fbpx
           
       
           
       
শিরোনাম :
ওষুধে মানুষের অঙ্গ ব্যবহার করা জায়েয হবে কি!
ফেব্রুয়ারি ১৪, ২০২১ ৩:৩৫ অপরাহ্ণ

প্রশ্ন: হুজুর আমি একজন ইউনানী চিকিৎসক। নিজেই ওষুধ তৈরি করি। ওষুধ তৈরিতে কখনো হারাম বস্তু ও মানুষের চুল ব্যবহার করে থাকি। আমার জন্য হারাম বস্তু ও মানুষের চুল ক্রয় এবং তা ওষুধে ব্যবহার করা জায়েয হবে কিনা?
নিবেদক
হাকীম জামাল উদ্দীন
লালমোহন, ভোলা

জবাব: হারাম বস্তু ও মানুষের অঙ্গ প্রত্যঙ্গ ক্রয় বিক্রয় করা এবং তা ওষুধে ব্যবহার করা জায়েয নেই। তবে রুগির মৃত্যুর আশংকা থাকলে অনুন্যপায় হয়ে তা ব্যবহার করতে পারবেন।

المراجع والمصادر
১ . صحيح البخارىرقم الحديث – ৫৫৮৯
عن أبي هريرة رضي الله عنه: عن النبي صلى الله عليه و سلم قال لعن الله الواصلة والمستوصلة والواشمة والمستوشمة.٢
২. ردالمحتار -১ /২১(سعيد)
والآدمي مكرم شرعا وإن كان كافرا فإيراد العقد عليه وابتذاله به وإلحاقه بالجمادات إذلال له .
٣.الدرالمختار -১/২১(سعيد)
فروع: اختلف في التداوي بالمحرم … وقيل يرخص إذا علم فيه الشفاء ولم يعلم دواء آخر كما رخص الخمر للعطشان، وعليه الفتوى.
৪. الفتاوى الهندية، الباب الثامن عشر ৫/৪০৯ زكريا
الانتفاع باجزاء الادمى لم يجز قيل للنجاسة وقيل للكرامة وهو الصحيح.
৫. البحرالرائق، باب البيع الفاسد ৬/১৩৩ دار الكتب العلمية.
قوله: وشعر الإنسان والانتفاع به أي لم يجز بيعه والانتفاع به لأن الآدمي مكرم غير مبتذل فلا يجوز أن يكون شيء من أجزائه مهانا مبتذلا.
৬. قواعد الفقة للبركتى القاعدة: الضرورات تبيح المحظورات.
৭. کتاب النوازل ১৫/৫২০
عورتوں کے گرے ہوۓ بالوں کی خريد و فروخت شرعا جائز نہيں ہے۔ کيوں کہ انسان کے کسی جزو بدن کو فروحت کرنے کی اجازت نہين۔

উত্তর লিখনে
মুফতি আবুল ফাতাহ কাসেমি
উস্তাদ, জামিয়া কারীমিয়া আরাবিয়া রামপুরা, ঢাকা।

-এএ

সর্বশেষ সব সংবাদ