রবিবার, ২৩ জুন ২০২৪ ।। ৯ আষাঢ় ১৪৩১ ।। ১৭ জিলহজ ১৪৪৫


ইজতেমার আগে জোড় : কী বলছেন দুই পক্ষের মুরব্বিরা?


নিউজ ডেস্ক

নিউজ ডেস্ক
শেয়ার

|| কাউসার লাবীব ||

বিশ্ব ইজতেমার শুরু লগ্ন থেকে প্রতি বছর টঙ্গির তুরাগ তীরেইজতেমার প্রস্তুতিমূলক আলোচনার জন্য অনুষ্ঠিত হয় জোড় ইজতেমা। তবে করোনা মহামারির কারণে বিগত কয়েকবছর ধরে বিশ্ব ইজতেমা ও জোড় ইজতেমার আয়োজন করতে পারেনি তাবলিগ জামাত। গতে বছর ৫৬ তম বিশ্ব ইজতেমা অনুষ্ঠিত হলেও জোড়ের কোনো আয়োজন দেখা যায় নি। এদিকে ২০২৪ সালের শুরুর দিকে অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা রয়েছে ৫৭ তম বিশ্ব ইজতেমা। সেই ইজতেমাকে কেন্দ্র করে এবার কি জোড় ইজতেমা হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে? এমন প্রশ্ন দেশের তাবলিগপ্রেমী মানুষের।

জানা যায়, গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশ থেকে আগামী অক্টোবরের ১৩-১৭ টঙ্গীর বিশ্ব ইজতেমা ময়দানে পাঁচ দিনব্যাপী জোড় ইজতেমা করার একটি অনুমোদন পেয়েছে তাবলিগ জামাতের মাওলানা সাদ কান্ধলভির অনুসারীরা। সে হিসেব তারা প্রস্তুতিও নিতে শুরু করেছে। আওয়ার ইসলামকে এমনটাই জানিয়েছেন নিজামুদ্দীনপন্থী মুরুব্বি মাওলানা জিয়া বিন কাসেম।

তবে নিজামুদ্দীনপন্থী তাবলিগের সাথীদের জোড়ের অনুমতি প্রদানের বিষয়ে গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনার ডিআইজি মো. মাহবুব আলম আওয়ার ইসলামকে বলেন, তাদেরকে যে অনুমোদনটি দেওয়া হয়েছে, সেটি একটি প্রাথমিক অনুমোদন। আমরা আগামী বৃহস্পতিবার (৭ সেপ্টেম্বর) নিজামুদ্দীনপন্থী ও আলমী শূরাপন্থী তাবলিগের সাথীদের নিয়ে আলোচনায় বসবো। উভয় পক্ষের মতামতের ভিত্তিতে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত গৃহিত হবে। জোড় করলে উভয় পক্ষ করবে। না করলে কেউ করবে না।

এদিকে আসন্ন ৫৭তম বিশ্ব ইজতেমাকে কেন্দ্র করে জোড় ইজতেমার বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়ার জন্য আজ স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামালের সঙ্গে সাক্ষাৎ করেছেন আলমী শূরাপন্থী তাবলিগের সাথীদের একটি প্রতিনিধি দল। প্রতিনিধি দলে ছিলেন  আল হাইআতুল উলয়া লিল জামিআতিল কওমিয়া বাংলাদেশের সহ-সভাপতি মাওলানা সাজিদুর রহমান,  চট্টগ্রামের ফটিকছড়িস্থ জামিয়া ইসলামিয়া ওবাইদিয়া নানুপুরের মহাপরিচালক মাওলানা সালাহ উদ্দিন নানুপুরী, রাজধানীর জামিয়া আরাবিয়া ইমদাদুল উলুম ফরিদাবাদ মাদরাসার মুহতামিম মাওলানা আব্দুল কুদ্দুস, দারুল উলূম হাটহাজারীর সহকারী পরিচালক মুফতি জসিমুদ্দীন, মুফতি কেফায়েতুল্লাহ আজহারী, আলমী শূরাপন্থী তাবলিগের মুরব্বি ইঞ্জিনিয়ার মাহফুজ আহমেদ, আলমী শূরাপন্থী তাবলিগের মুরব্বি শাহরিয়ার মাহমুদ প্রমূখ।

প্রতিনিধি দলে থাকা আলমী শূরাপন্থী তাবলিগের মুরব্বি শাহরিয়ার মাহমুদ আওয়ার ইসলামকে বলেন, আসন্ন নির্বাচনের আগে টঙ্গীর ইজতেমা ময়দানে জোড় কিংবা বিশ্ব ইজতেমা অনুষ্ঠিত হবে না বলে জানিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী। এসব বিষয়ে নির্বাচনের পর সিদ্ধান্ত আসবে।

অন্যদিকে বিভিন্ন সূত্র বলছে, ৫৭তম বিশ্ব ইজতেমার আগে এবার কোনো জোড় ইজতেমা নাও হতে পারে। তুরাগ তীরে তিন দিন করে উভয় পক্ষ বিশ্ব ইজতেমার আয়োজন করবে। তবে নির্বাচন শেষে ফেব্রুয়ারির শুরু কিংবা মাঝমাঝিতে ৫৭তম বিশ্ব ইজতেমা অনুষ্ঠিত হতে পারে।

কেএল/


সম্পর্কিত খবর


সর্বশেষ সংবাদ