202255

দলে জায়গা না পাওয়ায় অনূর্ধ্ব-১৯ দলের ক্রিকেটারের আত্মহত্যা

আওয়ার ইসলাম: আসন্ন ক্রিকেট টুর্নামেন্ট বঙ্গবন্ধু টি-টোয়েন্টি গোল্ডকাপে কোনো দলে সুযোগ না পাওয়ায় আত্মহত্যা করেছেন বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-১৯ দলে খেলা ক্রিকেটার সজীবুল ইসলাম সজীব (২২)। ১৪ নভেম্বর রাতে রাজশাহীর দুর্গাপুর উপজেলার ঝালুকায় নিজের গ্রামের বাড়িতে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেন তিনি।

এই ক্রিকেটারকে নিয়ে আবেগতাড়িত হয়ে পড়েন বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের সাবেক অধিনায়ক ও দলের অন্যতম সদস্য মুশফিকুর রহিম। ১৬ নভেম্বর সোমবার নিজের অফিসিয়াল ফেসবুক পেজে দেওয়া এক স্ট্যাটাসে মুশফিক লেখেন, ‘ক্রিকেটের বাইরেও একটা জীবন আছে। খুবই মর্মাহত হয়েছি সম্ভাবনাময় ক্রিকেটার সজীবের মৃত্যুর খবরে। আত্মাহত্যা কোনো সমাধান নয়। আত্মহত্যার আগে পরিবারের কথা ভাবা উচিত।’

জানা যায়, সজীবের বাবার নাম মুরসেদ আলী। অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপ জয়ী দলের সদস্য সজীব অনূর্ধ্ব ১৫, ১৭ ও ১৯ দলের খেলোয়াড়ও ছিলেন। এমনকি বিদেশের মাটিতেও খেলেছেন তিনি। ছোটবেলা থেকেই ক্রিকেটর প্রতি আশক্ত সজীব অনূর্ধ্ব-১৯ দলের হয়ে শ্রীলঙ্কার মাটিতে বেশ কয়েকটি দলের সঙ্গে খেলেছিলেন। ভারতের বিপক্ষে ব্যাট করে একটি সর্বোচ্চ ৯৫ রান সংগ্রহ করেছিলেন। আসন্ন বঙ্গবন্ধু টি-টোয়েন্টি গোল্ডকাপ ক্রিকেট টুর্নামেন্টে খেলার জন্য প্রস্তুতি নিচ্ছিলেন তিনি। অংশগ্রহণের জন্য সব পরীক্ষাও দিয়েছিলেন। গত বৃহস্পতিবার টুর্নামেন্টের খেলোয়াড়দের তালিকায় প্রকাশ করা হয়। ওই তালিকায় তার নাম না থাকায় হতাশ হয়ে পড়েন সজীব।

শনিবার গভীর রাতে নিজ ঘরে আড়ার সঙ্গে দড়ি লাগিয়ে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেন সজীব। পরদিন সকালে তাকে ডাকতে গিয়ে কোনো সাড়াশব্দ না পেয়ে ঘরের দরজা ভেড়ে ভেতরে ঢুকে সজীবের ঝুলন্ত লাশ দেখতে পান পরিবারের লোকজন। পরে দড়ি কেটে সজীবের লাশ নামান তারা।

-কেএল

আপনার বিজ্ঞাপন দিতে যোগাযোগ করুন- 01640523566