195958

পারস্য থেকে ইসলাম প্রচারে এসে শাহ্ নেয়ামত উল্লাহ রহ. এ মসজিদটি নির্মাণ করেন

আবদুল্লাহ তামিম।।

বরগুনা জেলার বেতাগী উপজেলা সদর থেকে ১০ কিঃমিঃ দূরে বিবিচিনি ইউনিয়নে ঐতিহাসিক এ মসজিদটি অবস্থিত।

এলাকার প্রবীণ ব্যক্তিদের সাথে আলোচনায় জানা যায়, ১৬৫৯ খ্রিস্টাব্দে হযরত শাহ্ নেয়ামত উল্লাহ রহ. পারস্য থেকে এই এলাকায় ইসলাম প্রচারের উদ্দেশ্যে এসে বিবিচিনিতে এ মসজিদটি নির্মাণ করেন।

তার কন্যা চিনিবিবি এবং ইসাবিবির নামানুসারে বিবিচিনি গ্রামের নামকরণ করা হয়েছে এবং মসজিদটির নাম রাখা হয়ছে বিবিচিনি শাহী মসজিদ। মসজিদটির দৈর্ঘ্য ৩৩ ফুট, প্রস্থ ৩৩ ফুট ,দেয়ালগুলো ৬ ফুট চওড়া।

মসজিদের ইটগুলো মোঘল আমলের ইটের মাপের সমান। সমতল ভূমি হতে মসজিদের স্থানটি ৩০ ফুট টিলার উপর অবস্থিত। তার উপরও প্রায় ২৫ ফুট উচ্চ মসজিদ গৃহ। মসজিদের পাশে রয়েছে ৩ টি কবর। যা সম্পূর্ণ ব্যতিক্রম ধর্মী।

কবর ৩ টি সাধারণ কবরের ন্যায় হলেও লম্বা ১৫/১৬ হাত। এলাকাবাসীর জনা মতে সেখানে চির নিদ্রায় শায়িত আছেন মসজিদের প্রতিষ্ঠাতা হযরত শাহ্ নেয়ামত উল্লাহ্ রহ. এবং তার কন্যা চিনিবিবি এবং ইসাবিবি।

আরো জানা যায়, সম্রাট আওরঙ্গজেবের রাজত্বকালে ১৭০০ খ্রিস্টাব্দে হযরত শাহ্ নেয়ামত উল্লাহ্ রহ. পরলোকগমন করেন এবং মসজিদের পার্শ্বে তাকে সমাহিত করা হয়।

আরো জানা যায়, প্রত্নতত্ত অধিদপ্তর কর্তৃক মসজিদটি তালিকাভূক্ত করে এর সংস্কার করা হয়েছে।

যেভাবে যাবেন, ঢাকা/ দেশের যে কোন জেলা থেকে লঞ্চ অথবা বাস যোগে বরগুনা জেলা বাস স্টান্ড নামতে হবে। বাস স্টান্ড হতে বাসে মোটর সাইকেল বেতাগী উপজেলাতে যেতে হবে।

বরগুনা জেলার বেতাগী উপজেলা সদর থেকে ১০ কিঃমিঃ দূরে মোটর সাইকেল যোগে বিবিচিনি ইউনিয়নে এসে রিক্সা যোগে বিবি চিনি মসজিদে আসা যাবে।

-এটি

Please follow and like us:
error1
Tweet 20
fb-share-icon20

ad