191727

আম্ফানে পশ্চিমবঙ্গে ৭২ জনের প্রাণহানি

আওয়ার ইসলাম: প্রবল ঘূর্ণিঝড় আম্ফানের ছোবলে পশ্চিমবঙ্গের কমপক্ষে ৭২ জনের প্রাণহানির খবর পাওয়া গেছে। এর প্রভাবে বিধ্বস্ত গোটা কলকাতাসহ রাজ্যের বিস্তীর্ণ অঞ্চল। আজ (বৃহস্পতিবার) দুপুরে নবান্নে সাংবাদিক বৈঠকে এ তথ্য জানিয়েছেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

হিন্দুস্তান টাইমসের প্রতিবেদন অনুযায়ী বৈঠকে জানানো হয়, নিহতদের মধ্যে কলকাতায় মৃত্যু হয়েছে ১৫, উত্তর ২৪ পরগনায় ১৭ ও হাওড়ায় ৭ জন প্রাণ হারিয়েছেন। এছাড়া দক্ষিণবঙ্গের বাকি জেলাগুলো থেকেও মৃত্যুর খবর এসেছে। এ সময় ঝড়ে নিহতদের পরিবারকে ২ লাখ ৫০ হাজার টাকা করে ক্ষতিপূরণ দেওয়া হবে বলেও জানান মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

আবহাওয়া দফতর সূত্রে খবর, আমফানের দাপটে গতকাল সন্ধ্যা ৬টা ৫৫ মিনিটে কলকাতা বিমানবন্দর এলাকায় প্রতি ঘণ্টায় ১৩৩ কিলোমিটার গতিবেগে ঝড়ো হাওয়া বয়ে যায়। সেই সঙ্গে টানা কয়েকঘণ্টা ধরে চলে প্রবল বৃষ্টি। এতে রাজ্যের বিভিন্ন জায়গায় ভেঙে গেছে ট্রাফিক সিগন্যাল। কলকাতার অন্তত ১৮টি জায়গায় গাছ পড়ে গেছে। দিঘা, রামনগর, মন্দারমনি, কাঁথি, হলদিয়ার বিভিন্ন এলাকায় ছোট বড় গাছ পড়ে রাস্তা বন্ধ হয়ে গেছে। মন্দারমনিতে কয়েকটি হোটেলে পানি ঢুকে গেছে।

ঘণ্টায় ১৪০ থেকে ১৫০ কি.মি. বেগে ঝড় বয়ে যায় দিঘা উপকূলে। ঘূর্ণিঝড়ের তা-বে কার্যত লন্ডভন্ড দশা এখন দিঘার। ঝড়ের দাপটে দিঘা রেলস্টেশনের করোগেটেড শিট (চাল) উড়ে গেছে। শহরজুড়ে উপড়ে পড়েছে শত শত গাছ। বহু জায়গায় ভেঙে পড়েছে বিদ্যুৎ ও বাতিস্তম্ভ। ভেঙেছে জীর্ণ বাড়িও। বৈদ্যুতিক সংযোগ ছিন্ন হয়ে গিয়ে অন্ধকার নেমে আসে বহু এলাকায়। আলিপুর আবহাওয়া দফতর সূত্রের খবর, মে মাসে ২৪ ঘণ্টায় বৃষ্টিপাতের নিরিখে এদিন তৈরি হয়েছে নতুন রেকর্ড। বৃষ্টিপাতের পরিমাণ ছিল ২৪৪.২ মিলিমিটার।

-এটি

ad