শিরোনাম :
ইসরায়েলের গড়িমসিতে বিনা চিকিৎসায় ফিলিস্তিনি শিশুর মৃত্যু
জানুয়ারি ১৪, ২০২২ ৯:৫৯ অপরাহ্ণ

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: ক্যান্সারে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন সালিম-আল-নাওয়াতি নামে ১৬ বছর বয়সী শিশু। সে ফিলিস্তিনের অবরুদ্ধ গাজা উপত্যকার বাসিন্দা ছিল।

ক্যান্সারে আক্রান্ত হওয়ার পরও সঠিক সময়ে তাকে চিকিৎসা করার সুযোগ দেয়নি দখলদার ইসরাইল। এমনকি মৃত্যুর সময়ও হাসপাতালের দুয়ার থেকে ফিরিয়ে দেয়া হয়েছে তাকে। শেষ পর্যন্ত পথেই মরতে হয়েছে সালিম-আল-নাওয়াতিকে।

ক্যান্সারে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুশয্যায় থাকা সালিমকে তার পরিবার ওয়েস্ট ব্যাংকের হাসপাতালে চিকিৎসা করাতে চেয়েছিল। যেহেতু গাজা থেকে বের হতে হলে ইসরাইলের অনুমতির প্রয়োজন তাই তারা অনুমতি চায়। কিন্তু হাসপাতালে যাওয়ার অনুমতি টুকুও সময়মতো পাননি তারা।

সালিমের বাবা গণমাধ্যম দ্য নিউ আরবকে জানান, তারা ৪৫ দিনেরও বেশি সময় ধরে শুধুমাত্র হাসপাতালে যাওয়ার অনুমতি চাইছিলেন। কিন্তু তিনবার তাদের আবেদন প্রত্যাখান করা হয়। চতুর্থবার যখন অনুমতি দেয়া হয় তখন অনেক দেরি হয়ে যায়।

সালিমের বাবা জানান, হাসপাতালে যাওয়ার অনুমতি পাওয়ার শুরু হয় তাদের নতুন যুদ্ধ। সেটি হলো সালিমকে হাসপাতালে ভর্তি করা।

সালিমের বাবা বলেন, আল-নাজাহ হাসপাতাল আমার ছেলেকে ভর্তি করেনি। তারা অজুহাত দেয় স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের কাছে তারা অনেক টাকা পাবে। তাই নতুন কাউকে ভর্তি নিতে পারবে না। এরপর বেশ কয়েকটি হাসপাতালে ঘুরি আমরা।

শেষ পর্যন্ত ইসরাইলের একটি হাসপাতাল সালিমকে ভর্তি নেয়ার কথা বলে। তবে তারা জানায়, সালিমকে আগে গাজায় ফিরতে হবে। এরপর আবার এই হাসপাতালটিতে আসতে হবে। কিন্তু গাজাতে যাওয়ার পথেই সালিমের মৃত্যু হয়।

সূত্র: দ্য নিউ আরব।

এনটি

সর্বশেষ সব সংবাদ