফাটা টাকার বিনিময়ে নতুন টাকা লেনদেনের ক্ষেত্রে অন্যান্য পণ্যের ন্যায় কমবেশি করে মূল্য নির্ধারণ করে বিক্রি করা হয়। প্রশ্ন হচ্ছে, কাগজের তৈরি নোটের ক্রয়-বিক্রয় বা’য়ুস সরফের অন্তর্ভুক্ত হবে কি না? সেই হিসাবে উল্লিখিত লেনদেন জায়েজ হবে কিনা? নাজায়েজ হলে, ছেঁড়া-ফাটা টাকার বিনিময়ে নতুন টাকা সংগ্রহে করণীয় কী?

জবাব: যেহেতু বর্তমানে প্রচলিত কাগজের নোট দেশ প্রচলনে ছমন (পণ্যের বিনিময়) হিসেবে গণ্য হয়, তাই এ জাতীয় নোটের ক্রয়-বিক্রয় বাইয়ূস সরফের অন্তর্ভুক্ত হবে।

আর বাইয়ূস সরফের মধ্যে যেহেতু কমবেশি লেনদেন সুদের অন্তর্ভুক্ত, তাই আমাদের দেশে প্রচলিত পুরাতন ছেঁড়াফাটা টাকার বিনিময়ে নতুন টাকা লেনদেনের ক্ষেত্রে অন্যান্য পণ্যের ন্যায় কমবেশি করে মূল্য নির্ধারণপূর্বক বিক্রি করা সুদী লেনদেনের অন্তর্ভুক্ত হওয়ায় এটি নাজায়েজ ও হারাম।

এক্ষেত্রে সাধারণত ব্যাংক কর্তৃপক্ষ উক্ত সেবাটি প্রদান করে থাকে। বিশেষ করে রাষ্ট্রীয় ব্যাংকগুলোতো বিনামূল্যেই উক্ত সেবাটি প্রদান করে। তাই এক্ষেত্রে সুদী লেনদেন করার কোন যৌক্তিকতা নেই। এরপরও একদম অপারগতার ক্ষেত্রে বদল কারীর পরিশ্রম ও ডাক খরচ বাবদ কিছু টাকা বেশি নেওয়া যেতে পারে। তবে শর্ত হচ্ছে স্পষ্টভাবে বাবত উল্লেখ করে দিতে হবে।

তথ্যসূত্র: বুখারী শরীফ: ২/৭৫০, মুসলিম শরীফ: ৫/৪২, হিদায়া: ৩/১০৪ ও ৬১৮, আহসানুল ফাতাওয়া: ৭/২২, ২৩ ও ৫৪

ফতোয়া প্রদানে – ইফতা বিভাগ-আল-জামিয়া আল-ইসলামিয়া পটিয়া, চট্টগ্রাম। 

Please follow and like us:
error1
Tweet 20
fb-share-icon20

ad