fbpx
           
       
           
       
শিরোনাম :
এ বছর রমজানে ওমরা পালন করেছেন ১০ লাখ মানুষ
মে ০৫, ২০২১ ১১:৩৭ পূর্বাহ্ণ

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: এ বছর রমজানে এখন পর্যন্ত ১০ লাখের বেশি মানুষ ওমরা পালন করেছেন। সৌদি আরবের হজ ও ওমরা প্রতিমন্ত্রী ড. আব্দুল ফাত্তাহ বিন সুলাইমান এ তথ্য জানিয়েছেন।

সোমবার (৩ মে) আল-আরাবিয়াকে তিনি এ তথ্য জানান। এ সময় তিনি বলেন, রমজানের শেষ দশকে মসজিদুল হারামে জনসমাগম ও ভিড় এড়াতে বিশেষ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে।

এ বছর রমজানের প্রথম ২০ দিনে ওমরা, তাওয়াফ ও নামায আদায়ের জন্য ৩০ লাখের বেশি মানুষ মসজিদুল হারামের প্রবেশ করেছেন।

সৌদি আরবের হজ ও ওমরা প্রতিমন্ত্রী ড. আব্দুল ফাত্তাহ বিন সুলাইমান।

মসজিদুল হারামের দরজায় লাগানো বিশেষ ক্যামেরার মাধ্যমে এই পরিসংখ্যান জানা গেছে। এই ৩০ লাখ মানুষের মধ্যে ওমরা পালনকারী, নামাজ আদায়কারী এবং তাওয়াফ কারীরা অন্তর্ভুক্ত।

বৈশ্বিক মহামারী করোনাভাইরাস এর থেকে সুরক্ষা পেতে মসজিদুল হারামে জনসমাগম সীমিত করেছে হারামাইন কর্তৃপক্ষ।

আরো পড়ুন: মসজিদুল হারামে রহমতের বৃষ্টিপাত-ওমরা আদায়কারীদের কিছু মনকাড়া দৃশ্য

এ বিষয়ে মসজিদুল-হারামের দায়িত্বশীল মুহাম্মদ আল জাবেরী বলেন, রমজানের শুরু থেকেই হারামাইন কর্তৃপক্ষ তাওয়াফ ও ওমরা পালনকারীদের সুবিধা নিশ্চিতে কর্মতৎপরতা বাড়িয়ে দিয়েছে। এর অংশ হিসেবে মসজিদুল হারামের প্রবেশপথে তাপ নিয়ন্ত্রণে বিশেষ ক্যামেরা বসানো হয়েছে। এর মাধ্যমে রমজানের শুরু থেকে এখন পর্যন্ত মসজিদুল হারামে প্রবেশ করা সবার শরীরের তাপমাত্রা পরীক্ষা করা হয়েছে।

আরো পড়ুন: অত্যাধুনিক প্রযুক্তির সাহায্যে হাজরে আসওয়াদের সবচেয়ে স্বচ্ছ ছবি প্রকাশ

আল জাবেরি বলেন, তাপমাত্রা মাপার এই বিশেষ ক্যামেরা পর্যবেক্ষণের জন্য ৫০০ কর্মী নিযুক্ত করেছে জেনারেল প্রেসিডেন্সি।

মসজিদে হারামের প্রবেশকারীদের শরীরের তাপমাত্রা পরীক্ষা করতে প্রবেশদ্বারগুলোতে ৭০ টি ক্যামেরা নিযুক্ত করা হয়েছে।

আল জাবেরী জানিয়েছেন, তাপমাত্রা মাপার বিশেষ এই ক্যামেরাগুলো মানুষের শরীরে তাপের বিষয়টি পর্যবেক্ষণে রাখে এবং কারো শরিরে করোনাভাইরাসের কোন লক্ষণ পাওয়া গেলে বিশেষ সংকেতের মাধ্যমে তা জানিয়ে দেয়। তাপ মাপার ক্যামেরা গুলোর মাধ্যমে ৬ মিটার দূর পর্যন্ত একজন মানুষের শরীরের তাপমাত্রা পরীক্ষা করা যায়।

আরো পড়ুন: রমজানের শেষ দশককে সামনে রেখে হারামাইন কর্তৃপক্ষের বাড়তি প্রস্তুতি

আল আরাবিয়া ডট নেট থেকে নুরুদ্দীন তাসলিমের অনুবাদ।

এটি

সর্বশেষ সব সংবাদ