fbpx
           
       
           
       
এবার বামপন্থিদের দুষছেন ট্রাম্প
জানুয়ারি ১২, ২০২১ ১০:০১ অপরাহ্ণ

আওয়ার ইসলাম: যুক্তরাষ্ট্রের আমেরিকার কংগ্রেসভবন-ক্যাপিটল হিলে হামলায় উস্কানির অভিযোগে অভিশংসনের চাপে থাকা প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ওই ঘটনার জন্য গোপনে যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক ফ্যাসিজমবিরোধী আন্দোলনের পথিকৃৎ র‌্যাডিকেল বামপন্থিদের সংগঠন অ্যান্টি ফ্যাসিস্ট অ্যাকশনকে (অ্যান্টিফা) দোষারোপ করছেন।

এক্সিয়োস ওয়েবসাইটের বরাত দিয়ে আল জাজিরার খবরে বলা হয়েছে, ভিডিওতে তাণ্ডবকারীরা ডোনাল্ড ট্রাম্পের সমর্থক এটা স্পষ্ট হওয়ার পরও ডোনাল্ড ট্রাম্প এমন দাবি করছেন।

খবরে বলা হয়, সোমবার সকালে ডোনাল্ড ট্রাম্প সংখ্যালঘু নেতা কেভিন ম্যাকার্থির সঙ্গে ৩০ মিনিটেরও বেশি সময় এক ফোন কলে এমন মন্তব্য করেন। এক্সিয়োস ওয়েবসাইট হোয়াইট হাউসের সরকারি কর্মকর্তা এবং ফোন কলের সঙ্গে সম্পৃক্ত অন্যদের বরাত দিয়ে ওই রিপোর্ট করেছে।

ট্রাম্পের কথার জবাবে সংখ্যালঘু নেতা কেভিন ম্যাকার্থি বলেন, অ্যান্টিফা না, বরং ট্রাম্প সমর্থকরাই ওই হামলা করেছে। তিনি সেখানে ছিলেন এবং সত্যটা জানেন। ট্রাম্পকে পাল্টা এমন জবাব দিয়ে নির্বাচিত প্রেসিডেন্ট জো-বাইডেনকে কল দিয়ে শুভেচ্ছা বার্তা জানানোরও পরামর্শ দেন ম্যাকার্থি ফ্যাসিজমবিরোধী আন্দোলনকারীরা (অ্যান্টিফা) পূর্বের বছরগুলোতে কট্টর ডানপন্থিদের সঙ্গে অতীতে কয়েক দফায় সংঘর্ষে জড়িয়েছে।

গত বছরের মে মাসে মিনেসোটা শহরের মিনিয়াপোলিসে পুলিশের হাতে আটককৃত অবস্থায় নিরস্ত্র কৃষ্ণাঙ্গ জর্জ ফ্লয়েড নিহত হওয়ার পর অ্যান্টিফো ব্যানারে বিক্ষোভ শুরু হলে ট্রাম্প এই সংগঠনকে ‘সন্ত্রাসী’ হিসেবে তালিকাভুক্তির ঘোষণা দেন।

উল্লেখ্য, গত বুধবার ট্রাম্প সর্মথকরা র‌্যালির পর ক্যাপটিল হিলে তাণ্ডব চালায়। অধকিাংশ ডেমোক্র্যাট এবং কিছু রিপাবলিকান কংগ্রসে ভবন ভাঙচুর ও ধ্বংসের ঘটনায় ট্রাম্পকে দায়ী করছেন। তাদের অভিযোগ ‘ট্রাম্প মিথ্যা তথ্য দিয়ে সহিংসতা উস্কে দিয়েছেন।’ ওই ঘটনায় এক পুলিশ র্কমর্কতাসহ পাঁচজন নিহত হয়।

যুক্তরাষ্ট্রের ইতিহাসে কলঙ্কজনক ওই ঘটনার পর থেকে ডেমোক্র্যাট এবং রিপাবলিকানরা ট্রাম্পকে প্রেসিডেন্ট পদ থেকে সরানোর দাবি তুলেছেন। ইতোমধ্যে ডেমোক্র্যাটরা ট্রাম্পের অভিসংশনের প্রস্তাব এনেছেন। এর ওপর আগামী বুধবার ভোট অনুষ্ঠিত হবে।

-এটি

সর্বশেষ সব সংবাদ