145100

ক্রাইস্টচার্চে বাংলাদেশি নিহতের সংখ্যা বেড়ে ৫

আওয়ার ইসলাম: নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চে ভয়াবহ সন্ত্রাসী হামলায় বাংলাদেশি নিহতের সংখ্যা বেড়ে ৫-এ দাঁড়িয়েছে। দেশটিতে নিযুক্ত বাংলাদেশের অনারারি কনসাল জেনারেল ইঞ্জিনিয়ার শফিকুর রহমান ভূঁইয়া এ তথ্য নিশ্চিত করেন।

তিনি বলেন, ঘটনার পর থেকে নরসিংদীর বাসিন্দা জাকারিয়া ভুঁইয়া নিখোঁজ ছিলেন।তার পূর্ব পরিচিত স্থানীয় একটি মসজিদের ইমাম তার লাশ শনাক্ত করেছেন। ফলে বেসরকারীভাবে বাংলাদেশি মৃতের সংখ্যা এখন ৫-ই বলা হচ্ছে।’

নরসিংদীর জাকারিয়া প্রায় ১৮ মাস আগে সিঙ্গাপুর থেকে নিউজিল্যান্ডে গিয়েছিলেন।

এছাড়া নিহত অন্যরা হলেন, ডা. সামাদ, হোসনে আরা পারভীন, মোজাম্মেল ও ওমর ফারুক। এর আগে ওই হামলায় এই চারজন বাংলাদেশি নিহত হওয়ার তথ্য জানিয়েছিলেন পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম।

সোমবার নিউজিল্যান্ড সময় সকাল ১০টায় নিহত সকলের মরদেহ স্বজনদের কাছে হস্তান্তর করা হবে বলে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের একটি সূত্র জানিয়েছে।

জানা গেছে, নিহতদের মধ্যে ডা. সামাদ ও হোসনে আরা পারভীন বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত নিউজিল্যান্ডের নাগরিক। আত্মীয়-স্বজনদের ইচ্ছায় সেখানেই তাদের দাফন করা হবে।

নিহত অপর তিনজন বাংলাদেশের নাগরিক। তাদের আত্মীয়-স্বজনদের সঙ্গে সরকার যোগাযোগ করছে। যত দ্রুত সম্ভব তাদের মরদেহ ফেরত আনার ব্যবস্থা করা হবে বলে সূত্র জানিয়েছে।

পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়, ক্যানবেরা মিশন এবং নিউজিল্যান্ডের (অনারারী) কনস্যুলেটের তথ্য অনুযায়ী, ওই ঘটনায় আহতদের মধ্যে লিপির অবস্থা সংকটাপন্ন। তার আরেকটি অস্ত্রোপচার করা লাগতে পারে। কিশোরগঞ্জের বাসিন্দা লিপিকে দেখতে হাসপাতালে গেছেন নিউজিল্যন্ডের প্রধানমন্ত্রী।

তিনি তার চিকিৎসার সার্বিক খোঁজ-খবর নিয়েছেন বলেও জানা গেছে। ওদিকে পয়ে গুলিবিদ্ধ গাজিপুরের মুতাসসিম ও শেখ হাসান রুবেলের অবস্থা বিপদমুক্ত বলে জানানো হয়েছে।

গত শুক্রবার জুমার নামাজের সময় নিউজিল্যান্ডের দ্বিতীয় বৃহত্তম শহর ক্রাইস্টচার্চের দুটি মসজিদে নৃশংস হামলায় ওই বাংলাদেশীসহ ৫০ জন নিহত ও ৪৮ জন আহত হন।

আরএম/

ad

পাঠকের মতামত

One response to “শ্রীলঙ্কায় দুই বাংলাদেশির খোঁজ মিলছে না”

  1. EdwardvuH says:

    Вся информация о гипнозе, гипнотерапиия, а также обучение техникам тут – https://www.hypnolife.ru/

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *