139066

‘ইজতেমায় স্মরণকালের সবচেয়ে বেশি বিদেশী মেহমান আসবেন’

শুরু হচ্ছে বিশ্ব ইজতেমা।  দেশে-বিদেশের ধর্মপ্রাণ মানুষ ছুটে আসছে আল্লাহওয়ালাদের এ মিলনমেলা বিশ্ব ইজতেমায়। টঙ্গীর তুরাগতীরে আমিন আমিন ধ্বনিতে মুখরিত হবে রাজধানীর আকাশ-বাতাস।

ইজতেমা মাঠের সর্ব শেষ অবস্থা, বিদেশি মেহমানদের আসা-না আসা ইত্যাদি বিষয়ে জানতে আওয়ার ইসলাম মুখোমুখি হয়েছে তাবলিগের মুরব্বি (কাকরাইল মারকাজ) ইঞ্জিনিয়ার মাহফুজ হান্নানের। কথা বলেছেন আওয়ার ইসলামের বিশেষ প্রতিনিধি রোকন হারুন।

আওয়ার ইসলাম: বিশ্ব ইজতেমা মাঠের সর্বশেষ অবস্থা কী ?

মাহফুজ হান্নান: ইজতেমার কাজ জোরেশোরে চলছে। বসার জন্য অর্ধেক চট সকালে আসছে, বাকি অর্ধেক চট বিকেলে আসবে। ইজতেমা শুরু হওয়ার আগেই সকল কাজ শেষ হয়ে যাবে ইনশাল্লাহ।

জেলা থেকে খিত্তার লোকজন আগে এসে খিত্তা তৈরি করবে। যার যার খিত্তা  সে সে তৈরি করে নিবে। আমরা সব চট রেডি করে দিচ্ছি। আমরা আশা করছি কাল-পরশু থেকে এখানে পঞ্চাশ ষাট হাজার লোক জমায়েত হবেন। আজকে এখানে প্রায় পঞ্চাশ হাজার লোক আছে, এরা সবাই মাঠে থেকে কাজটা শেষ করবে।

আওয়ার ইসলাম : সারা দেশের খিত্তা জিম্মাদারদের যে তালিকা প্রকাশ করেছেন, তাদেরে  প্রতি কেন্দ্রীয় মুরুব্বিদের কী নির্দেশ?

মাহফুজ হান্নান: তারা ইজতেমার মাঠে এসে তাদের কাজগুলো গুছিয়ে নিবে।  তাদের জেলার খিত্তায় এসে নিজেদের কাজ গুছিয়ে নিবেন ও প্রতিদিন তাদের পঞ্চাশ হাজার লোক থাকবেন মাঠে।

ইনশাল্লাহ আশা করছি, এতে সরকারের সকল প্রকার সহযোগিতা রয়েছে। আল্লাহ তায়ালা যদি এখন আমাদের প্রতি এবং সরকারের প্রতি দয়া করেন তাহলে আমাদের সব কাজ সঠিকভাবে সম্পন্ন হবে।

শুধু একটা ব্যাপারে আমরা আল্লাহ তায়ালার কাছে প্রার্থনা করছি, যে আমাদের সবচেয়ে পার্শবর্তী নিকটতম বন্ধুদেশ ভারত। সে ভারত থেকে প্রায় পাঁচ ছয় হাজার মুসলমান বিশ্ব ইজতেমায় অংশগ্রহণের জন্য  ভিসার অপেক্ষা করছেন।

মাঝখানে ছোট্ট একটা সমস্যা হয়ে গেছে। এখন দিল্লির মারকাজে পাশাপাশি আরো দুটো মারকাজের সত্যায়নপত্রর সাথে সাথে ভিসাও যদি দেয়া হয়, তাহলে আমরা আশা করছি, শুধু ভারত থেকে প্রায় পাঁচ ছয় হাজার মুসলমান ইজতেমাতে আসবে।

সরকারের কাছে আমরা এ ব্যাপারে আশা করছি,  দ্রুত তাদের ভিসার ব্যবস্থা করে দিবেন। কারণ, ভারত আমাদের বন্ধু দেশ। ভারতই সবসময় আমাদের পাশে দাঁড়িয়েছে। সে ভারতের মেহমানদেরকে আমরা ইজতেমায় আসতে দেব।

আওয়ার ইসলাম: বিদেশী মেহমানদের উপস্থিতি আপনারা কেমন আশা করছেন, বিদেশী  বড় আলেমদের কারা আসতে পারেন বলে মনে করছেন?

মাহফুজ হান্নান: সরকার যে সমস্ত দেশের অনারেবল ভিসা দেয়, সে সমস্ত দেশের সবাইকে যদি শর্তহীনভাবে অনারেবল ভিসা দেয় তাহলে আমি বলব স্মরণকালের সবচেয়ে বেশি বিদেশী মেহমান আসবেন। আর যদি না দেয় তাহলে মেহমান আসাটা কিছুটা কম হবে বলে মনে করি।

আওয়ার ইসলাম: বরাবর তো সরকার ভিসা দিয়েই আসছেন, কিন্তু এবার ভিসা না দেয়ার প্রসঙ্গ কেন আসলো, আপনি কেন মনে করছেন যে সরকার  ভিসা দেবে না?

মাহফুজ হান্নান:  ভিসা দিচ্ছে তবে কিছু শর্ত জুড়ে দেওয়া হয়েছে। আমরা অনারেবল ভিসার ব্যাপরে নিশ্চিত হচ্ছি। আশা করছি সরকার ভিসা দিতে সমস্যা করবে না। ভিসার বিষয়ে দিন দিন জটিলতা হচ্ছে। তাই নতুন নিয়মের আওতায় সমস্যার সম্মুখীন হচ্ছে অনেকে।

-এটি

ad

পাঠকের মতামত

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *