সোমবার, ২০ মে ২০২৪ ।। ৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ ।। ১২ জিলকদ ১৪৪৫


হাইআতুল উলয়াতেও সাফল্যের শীর্ষে ঢালকানগর মাদরাসা; সারাদেশে ১ম

নিউজ ডেস্ক
নিউজ ডেস্ক
শেয়ার

|| হাসান আল মাহমুদ ||

দেশের কওমি মাদরাসাগুলোর সর্বোচ্চ অথরিটি আল-হাইআতুল উলয়া লিল-জামি‘আতিল কওমিয়া বাংলাদেশ-এর অধীন ১৪৪৫ হিজরী/২০২৪ ঈসাব্দের দাওরায়ে হাদিস (মাস্টার্স সমমান) পরীক্ষার ফলাফল প্রকাশিত হয়েছে। পাশের হার ৮৮.৩৭ %।

গত সোমবার ২৮ রমজান (৮ এপ্রিল ২০২৪) দুপুর ১২টর পর উত্তর যাত্রাবাড়ী বিবির বাগিচা ৮০/এ  হাসিব টাওয়ার বোর্ডটির অফিস মিলনায়তনে ফলাফল ঘোষণা করেন চেয়ারম্যান আল্লামা মাহমুদুল হাসান। হাইআতুল উলয়ার স্থায়ী কমিটি, পরীক্ষা উপকমিটি ও নিরীক্ষকবৃন্দের যৌথ সভায় এ পরীক্ষার ফলাফল ঘোষণা করা হয়।

ফলাফলে দেখা যায় দাওরায়ে হাদিসে মাদরাসা বাইতুল উলুম ঢালকানগর সারাদেশে ১ম স্থান লাভ করেছে। প্রতিষ্ঠানটির দাওরায়ে হাদিসে মোট ২৯ জন পরীক্ষার্থীর সকলেই মুমতায (স্টারমার্ক) বিভাগে উত্তীর্ণ হয়েছে।

এছাড়া, শীর্ষ  ১০ জনের মাঝে ১ম, ৩য়, ৫ম, ৬ষ্ঠ এবং ১০ম সহ মোট ১০ জন পরীক্ষার্থী মেধাতালিকায় স্থান পেয়েছে।

মেধাতালিকাগুলো যথাক্রমে : ১ম, ৩য়, ৫ম, ৬ষ্ঠ, ১০ম, ১৫তম, ২৪তম, ৩১তম (২জন) এবং ৩২ম। উল্লেখ্য যে, অত্র প্রতিষ্ঠান থেকে ১৪৪৪ হিজরীতেও ১১ জন মেধাতালিকায় ছিলো এবং সকলেই মুমতায (স্টারমার্ক) পেয়ে উত্তীর্ণ হয়েছিলো।

হাইআতুল উলয়াতে সাফল্যের কারণে আল্লাহ তায়ালার শুকরিয়া আদায় করে মাদরাসা বাইতুল উলুম-এর পরিচালক মুফতি জাফর আহমদ আওয়ার ইসলামকে বলেন, আল্লাহ তায়ালার মেহেরবানি, আল্লাহ তায়ালার শুকর যে, তিনি আমাদের শিক্ষার্থীদের মেহনতকে কবুল করেছেন। এটা অনেক খুশির ব্যাপার আমাদের জন্য। 

তিনি বলেন, ‘আলহামদুলিল্লাহ শুরুলগ্ন থেকেই অভাবনীয় সাফল্য অর্জন করে আসছে ঐতিহ্যবাহী দ্বীনী শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান মাদরাসা বাইতুল উলুম ঢালকানগর। সেই ধারা এ বছরও ঈর্ষণীয় ফলাফল অর্জনের মাধ্যমে ধরে রেখেছে প্রতিষ্ঠানটি । এই সাফল্যের পিছনে আকাবিরদের তাওয়াজ্জুহ, উস্তাদ-শিক্ষার্থীদের মেহনত ছাড়া আমার কিছুই নেই। এগুলো সব আল্লাহ তায়ালার মেহেরবানি’।

এদিকে মাদরাসা বাইতুল উলুম ঢালকানগর’র শিক্ষা সচিব মাওলানা হাবিবুল্লাহ্ মিসবাহ আওয়ার ইসলামকে জানান, ‘মহান রাববুল আলামিনের মেহেরবানীতেই এ ধরণের ফলাফল সম্ভব হয়েছে। সাথে সাথে আমাদের মুরব্বী হযরত মুহতামিম মুফতী জাফর আহমদ দা.বা. এর দিকনির্দেশনা, ফিকির, তাওয়াজ্জুহ ও দোয়ার বদৌলতেই আল্লাহ তায়ালা সহজ করে দিয়েছেন।

তিনি বলেন, ‘আলহামদুলিল্লাহ! আমাদের মাদরাসার সকল উস্তাদ ও জামাতভিত্তিক নেগরানগণের নিরলস মেহনত ও তালিবে ইলমদের অক্লান্ত পরিশ্রম ধারাবাহিকভাবে ঈর্ষণীয় ফলাফলের রাস্তা উমুক্ত করছে বলে আমি মনে করি’।

উল্লেখ্য, সারা বাংলাদেশে ৬টি কওমি মাদ্রাসার শিক্ষাবোর্ডের সমন্বয়ে গঠিত আল-হাইয়াতুল উলইয়া লিল জামিআতিল কাওমিয়া বাংলাদেশ-এর অধীনে অনুষ্ঠিত ১৪৪৫ হিজরী কেন্দ্রীয় পরীক্ষায় মোট ৩১,৯৯৯ জন শিক্ষার্থী অংশগ্রহণ করেছে। যাদের মধ্যে মোট ১৬৪৭ জন শিক্ষার্থী মুমতায (স্টারমার্ক) পেয়ে উত্তীর্ণ হয়েছে।

হাআমা/


সম্পর্কিত খবর


সর্বশেষ সংবাদ