মোটরসাইকেলে ওমরাহ পালনে পাকিস্তান থেকে সৌদিতে
জানুয়ারি ২৪, ২০২৩ ৬:১৯ অপরাহ্ণ

আওয়ার ইসলাম ডেস্ক: মোটরসাইকেলে ওমরাহ পালনে পাকিস্তান থেকে সৌদিতে মুকাররম তারিন। মোটরসাইকেল নিয়ে এক দেশ থেকে আরেক দেশে ভ্রমণ যার কাছে অনেকটা হাতের মোয়া।

জানা যায়, গত ৩০ বছরে মোটরসাইকেলে করে এশিয়ার বিভিন্ন দেশ ভ্রমণ করেছেন তিনি। তবে এ বছর এশিয়ার গণ্ডি ছাড়িয়ে সৌদি আরবের মক্কায় যাওয়ার সিদ্ধান্ত নেন তারিন। সেখানে ওমরাহ পালনের পরিকল্পনাও রয়েছে তার।

তারিন আরো জানান, নিজের ‘ক্রস রুট’ ক্লাবের ২৪ সদস্যকে সঙ্গে নিয়ে সম্প্রতি মোটরসাইকেলে করে পাকিস্তান থেকে সৌদি আরবের পথে যাত্রা শুরু করেন তিনি। ১৫ দিনে আড়াই হাজার কিলোমিটারের বেশি পথ পাড়ি দিয়ে পাকিস্তানের বিভিন্ন অঞ্চল থেকে সফরে যোগ দেয়া এই বাইকাররা সম্প্রতি পৌঁছান সংযুক্ত আরব আমিরাতে।

গত ১৭ জানুয়ারি এক প্রতিবেদন প্রকাশ করে দুবাইভিত্তিক সংবাদমাধ্যম খালিজ টাইমস। সাক্ষাৎকারে তারিন জানান, সম্প্রতি তারা পাকিস্তানের লাহোর থেকে যাত্রা শুরু করে তাফতান সীমান্ত দিয়ে ইরানে প্রবেশ করেন। এরপর তারা ইরানের বাম নগরী হয়ে বন্দর আব্বাসে যান এবং ফেরিতে করে শারজাহ পৌঁছান।

শুরুতে ২০১৯ সালে মোটরসাইকেলে মক্কা সফরের পরিকল্পনা ছিল দলটির। তবে করোনা মহামারিতে বিশ্বজুড়ে বিধিনিষেধের কারণে তখন আর ভ্রমণ করা সম্ভব হয়নি। পরে তারিন যখন গ্রুপের কাছে ফের সেই পরিকল্পনা বাস্তবায়নের প্রস্তাব দেন, তখন প্রায় সবাই তাতে সায় দেন। তারিন বলেন, ‘আমরা ছয় মাস আগে ভ্রমণের পরিকল্পনা করি। এরপর যে দেশগুলোতে ভ্রমণ করব, সেসব দেশের কর্তৃপক্ষের সঙ্গে যোগাযোগ করেছি এবং প্রয়োজনীয় সব কাগজপত্র সংগ্রহ করি। তারপরে আমরা আমাদের রুটম্যাপ এবং যেখানে যেখানে যাত্রাবিরতী নেব, তা সাজাই।’

দলটি গত ছয় মাস ধরে শারীরিক, মানসিকভাবে প্রস্তুতি নিয়েছে দুই মাস ধরে রাস্তায় থাকার চ্যালেঞ্জ নিতে। তারিন বলেন, ‘আমরা দিনে প্রায় ৪০০ কিলোমিটার বাইক চালিয়েছি এবং সূর্যাস্তের আগে আমাদের গন্তব্যে পৌঁছানোর জন্য যথাসাধ্য চেষ্টা করেছি।’

-এটি