শিরোনাম :
‘মুসলিম নারী বিক্রি’র আরেক অ্যাপ নির্মাতাকে গ্রেফতার করেছে ভারতীয় পুলিশ
জানুয়ারি ১১, ২০২২ ৮:৫৪ পূর্বাহ্ণ

আওয়ার ইসলাম ডেস্ক: ভারতে কয়েকদিন আগে দিল্লি পুলিশ মুসলিম নারীদের ‘নিলাম’ অ্যাপ বুল্লি বাই কাণ্ডে একজনকে গ্রেফতার করেছিল। এবার বিতর্কের ঝড় তোলা আরেক অ্যাপ ‘সুল্লি ডিলস’র মূল হোতাকেও গ্রেফতার করেছে ভারতীয় পুলিশ। খবর এনডিটিভির।

অবশ্য বুল্লি বাইয়ের আগেই ‘সুল্লি ডিলস’ নামক একটি অ্যাপ বিতর্কের সৃষ্টি করেছিল ভারতজুড়ে। তবে সেই অ্যাপের নির্মাতা এত দিন ছিলেন অধরা। সেই অ্যাপেও মুসলিম মেয়েদের বিকৃত ছবি আপলোড করে নিলামের বিজ্ঞাপন দেওয়া হতো। সেই সুল্লি ডিলস অ্যাপের নির্মাতা এবার গ্রেফতার হলেন মধ্য প্রদেশের ইন্দোর থেকে। দিল্লি পুলিশের স্পেশাল সেল এই গ্রেফতার করে। আটককৃতের নাম ওমকারেশ্বর ঠাকুর।

জানা গেছে, আটক ওমকারেশ্বরের বয়স ২৫। টুইটারে তিনি ট্রাড নামের একটি গ্রুপের সদস্য। এই গ্রুপের মূল উদ্দেশ্য মুসলিম নারীদের অপমানিত করা। ২০২০ সালে একটি টুইটার আইডি ব্যবহার করে সেই গ্রুপে যোগ দেন ওমকারেশ্বর। এরপর গিটহাবে তিনি ‘সুল্লি ডিলস’ নামের অ্যাপটি ডেভেলপ করেন। এরপর সুল্লি ডিলস নিয়ে বিতর্ক শুরু হলে ওমকারেশ্বর তার সব সোশ্যাল মিডিয়া ফুটপ্রিন্ট মুছে ফেলেন। আরো তথ্য জানতে ওমকারেশ্বরকে জেরা করা হচ্ছে।

এর আগে সম্প্রতি বিতর্ক শুরু হয় বুল্লি বাই অ্যাপ নিয়ে। দিল্লির এক নারী সাংবাদিক এই অ্যাপ নিয়ে অভিযোগ দায়ের করলে বিষয়টি সামনে আসে। অ্যাপটিতে সাংবাদিকের সম্মতি ছাড়াই তার বিকৃত ছবি আপলোড করা হয়। বুল্লি বাই অ্যাপে আদতে মুসলিম নারীদের টার্গেট করা হতো।

এক ভার্চুয়াল নিলামে তাদের ছবি রাখা হতো। আর সেই নিলামে যাতে পুরুষরা আগ্রহী হয়, সেই চেষ্টা করা হতো। এদিকে এই অ্যাপের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে ইন্ডিয়ান কম্পিউটার ইমার্জেন্সি রেসপন্স টিম মাঠে নামে। আসাম থেকে গ্রেফতার করা হয় এই অ্যাপের মাস্টারমাইন্ড নীরজ বিষ্ণোইকে। এ ছাড়া আরো তিনজকে গ্রেফতার করে মুম্বাই পুলিশ। সূত্র : হিন্দুস্তান টাইমস

-কেএল

সর্বশেষ সব সংবাদ