fbpx
           
       
           
       
যুক্তরাজ্যে মিয়ানমারের রাষ্ট্রদূতকে আটকে রাখার অভিযোগ
এপ্রিল ০৮, ২০২১ ৯:০৪ অপরাহ্ণ

আওয়ার ইসলাম: যুক্তরাজ্যের লন্ডনে অবস্থিত মিয়ানমার দূতাবাসের রাষ্ট্রদূত কিয়াও জর মিন’কে বাহিরে আটকে রাখা হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে। তিনি এটিকে ‘লন্ডনের মধ্যে এক ধরনের অভ্যুত্থান’ বলে বর্ণনা করেন। বলেন, ‘এ ধরণের অভ্যুত্থান সংঘটিত হতে পারে না।’ আজ বৃহস্পতিবার (৮ এপ্রিল) এ খবর প্রকাশ করেছে সিএনএন।

কিয়াও জর মিন বলেন, বুধবার দূতাবাসে প্রবেশের জন্য তিনি ঘণ্টার পর ঘণ্টা চেষ্টা করেন। কিন্তু ঢুকতে পারেননি। বেশ কয়েকজন কর্মী এখনো দূতাবাস ভবনের ভেতর আটকে আছেন, তাদের বের হওয়ার অনুমতি দেওয়া হচ্ছে না।

সূত্র জানিয়েছে, লন্ডনে ভবনটির নিয়ন্ত্রণে নিয়েছে মিয়ানমার সেনাবাহিনী। তারা সেখানে একজন শিশুসহ অন্তত ৭ জনকে আটকে রেখেছে।

এ বিষয়ে প্রতিক্রিয়া জানার জন্য মিয়ানমার সেনাবাহিনীর সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা করেছিল সিএনএন। কিন্তু দূতাবাসের ভেতরে কেউ ফোন রিসিভ করেনি এবং ইমেইলও ফিরে এসেছে।

এদিকে, মিয়ানমারের উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলের তেইজ শহরে নিরাপত্তা বাহিনীর গুলিতে ১১ অভ্যুত্থানবিরোধী বিক্ষোভকারী নিহত হয়েছে। আহত হয়েছেন আরও ২০ জন। বুধবার ৭ এপ্রিল রাত থেকে বৃহস্পতিবার সকাল পর্যন্ত সংঘর্ষ চলে।

বার্তা সংস্থা রয়টার্সের বরাতে জানা যায়, উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলের তেইজ শহরে নিরাপত্তা বাহিনী ছয় ট্রাকভর্তি সেনা সদস্য নিয়ে অভিযান শুরু করলে বিক্ষোভকারীরা শিকারি বন্দুক, ছুরি ও পেট্রোল বোমা নিয়ে নিরাপত্তা বাহিনীর বিরুদ্ধে পাল্টা প্রতিরোধ গড়ে তোলার চেষ্টা করে। এসময় সেনাসদস্যদের আরও পাঁচটি ট্রাক ঘটনাস্থলে এসে হাজির হয়। দুই পক্ষের মধ্যে গোলাগুলিতে অন্তত ১১ জন বিক্ষোভকারী নিহত ও আরও ২০ জন আহত হন। তবে সংঘর্ষে কোনও সেনা সদস্যের হতাহত হওয়ার খবর পাওয়া যায়নি।

এনটি

সর্বশেষ সব সংবাদ