রবিবার, ২৩ জুন ২০২৪ ।। ৯ আষাঢ় ১৪৩১ ।। ১৭ জিলহজ ১৪৪৫

শিরোনাম :
নেতানিয়াহুর পদত্যাগের দাবিতে তেল আবিবে ফের বিক্ষোভ দায়িত্ব নিলেন নতুন সেনাপ্রধান ওয়াকার-উজ-জামান প্রধানমন্ত্রীর ভারত সফরে তিস্তা নিয়ে চীনের বিষয়ে কোনো আলোচনা হয়নি: পররাষ্ট্র মন্ত্রী  ছাগলকাণ্ডে ভাইরাল মতিউরকে এনবিআর থেকে বদলি এবার ইসরায়েলের বিরুদ্ধে গণহত্যার মামলায় যুক্ত হলো কিউবা ৫৩০ হজযাত্রীর মৃত্যু, ১৬ ট্যুরিজম কোম্পানির লাইসেন্স বাতিল করলো মিশর সালথায় বাংলাদেশ খেলাফত মজলিস’র কমিটি গঠন ও যোগদান সভা ইয়েমেনে হামলা চালিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র-যুক্তরাজ্যের যুদ্ধবিমান ওমরার ভিসা নিয়ে সৌদির দারুণ সুখবর হবিগঞ্জে ওয়াফার উদ্যোগে দাওয়াহ কনফারেন্স অনুষ্ঠিত 

বেফাকে মেধা তালিকায় স্থান করে ওমরায় যাচ্ছেন শেখ জনূরুদ্দীন র. দারুল কুরআন মাদরাসার ৫ শিক্ষার্থী

নিউজ ডেস্ক
নিউজ ডেস্ক
শেয়ার
ছবি: আওয়ার ইসলাম

|| কাউসার লাবীব ||

বাংলাদেশ কওমি মাদরাসা শিক্ষাবোর্ড বেফাকের ৪৭তম কেন্দ্রীয় পরীক্ষায় মেধা তালিকায় স্থান করে নেওয়ায় ৫ শিক্ষার্থীকে ওমরায় পাঠাচ্ছে দেশের ঐতিহ্যবাহী শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান রাজধানী ঢাকার চৌধুরীপাড়ায় অবস্থিত শেখ জনূরুদ্দীন র. দারুল কুরআন মাদরাসা।

ওমরা পুরস্কার পাওয়া সৌভাগ্যরা হলেন হলেন সানাবিয়া উলইয়া জামাতের শিক্ষার্থী যিমাম আহমাদ ও শাহ্ ইফতিখার তারিক, মুতাওয়াসসিতাহ জামাতের মোহা. আব্দুর রহিম, ইবতিদাইয়্যাহ জামাতের মো. মাহবুবুল হক মাহাদী ও তানভির মজুমদার।

আজ শনিবার (১৮ মে) মাগরিবের পর মাদরাসা মিলনায়তনে এক বর্ণিল অনুষ্ঠানের মাধ্যমে মেধাবী এই ৫ শিক্ষার্থীর হাতে ওমরা পুরস্কারের প্লে-কার্ড তুলে দেওয়া হয়।

মুমিন জীবনের অন্যতম চাওয়া বায়তুল্লাহয় গিয়ে লাব্বাইক ধ্বনি তোলা এবং মদিনাতুল মুনাওয়ারায় গিয়ে প্রিয়নবী সা.কে সালাম জানানো। আর অন্যতম পন্থা হলো ওমরা কিংবা হজ। ছাত্রজীবনেই পরম এই সুযোগ পেয়ে উচ্ছ্বাস প্রকাশ করেন পুরস্কৃতরা।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন ঢাকা-১১ আসনের সাংসদ বীর মুক্তিযোদ্ধা মো. ওয়াকিল উদ্দিন, শেখ জনূরুদ্দীন র. দারুল কুরআন মাদরাসা ও চৌধুরীপাড়া মসজিদ-ই-নূর এর মুতাওয়াল্লি জনাব ইমাদুদ্দীন নোমান, রাজধানীর দারুল উলুম রামপুরা বনশ্রী মাদরাসার শাইখুল হাদিস ও প্রবীণ আলেম মাওলানা মাওলানা আসআদ আল হোসাইনী, শেখ জনূরুদ্দীন র. দারুল কুরআন মাদরাসার মুহতামিম মাওলানা মাহফুজুল হক কাসেমী, নায়েবে মুহতামিম মাওলানা খুরশিদ আলম কাসেমীসহ রামপুরা, মালিবাগ মুগদা, মাণ্ডা, বাসাবো, খিলগাঁওয়ের বিভিন্ন ওলামায়ে কেরাম।

পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠানে এছাড়া পুরস্কৃত করা হয় বেফাক পরীক্ষায় মেধাস্থান ও প্রথম বিভাগ অর্জনকারী শিক্ষার্থীদের। পাশাপাশি মাদরাসার বার্ষিক পরীক্ষায় কৃতি ছাত্রদের মাঝেও পুরস্কার বিতরণ করা হয়।

শেখ জনূরুদ্দীন র. দারুল কুরআন মাদরাসার কৃতি ছাত্রদের মাঝে পুরস্কার বিতরণের ভিন্নধর্মী এই আয়োজন জনাব মুহাম্মাদ ইমাদুদ্দীন নোমানের সভাপতিত্বে শনিবার আসরের পর থেকেই শুরু হয়। মাওলানা মুসলিম উদ্দীনের সঞ্চালনায় বক্তব্য রাখেন আগত অতিথিরা। মহতী এই আয়োজনের জন্য মুতাওয়াল্লী মুহাম্মাদ ইমাদুদ্দীন নোমানকে ধন্যবাদও জানান।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে ঢাকা-১১ আসনের সাংসদ বীর মুক্তিযোদ্ধা মো. ওয়াকিল উদ্দিন বলেন, পুরস্কার ভিত্তিক পড়াশোনার পরিবেশ খুবই প্রয়োজন। এতে শিক্ষার্থীরা পড়াশোনার প্রতি আরো বেশি আগ্রহী হয়। নিজেদের মেধা বিকাশে সচেষ্ট হয়। আজকের এই অনুষ্ঠান পরীক্ষায় ভালো ফলাফল অর্জনকারীদের মাঝে পুরস্কার তুলে দেওয়ার জন্য সাজানো হয়েছে। এর ফলে এইসব শিক্ষার্থীরা ভবিষ্যতে আরো ভালো ফলাফল কীভাবে করতে পারবে সেই চেষ্টা আরো বাড়িয়ে দিবে।

শেখ জনূরুদ্দীন র. দারুল কুরআন মাদরাসার মুতাওয়াল্লী মুহাম্মাদ ইমাদুদ্দীন নোমান বলেন, শিক্ষার্থীদের পড়ালেখায় মনোযোগী করে তুলতে শেখ জনূরুদ্দীন র. দারুল কুরআন চৌধুরীপাড়া মাদরাসা সবসময় বিভিন্ন উদ্যোগ গ্রহণ করে আসছে। ছাত্রদের মেধা বিকাশের মাধ্যমে কুরআন-হাদিসের ইলম অর্জনে উৎসাহ প্রদানের লক্ষেই আমাদের এ উদ্যোগ। বিগত বছরে ভালো রেজাল্টের পুরস্কার হিসাবে ওমরায় পঠানো হয়েছিল। এ বছরও পাঠানো হচ্ছে। এবং ভবিষ্যত্যেও এ ধারা অব্যাহত থাকবে, ইনশাআল্লাহ।

অনুষ্ঠানের শুভেচ্ছা বক্তব্যে শেখ জনূরুদ্দীন র. দারুল কুরআন চৌধুরীপাড়া মাদরাসার মুহতামিম মাওলানা মাহফুজুল হক কাসেমী পরীক্ষায় সাফল্য বয়ে আনা শিক্ষার্থীদের অভিনন্দন জানিয়ে বলেন, প্রতিবারের মতো এবারও ছাত্ররা বেফাকে মেধার স্বাক্ষর রেখেছে। এই ধারাবাহিকতা অব্যাহত থাকবে, সবার কাছে সেই দোয়া কামনা করছি।

তিনি আরো বলেন, আমাদের মুহতারাম মুতাওয়াল্লী মুহাম্মাদ ইমাদুদ্দীন নোমান গত বছর ঘোষণা দিয়েছিলেন, যারা বেফাক ও হাইয়ার পরীক্ষায় প্রথম স্থান থেকে দশম স্থান পর্যন্ত সিরিয়ালে থাকতে পারবে, তাদের ওমরা পালনের সুযোগ করে দেওয়া হবে। গত বছর আকবর শিকদারের মাধ্যমে ওমরা পালনের যাত্রা শুরু হয়েছে, এ ধারা আগামীতেও অব্যাহত থাকবে ইনশাআল্লাহ। 

কেএল/


সম্পর্কিত খবর


সর্বশেষ সংবাদ