সোমবার, ২০ মে ২০২৪ ।। ৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ ।। ১২ জিলকদ ১৪৪৫


আর্ত মানবতার সেবায় ‘উই আর ওয়ান ফাউন্ডেশন’

নিউজ ডেস্ক
নিউজ ডেস্ক
শেয়ার

দেশের দারিদ্র্য পীড়িত জনগোষ্ঠীর মৌলিক অধিকার নিশ্চিত করণ এবং অসহায় মানুষদের সার্বিক সহযোগিতা প্রদানের লক্ষ্যে একদল শিক্ষিত, প্রশিক্ষিত ও প্রতিষ্ঠিত তরুণ এবং দেশের গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গের ঐকান্তিক প্রচেষ্টায় গড়ে ওঠেছে অরাজনৈতিক সার্বজনীন সেবা সংস্থা “উই আর ওয়ান ফাউন্ডেশন”। রাজধানীর মুহাম্মদপুরে এর প্রধান কার্যালয়। এর পৃষ্ঠপোষকতায় রয়েছেন ঢালকানগরের পীর প্রখ্যাত আলেম মুফতি জাফর আহমদ সহ দেশবরেণ্য উলামায়ে কেরাম।

দরিদ্র মানুষের অন্ন, বস্ত্র, বাসস্থান, শিক্ষা ও চিকিৎসা— এসব খাতেই সমানভাবে কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছে উই আর ওয়ান ফাউন্ডেশন। দারিদ্র্য বিমোচন, বেকারত্ব দূরীকরণ, সাবলম্বী করণ, অসহায় রোগীদের ব্যয়বহুল চিকিৎসা সেবা প্রদান উই আর ওয়ান ফাউন্ডেশনের প্রধানতম লক্ষ্য।

সংস্থার দায়িত্ববান নওমুসলিম মুহাম্মাদ রাজ, প্রভাষক মোঃ  শফিকুল ইসলাম জানান, উই আর ওয়ান ফাউন্ডেশনের প্রতিটি সেবা নিঃশর্ত ও নিঃস্বার্থ। মুসলিম, নওমুসলিম এবং নন মুসলিম— ধর্ম, বর্ণ নির্বিশেষে সকল শ্রেণীপেশার অসহায় মানুষের জন্য উই আর ওয়ান ফাউন্ডেশনের সেবা উন্মুক্ত।

সংস্থার জনাব মোশাফর হোসেইন রাজু জানান, গত এক মাসে “উই আর ওয়ান ফাউন্ডেশন” বেশ কজন জটিল রোগীকে ব্যয়বহুল চিকিৎসা সেবা প্রদান করেছে। উই আর ওয়ান ফাউন্ডেশনের প্রতিষ্ঠালগ্নেই তার ইতিহাসে যোগ হয়েছে অভূতপূর্ব মানবসেবার  যুগান্তকারী বহু গল্প। এখানে সেই কয়েকটি গল্প তুলে ধরা হলো।

গল্প—১
রোড এক্সিডেন্ট করে মারাত্মকভাবে আহত হন হতদরিদ্র লোক ৩৪ বছর বয়সী সুমন ঢালি। পা এবং মেরুদন্ডের হাড় ভেঙে যায়। শুরু হয় ঢাকা পঙ্গু হসপিটালে চিকিৎসা অধ্যায়। মধ্যবিত্ত বা নিম্নবিত্ত শ্রেণীর এ লোকটির সঞ্চয় যা ছিল, সব শেষ হয়ে যায়। সব হারিয়ে নিঃস্ব অসহায় লোকটি হাউমাউ করে কেঁদে ওঠেন মুঠোফোনে। তারা জানতে পেরে ছুটে যায় লোকটির চিকিৎসার দাযিত্ব নিতে।

গল্প —২
১১ বছর বয়সী ছোট্ট আমেনা। শুয়ে আছে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে। কারণ, জন্মসূত্রেই তার হার্টে ছিদ্র ধরা পড়ে। গার্মেন্ট শ্রমিক পিতা অর্থের অভাবে আদুরে কন্যার চিকিৎসা করাতে পারেননি এত বছর। মেয়েটির চিকিৎসার দায়িত্ব নেয় তারা। 

গল্প —৩ 
দিনাজপুরের ফুলবাড়ীর  মাওলানা আল আমিন। তাঁর ছোট্ট দুধের সন্তান ১১ মাসের মুসকানের হার্টে ছিদ্র ধরা পড়ে!!
ডাক্তার জানান, দ্রুত অপারেশন না করালে বাচ্চার বিরাট  ক্ষতি হয়ে যাবে। অপারেশন করাতে ২ লক্ষ টাকা খরচ হবে।  উই আর ওয়ান ফাউন্ডেশন ইসলামি কার্ডিয়াক হসপিটাল মিরপুরে শিশুটির ব্যয়বহুল এ চিকিৎসার পাশে দাঁড়িয়েছে!!

উই আর ওয়ান ফাউন্ডেশন এভাবেই মানুষের পাশে থাকতে চায় সারাজীবন

কেএল/


সম্পর্কিত খবর


সর্বশেষ সংবাদ