fbpx
           
       
           
       
শিরোনাম :
যেভাবে দুর্ঘটনার শিকার হোন প্রবাসী মিডিয়া ব্যক্তিত্ব মাওলানা মুহা. শহীদুল্লাহ
জানুয়ারি ০৪, ২০২১ ১০:১১ পূর্বাহ্ণ

কাউসার লাবীব: যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্কের বাফেলো সিটিতে বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় (৩১ ডিসেম্বর)  স্বপরিবারে সড়ক দুর্ঘটনার শিকার হন স্কলার, শিক্ষক, কমিউনিটি অ্যাক্টিভিস্ট, জনপ্রিয় মিডিয়া ব্যক্তিত্ব, আইটিভি ইউএস ও এফএম-৭৮৬ এর সিও মুহাম্মদ শহীদুল্লাহ। দুর্ঘটনার পর পরিবারের অন্যরা প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়ে বাসায় ফিরে যান কিছুক্ষণের মধ্যেই। তবে প্রায় ১৬ ঘণ্টা হাসপাতালে থাকার পর ছাড়া পান এই ইন্টারফেইথ স্কলার।

দুর্ঘটনা সম্পর্কে মুহাম্মদ  শহীদুল্লাহ জানান, কমিউনিটির একজন ইমামকে সহায়তার জন্য  ৩০ ডিসেম্বর নিউইয়র্ক থেকে বাফেলোতে গিয়েছিলেন তিনি। পরের দিন সন্ধ্যায় ফেরার পথে তার গাড়িটি ইন্টারসেকশনে দাঁড়ানো ছিল। তখন শাদা কালারের একটি জিপ পেছন থেকে তার গাড়িকে ধাক্কা দিলে ড্রাইভিং সিটে থাকা মুহাম্মদ শহীদুল্লাহসহ গাড়িতে থাকা তার পরিবারের অন্যান্য সদস্যরা দুর্ঘটনার শিকার হয়ে আঘাত প্রাপ্ত হন।

তিনি আরো জানান, এরপর স্থানীয় একটি এম্বুলেন্সে করে দ্রুত তাদেরকে ইসিএমসি হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে ডা. লোবিক ক্যারির তত্ত্বাবধানে তিনি ও তার পরিবার চিকিৎসা গ্রহণ করেন। তার পরিবারের অন্যান্যদের প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে ছাড়পত্র দেয়া হয়। কিন্তু মুহাম্মদ শহীদুল্লাহ দীর্ঘ ১৬ ঘণ্টা ট্রিটমেন্ট নেয়ার পর ছাড়পত্র পান। এবং স্থানীয় একজনের বাসায় ফেরেন।

এরপর ডাক্তারের পরামর্শে দু’দিন পর তার নিউইয়র্কের বাসায়  ফেরেন। বর্তমানে তিনি তার নিজ বাসায় চিকিৎসাধীন আছেন।

এ দুর্ঘটনায় আহত জনপ্রিয় মিডিয়া ব্যক্তিত্ব মুহাম্মদ শহীদুল্লাহর সুস্থতা কামনায় সবার কাছে দোয়া চেয়েছেন, বাফেলো বাংলার সম্পাদক সিনিয়র সাংবাদিক নিয়াজ মাখদুম,  সাংবাদিক মোহাম্মদ আরিফ, সাংবাদিক আবিদুর রহিম,  বিআইসিসি মসজিদের পেসিডেন্ট আলহাজ আবদুল কাইয়ুম, ইমাম ওয়ালি ‍উল্লাহ, খতিব আব্দুল হাকিম আজাদী, ইসলামিক সেন্টার অব নর্থ মায়ামির ইমাম ও খতিব হাফিজ মাওলানা মুফতি ফখরুল ইসলাম আলমগীর, মসজিদুল মোমেনিনের শিক্ষক হাফিজ  আবু জুনাইদ বশির, হাফেজ ফুয়াদ আব্দুল হামিদ আজাদী, দারুস সালাম মসজিদের ইমাম ও খতিব শাইখ ইমাম মোহাম্মদ আব্দুল মুকিত, জ্যামাইকা মুসলিম সেন্টারের কোরআনিক ইনস্ট্রাক্টর  শেখ মাওলানা আহমদ আবু সুফিয়ান।

এছাড়াও দোয়া চেয়েছেন, বাসমা ফাউন্ডেশনের প্রতিষ্ঠাতা ও সিইও হাফিজ মীর হোসাইন, জ্যামাইকা মুসলিম সেন্টারের ইমাম আবু জাফর বেগ, ইউনাইটেড ইমাম ওলামা কাউন্সিলের প্রেসিডেন্ট ইমাম রফিক আহমদ রেফাহী, আন-নূর কালচারাল সেন্টারের প্রিন্সিপাল মুফতি ইসমাইল, সেল্টার রক ইসলামিক সেন্টারের প্রেসিডেন্ট তারিক সাঈদ, বাংলা নিউজ সম্পাদক খোরাসান, নেত্রকোণা সমিতির আবুল বাশার, বায়তুল আমান মসজিদের ইমাম আজির উদ্দীন, বাংলাদেশ সোসাইটির কোষাধ্যক্ষ মোহাম্মদ আলী, জ্যামাইকা বাংলাদেশ ফ্রেন্ডস সোসাইটির প্রেসিডেন্ট ফখরুল ইসলাম দেলোয়ার, বাপস নিউজ এর এডিটর হাকিকুল ইসলাম খোকন, কমিউনিটি লিডার এম আলম, জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের এলামনাই মোহামেদ কাশেম, কমিউনিটি অ্যাক্টিভিস্ট খাইরুল ইসলাম খোকন, বাংলাদেশ সোসাইটির সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ রুহুল আমীন সিদ্দিকি, জ্যামাইকা বাংলাদেশ সোসাইটির সেক্রেটারি জেনারেল সৈয়দ আল আমিন, বাংলাদেশ অ্যামেরিকান অ্যাডভোকেসি গ্রুপের প্রেসিডেন্ট  ইঞ্জিনিয়ার কামাল ভূইয়া, জ্যামাইকা মুসলিম সেন্টারের পরিচালক ড. ইমাম শামসী আলী, সিটি ইউনিভার্সিটি অব নিউইয়র্কের প্রফেসর ইন্টারফেইথ লিডার ড. রেমি আলাপ্পো, হেইওয়া রিকনসিলেশন অব নিউইয়র্কের প্রেসিডেন্ট জাতিসংঘের আন্তঃধর্মীয় লিডার  ড. টিকে নাকাগাকি, হাফেজ ফুয়াদ আব্দুল হামিদ আজাদসহ আরও অনেক শুভাকাঙ্ক্ষি-স্বজন-ইন্টারফেইথের নেতা ও কমিউনিটি লিডাররা।

 

সর্বশেষ সব সংবাদ