fbpx
           
       
           
       
শিরোনাম :
কোন পদ্ধতিতে পশু বর্গা বৈধ!
মার্চ ০৭, ২০২১ ১১:০১ পূর্বাহ্ণ

প্রশ্ন: আমাদের এলাকায় গরু ছাগল বর্গা দেয়ার নিয়ম হল, বর্গা গ্রহণকারী গরু বা ছাগলটিকে নিজ খরচে লালন-পালন করবে এরপর বিক্রি করলে শুধু তার লভ্যাংশের অর্ধাঅর্ধি বর্গাদাতা ও বর্গাগ্রহিতা ভাগ করে নিবে। আর ছাগলের দুটো বাচ্চা হলে দু’জনেই একটা একটা করে নিবে। আমার জানার বিষয় হল, উক্ত পদ্ধতি কি বৈধ?
নিবেদক
আবদুল্লাহ
ঢাকা

জবাব: হানাফি মাযহাব অনুযায়ী প্রশ্নোল্লিখিত পদ্ধতি বৈধ নয়। তবে বর্গাদাতা ও বর্গা গ্রহিতার মধ্যে কোন ঝামেলা না হলে উক্ত পদ্ধতিতেও বর্গা দেয়া যাবে। কারণ এ পদ্ধতি আমাদের মাযহাব অনুযায়ী জায়েয না হলেও হাম্বলী মাযহাব অনুযায়ী জায়েয। বর্তমানে এ পদ্ধতির প্রচলন ব্যাপক হওয়ায় হাকিমুল উম্মত মুজাদ্দিদে মিল্লাত হযরত আশরাফ আলী থানবী রহ. হাম্বলী মাযহাব অনুযায়ী ফতোয়া দিয়েছেন।

হানাফি মাযহাব অনুযায়ী কেউ উক্ত পদ্ধতিতে বর্গা দিতে চাইলে তার জায়েয পদ্ধতি হল, প্রথমে গরু বা ছাগলের মূল্য নির্ধারণ করতে হবে। যেমন একটি গরুর মূল্য চল্লিশ হাজার টাকা। অতপর অর্ধেক গরু অর্ধেক দামে তথা বিশ হাজার টাকায় বর্গা গ্রহণকারীর নিকট বিক্রি করবে এবং বাকি অর্ধেক মূল্য সে অপারগ হলে ক্ষমা করে দিবে অথবা পরবর্তীতে তার সুবিধা মত সময়ে পরিশোধ করার সুযোগ দিবে। এরপর বর্গা গ্রহণকারী গরু বা ছাগল লালন-পালন করতে থাকবে। লালন-পালন শেষে তারা উভয়ে গরু ছাগল, দুধ ও বিক্রি পরবর্তি লভ্যাংশতে অর্ধাঅর্ধি মালিক হবে। আর লালন-পালনের খরচ উভয়ে সমান ভাবে বহন করবে। আর এ পদ্ধতিই উত্তম।

المراجع والمصادر:
(১) الدر المختار:৪/৩২৭
وعلي هذا إذا دفع البقرة من بالعلف ليكون الحادث بينهما نصفين فما حدث فهو لصاحب البقر وللأخر مثل علفه وأجر مثله . (২) الفتاوى الهندية ৪/৪৮১
دفع بقرة إلي رجل علي أن يعلفها وما يكون من اللبن والسمن بينهما أنصافا فالإجارة فاسدة …والحيلة في جوازه أن يبيع نصف البقرة منه بثمنه يبرئه عنه ثم يأمر بإتخاذ اللبن والمصل فيكون بينهما.
(৩) الفتاوي التاتارخانية : ৭/৫০৪
ولو أن رجلا دفع دابة إلي رجل ليؤاجرها ز…فهذه الشركة فاسدة والأجر كله لرب الدابة …
(৪) المحيط البرهاني :৮/৩৯৮
قال أبو حنيفة: ولو أن رجلاً دفع دابة إلى رجل ليؤاجرها؛ على أن ما آجرها من شيء، فهو بينهما نصفان، فهذه الشركة فاسدة، والأجر كله لرب الدابة، وللذي آجرها أجر مثل عمله.
(৫) امداد الفتاوی ৩/৩৪৩
پس حنفیہ کے قواعد پر تو یہ عقد ناجائز ہے، کما نقل فی السوال عن عالمگریہ لیکن بنابرنقل بعض اصحاب امام احمد کے نزدیک اس میں جواز کی گنجائش ہے۔پس تحرز احوط ہے، اور جہاں ابتلاء شدید ہو توسع کیا جا سکتاہے۔
(৬)فتاوی محمودیہ :২৫/ ৩ ১৯
یہ صورۃ جائز نہیں – گا ۓ کی قیمت متعین کر کے مثلا دس روپیہ اسکا نصف حصہ پانچ روپیہ میں فروخت کردیا جاۓ اور پھر وہ پانچ روپیہ معاف کردیا جاۓ اور وہ پرورش کرتا رہے اس صورت میں وہ نصف کا شریک رہےگا ،دودھ بچے اور خود یہ گاۓ سب نصفا نصف رہےگی اس طرح درست ہے ۔

উত্তর লিখনে
আবুল ফাতাহ কাসেমি
উস্তাদ, জামিয়া কারীমিয়া আরাবিয়া রামপুরা, ঢাকা।

-এএ

সর্বশেষ সব সংবাদ