তেলাওয়াতরত অবস্থায় টাকা ছিটানো চরম গর্হিত কাজ: কারী সাইদুল ইসলাম আসাদ
অক্টোবর ১৩, ২০২১ ১১:৪৯ পূর্বাহ্ণ

।।আদিয়াত হাসান।।

সম্প্রতি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে বল্লভদী আল ইসলাহ একাডেমি ইন্টারন্যাশনাল মাদরাসা আড়াইহাজার নারায়ণগঞ্জ এর ১৫ তম বার্ষিক তাফসিরুল কোরআন মাহফিলের একটি ভিডিওচিত্র আলোচনা-সমালোচনার ঝড় তুলছে।

ভিডিওটিতে দেখা যায়, বিশ্বজয়ী কারী সাইদুল ইসলাম আসাদ ও বিশ্বজয়ী হাফেজ নাজমুস সাকিব কোরআন তিলাওয়াত করাকালীন তাদের ওপর টাকা ছিটানো হচ্ছে। এ বিষয় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়লে বিপাকে পড়েন সংশ্লিষ্ট সবাই। বিপাকে পড়েন কারী সাইদুল ইসলাম আসাদও।

আরো পড়ুন- এবার সেই টাকা উড়ানোর বিষয় নিয়ে মুখ খুললেন হাফেজ নাজমুস সাকিব

তারই পরিপ্রেক্ষিতে তেলাওয়াতরত অবস্থায় মাথার ওপর টাকা ছিটানোকে চরম গর্হিত কাজ আখ্যা দিয়ে কারী সাইদুল ইসলাম আসাদ বলেন, ‘কোরআনে কারিমের তেলাওয়াত নিঃসন্দেহে আল্লাহ তাআলার কাছে এক পছন্দনীয় ইবাদত, বান্দা যখন কুরআনের তেলাওয়াত করে তখন আল্লাহ তা’আলার সাথে কথোপকথন হয়। আল্লাহ তা’আলার সাথে বান্দার সম্পর্ক আরও গভীর হয়। কিন্তু কোরআনের তেলাওয়াত অবস্থায় টাকা ছিটানো! এটাকে আমি মোটেও সাপোর্ট তো করি ই না! বরং মারাত্মক ভুল হয়েছে এবং অতি আবেগের বহিঃপ্রকাশ!’

‘আমি বলব যারা এ কাজটি করেছেন। ভবিষ্যতে যেন এই গর্হিত কাজটি আর করা না হয়! সেদিকে সজাগ দৃষ্টি রাখতে হবে। আর যারা সমালোচনা করছেন। এই সমালোচনাটাও যেনো আর একজনের ইসলাহের উদ্দেশ্যে হয়। কাউকে ছোট করা খাটো করা বা গীবতের পর্যায় যেনো না পৌঁছায়। আল্লাহ তাআলা আমাদের সকলকে ভুল থেকে শিক্ষা নেওয়ার তৌফিক দান করুক।’ বলেন, সাইদুল ইসলাম আসাদ।

আরো পড়ুন- প্রচলিত পদ্ধতিতে চাঁদে জমি কেনা জায়েজ নেই

তিনি আরো বলেন, ‘আর আমি যেহেতু তেলাওয়াতরত অবস্থায় ছিলাম, সেদিকেও খেয়াল করতে পারিনি। যাইহোক ভুলত্রুটি মানুষেরই হয়। আল্লাহ তাআলা আমাকে ক্ষমা করে দিন। আল্লাহ তাআলার প্রিয় বান্দা হিসেবে আমাদের সকলকে কবুল করুন। আমিন।’

-কেএল