fbpx
           
       
           
       
জামিয়াতুল উস্তায শহিদুল্লাহ ফজলুল বারী রাহি. ওয়াশপুর (মোহাম্মদপুর) ঢাকা
ডিসেম্বর ২০, ২০২০ ৯:৪২ পূর্বাহ্ণ

প্রায় অর্ধ যুগ ধরে আরবি ভাষার অনন্য ভূবন ‘জামিয়াতুল উস্তায শহীদুল্লাহ ফজলুল বারী রহ.’ কওমি অঙ্গনে আরবি ভাষার মানোন্নয়নের জন্য কাজ করে যাচ্ছে। কার্যকরী কৌশল প্রয়োগের মাধ্যমে ছাত্রদের মাঝে কোরআনী ভাষার স্বচ্ছ আলো বিলিয়ে দেয়ার ক্ষেত্রে প্রতিষ্ঠানটির তুলনা হয় না।

এরই ধারাবাহিকতায় চলমান আরবি সাহিত্য বিভাগের পাশাপাশি ‘জামিয়াতুল উস্তায শহীদুল্লাহ ফজলুল বারী রহ.’ এর আঙ্গিনায় যুক্ত হচ্ছে নতুন কিছু বিভাগ। বিভাগগুলো হলো- মিযান, নাহুমীর, হেদায়াতুন্নাহু ও কাফিয়া। ‘ছোটদেরকে আরবি পড়তে উৎসাহী করা চাই’ এ প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে নতুন যুক্ত হওয়া প্রতিটি বিভাগেই থাকবে আরবি ভাষার নির্মল ভূবনের অকৃত্রিম ছোঁয়া। থাকবে আধুনিক ও কাদিম আরবির অপূর্ব সমন্বয়। আরবি বলা ও লেখার দুর্বলতা এবং জড়তা দূর করণে নেয়া হবে কার্যকরী পদক্ষেপ। ইনশাআল্লাহ।

আমরা অনেকেই সংকল্প করি টেনেটুনে দাওরাটা পাশ করি; এরপর আদব আরবিতে ভাল দক্ষতা অর্জন করবো। আসলে এর বাস্তবতা কতটুকু! দাওরায়ে হাদিস পাশ করে আরবি পড়ার মনসিকতা কতখানিই বা থাকে? এক বছর!! এক বছরে কী অর্জন হয়? অনেক কিছু হয় কিন্তু অনেক কিছুই বাকি থেকে যায়। মিযান থেকে শুরু করে দাওরায়ে হাদিস পর্যন্ত দীর্ঘ সময়ে ভাল একটা পুঁজি নিয়ে না আসতে পারলে, এক বছরে বেশি কিছু অর্জন সম্ভব নয়। এর বাস্তব প্রমাণ আমাদের ছাত্ররাই। সুতরাং একটা ছাত্র নিচের ক্লাসে থেকেই আরবি চর্চায় অভ্যস্ত হয়ে ওঠা শিক্ষাজীবনে (অবহেলিত হলেও) অপরিহার্য।

জামিয়ার কিতাব বিভাগে যাদেরকে আমন্ত্রণ:- যারা কাদিম নেসাব (দরসে নেযামি) পড়েও আধুনিক আরবিতে দক্ষতা অর্জন করতে চান। প্রাথমিক ক্লাসগুলো থেকেই যারা আরবি ইবারত পড়ার যোগ্যতা অর্জন করতে চান। দূর করতে চান আরবি ভীতি। আপন করতে চান কোরআন হাদিসের এ ভাষাকে।

 

‘জামিয়াতুল উস্তায শহীদুল্লাহ ফজলুল বারী রহ.’ এর কিতাব বিভাগের কিছু বৈশিষ্ট্য

মিযান জামাত:-

১. মিযান জামাতে সরফের প্রতি সর্বোচ্চ গুরুত্ব দেয়া হবে।
২. প্রথম দুই মাসের মধ্যেই সরফ ভালো করে আত্মস্থ করানো হবে।
৩. প্রথম দুই মাসে অন্য কোনো বিষয় থাকবে না। সকাল থেকে রাত পর্যন্ত শুধু সরফের আলোচনা, তামরীন ও গর্দান চলবে।
৪. দুই মাস পর সরফের জন্য দুই ঘন্টা ও এসো আরবি শিখি এর জন্য দুই ঘন্টা এবং অন্যান্য বিষয়ের( উর্দু) জন্য এক ঘন্টা বরাদ্দ থাকবে।
৫. সারা বছরে খুব প্রয়োজনীয় এক হাজার ফেয়েল ও এক হাজার ইসিম মুখস্থ করানো হবে।

নাহুমীর জামাত:-
১. নাহুমীর জামাতে নাহু এর প্রতি সর্বোচ্চ গুরুত্ব দেয়া হবে।
২.প্রথম তিন মাসের মধ্যেই নাহুমীর কিতাবটি ভালো করে আত্মস্থ করানো হবে ।
৩. তিন মাস পর নাহুর ঘন্টায় নাহুমীর কিতাবটি সামনে রেখে প্রচুর পরিমাণে তামরীন ও অনুশীলনের মাধ্যমে কাওয়ায়েদ-এর বাস্তব প্রয়োগ করানো হবে ।
৪. সরফের জন্য ইলমুস সরফ ( উর্দু) তিন মাসের মধ্যেই আত্মস্থ করানোর পর সারা বছর সরফের অনুশীলন চলবে।
৫. দরসে নেযামির অন্যান্য কিতাবগুলো পাঠ্যপুস্তক হিসেবে থাকবেই।
৬. ‘মা-লা-বুদ্দা মিনহু’ এর জায়গায় ‘আল-ফিকহুল মুয়াসসার’ এবং ‘মা-লা-বুদ্দা মিনহু’ এর আরবি সংস্করণ থাকবে।
৭. মাহারাতুল কিরাআ বা ইবারত পড়তে অভ্যস্ত করানোর জন্য বাচ্চাদের উপযোগী সহজ সহজ গল্পের বই ক্লাসে যোগ করা হবে।
৮. সারা বছরে খুব প্রয়োজনীয় এক হাজার ফেয়েল ও এক হাজার ইসিম মুখস্থ করানো হবে।

হিদায়াতুন্নাহু জামাত:-
১. হিদায়াতুন্নাহু জামাত থেকেই শিক্ষার্থীরা যাতে মাহারাতুল কিরাআ বা ইবারত পড়ার যোগ্যতা অর্জন করতে পারে সেজন্য সর্বোচ্চ গুরুত্ব দেয়া হবে।
২.প্রথম এক মাসের মধ্যেই হিদায়াতুনাহু কিতাবটির মৌলিক মাসাইলগুলো ভালো করে আত্মস্থ করানো হবে।
৩. পরবর্তী চার মাসের মধ্যেই হিদায়াতুন্নাহু কিতাবটি পড়ানো শেষ করে প্রচুর পরিমাণে তামরীন ও অনুশীলনের মাধ্যমে কাওয়ায়েদ-এর বাস্তব প্রয়োগ করানো হবে।
৪. সারা বছর নুরুল ইযাহ কিতাবের পাশাপাশি ১০০ আহাদিসুল আহকাম পড়ানো ও মুখস্থ করানো হবে।
৫. দরসে নেযামির অন্যান্য কিতাবগুলো পাঠ্যপুস্তক হিসেবে থাকবেই।
৬. আমাদের লিখিত মুজামুল আফআল কিতাবটি আত্মস্থ ও মুখস্থ করানো হবে।
৭. মাহারাতুল কিরাআ বা ইবারত পড়তে অভ্যস্ত করানোর জন্য সহজ সহজ ছোট বাচ্চাদের গল্পের বই ক্লাসে যোগ করা হবে।
৮. সারা বছরে খুব প্রয়োজনীয় এক হাজার ফেয়েল ও এক হাজার ইসিম মুখস্থ করানো হবে।

কাফিয়া জামাত:-
১. কাফিয়া জামাত থেকেই শিক্ষার্থীরা যাতে মাহারাতুল কিরাআ বা ইবারত পড়ার যোগ্যতা অর্জন করতে পারে সেজন্য সর্বোচ্চ      গুরুত্ব দেয়া হবে।
২. উসূলুশ শাশী পুরো শিক্ষা বছরে দরসেই শেষ করা হবে।
৩. উসূল ভালো করে আত্মস্থ করার জন্য প্রথমে মাবাদিউল উসূল পড়ানো হবে।
৪. সারা বছর মুখতাসারুল কুদূরী কিতাবের পাশাপাশি ১৫০ আহাদিসুল আহকাম পড়ানো ও মুখস্থ করানো হবে।
৫. দরসে নেযামির অন্যান্য কিতাবগুলো ( দুরুসুল বালাগাহ, তরজমাতুল কুরআন) পাঠ্যপুস্তক হিসেবে তো থাকবেই।
৬. আমাদের লিখিত মুজামুল আফআল কিতাবটি আত্মস্থ ও মুখস্থ করানো হবে।
৭. দরসে নেযামির অন্যান্য বিষয়ের পাশাপাশি দুই ঘন্টা বরাদ্দ থাকবে আরবি ভাষায় দক্ষতা অর্জনের জন্য। এক ঘন্টায় সারা বছর বিভিন্ন আরবি সাহিত্যের কিতাব পড়ানো হবে। অন্য ঘন্টায় ইনশা, আরবি কথোককথন ও ভাষাসংক্রান্ত অন্যান্য বিষয়াবলি থাকবে।
৮. শব্দ ভান্ডার সমৃদ্ধ করার জন্য প্রয়োজনীয় দুই হাজার শব্দ মুখস্থ করানো হবে।

 

 

‘জামিয়াতুল উস্তায শহীদুল্লাহ ফজলুল বারী রহ.’ এর আরবি ভাষা ও সাহিত্য বিভাগ (আদব)

 

‘মেধাবী ও মধ্যম পর্যায়ের ছাত্ররা এগিয়ে আসুক আরবি ভাষা ও সাহিত্যের পথে’ এ প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে প্রায় অর্ধ যুগ আগে আরবি ভাষার অঙ্গনে ‘জামিয়াতুল উস্তায শহীদুল্লাহ ফজলুল বারী রহ.’ পথ চলা শুরু করে। পথ চলায় নতুন করে কিতাব বিভাগকে সঙ্গী করায় জামিয়ার আরবি ভাষা ও সাহিত্য বিভাগে কোনো বিঘ্নতা হবে না ইনশাআল্লাহ। কেননা প্রতিষ্ঠানটি সেই শুরু থেকেই বলে আসছে-

অনেক ভাই মনে করেন, ‘আরবি ভাষা ও সাহিত্য বিভাগ শুধু তাদের জন্য, যারা নাহু-সরফ এবং আরবি পড়তে দুর্বল । বিপরীতে যারা এ ধরণের দুর্বলতায় ভোগেন না তাদের আরবি ভাষা ও সাহিত্য বিভাগে পড়ার কোন অর্থ হয় না। কিংবা পড়তে চাইলেও খণ্ডকালীন এক দুটি কোর্সেই যথেষ্ট।’ অথচ বাস্তব সত্য হল, ভালো ছাত্রদেরই আরবি ভাষা ও সাহিত্য বিভাগ পড়া দরকার । যারা দুর্বল তারা সাহিত্যের কী বুঝবে! তাদের তো আরবির প্রাথমিক জ্ঞান নাহুসরফ-ই ঠিক নেই। ভাষা ও সাহিত্য এত সহজ নয় যে, সবাই তা গলদকরণ করতে পারবে।

আরবি ভাষা ও সাহিত্য জানা মানে এই নয়, দু’টি কথা বলতে পারলাম। দুটো লাইন লিখতে পারলাম। বরং বলা যায়, এক বছর আরবি পড়ে বা এক দু’টি কোর্স করে নিজেদের যারা সাহিত্যিক বলে জাহির করতে থাকেন; ভাষা ও সাহিত্য শব্দের অর্থ ও গভীরতাই তারা বুঝতে পারেনি। ভাষা ও সাহিত্যের গভীরতা বুঝতে হবে, সামান্য দক্ষতায় সন্তুষ্ট হওয়ার সুযোগ নেই।

ভাষা ও সাহিত্য স্বতন্ত্র একটি তাখাসসুস বা শাস্ত্র, উলূমুল হাদিস বা ইফতায় যেমন ভাল শিক্ষার্থী প্রয়োজন; ভাষা ও সাহিত্যের ক্ষেত্রে এমনই। বরং ভাল ছাত্রের অভাবেই আরবি ভাষা ও সাহিত্য বিভাগগুলোর অবস্থা আজ নাজেহাল। কওমি অঙ্গণে মৌলিক একটি শাস্ত্র হিসাবে সকলের কাছ থেকে স্বীকৃতি এ শাস্ত্রের উন্নতির জন্য বড়ই প্রয়োজন। পাশাপাশি উন্নত মেধা ও পরিশ্রমী ছাত্রদের পথের দিকে তাকিয়ে আছে বাংলাদেশের আরবি ভাষা ও সাহিত্যের নির্মল ভূবন।

জামিয়ার আদবের বিভাগসমূহ-

এক- মুসতাওয়া মুতাকাদ্দিম
দুই- মুসতাওয়া মুতাওয়াসসিত
তিন- মুতাওয়াসসিত ইদাদি

আদব বিভাগের বৈশিষ্ট্য

এক- ২০ এর অধিক আরবি সাহিত্যের কিতাব পাঠদান ও মাতাআলা শোনার মাধ্যমে আরবি সাহিত্যের সাথে পরিচিতি ও যাওক্ব তৈরি।
দুই- পাশাপাশি মিডিয়া আরবি ও ব্যবহারিক আরবির ওপর বিশেষ গুরুত্ব প্রদান।
তিন- সর্বদা আরবি কথোপকথন ও নিয়মিত রোজনামচা লেখানো ও সম্পাদনা।
চার- মুতাওয়াসসিত ইদাদির বৈশিষ্ট্য: ইবারত চালু করাকে মূল রেখে সাহিত্যের অন্যান্য বিষয়ে আংশিক পাঠদান

জামিয়ার প্রচালিত খণ্ডকালীন কোর্সে দু’টি গ্রুপে আরবি ভাষা ও সাহিত্য নিয়ে মেহনত করা হয়ে থাকে।

এক- ক (কাফিয়া থেকে দাওরায়ে হাদিস ও ফারেগিন নাহু সরফে সবল)
দুই- খ (নাহবেমীর, হেদায়ান নাহু ও নাহু সরফে দুর্বল ফারেগিন)

কোর্সের মেয়াদ- এক- ১৬ শাবান থেকে ২৫ শাবান। দুই- ১ রমজান থেকে ২০ রমজান।

ক-গ্রুপে যে বিষয়গুলো নিয়ে মেহনত করা হয়:-

১. আরবী ও বাংলা অনুবাদ
২. আধুনিক মিডিয়া ভাষা
৩. আধুনিক ব্যবহার
৪. আরবিতে বক্তব্যপ্রদান অনুশীলন
৫. আরবি কথোপ-কথন
৬. দরখাস্ত , চিঠিপত্র , শোকবার্তা ইত্যাদি ব্যবহারিক রচনা লেখার নিয়মকানুন

খ-গ্রুপে যে বিষয়গুলো নিয়ে মেহনত করা হয়:-

১. নাহু-সরফ
২. লেখার নিয়ম কানুন
৩. আরবি কথোপ-কথন
৪. দরখাস্ত লিখন
৫. আরবি বক্তৃতা
৬. বাক্যগঠন অনুশীলন
৭. সরল অনুবাদ ( আরবি ও বাংলা )
৮. সহজ মিডিয়ার ভাষা
৯. ইবারত পড়ার প্রশিক্ষণ

 

 

 

জামিয়ায় ‘সাহিত্য’ সম্পর্কিত যেসব কিতাব পড়ানো হয়

العبرات لمصلفى لطفي المنفلوطي
صور من حياة الصحابة لعبد الرحمن رأفت باشا
عبقرية محمد لعباس محمود العقاد
مختارات من أدب العرب للسيد على الحسن الندوي
ماذا خسر العالم بانحطاط المسلمين للمؤلف السابق
فتوّة العطوف لنجيب محفوظ
الأرواح المتمردة لجيران خليل جبران
هتاف المجد للسيد على الطنطاوي
نحو ثقافة إسلامية أصلية لسليمان العشقر
كليلة و دمنة لعبد الله بن المقفع
مقالاتي المختارة للأستاذ شهيد الله فضل الباري رح
مقتبسات من كتب الأدب القديم للأدباء القدامي
مختارات من الأشعار العربية

 

জামিয়ায় ‘ব্যবহারিক ভাষা’ সম্পর্কিত যেসব কিতাব পড়ানো হয়

(مقرر الصحف العربية ولغة الإعلام ، (مقتبسات

(المجلات العربية المعاصرة ، ( يتم تحديدها حسب المجلات المتاحة

المدخل إلى اللغة العربية الحديثة ، لمدير الجامعة

الإنشاء الوظيفي ، لأستاذ شهيد الله فضل الباري رح

 

 

 

জামিয়ায় ‘লিখিত বর্ণন’ বিষয়ে যেসব কিতাব পড়ানো হয়

دروس الأستاذ شهيد الله فضل الباري رح.

الدروس الإبداعية لأستاذ شفيق الإسلام الإمدادي

(دروس التعبير من القرأن السنة ( دروس إبداعية عملية لمدير الجامعة

كتاب التعبير العربي لمدير الجامعة

(الإملاء والخط ، ( ملخص القواعد

سلسلة علمني الكتابة ، لمدير الجامعة

كتاب الأسماء والأفعال ، لمدير الجامعة

(مواضيع ذات صلة ، ( منوعات

 

 

জামিয়ায় ‘মৌখিক বর্ণন’ বিষয়ে যেসব কিতাব পড়ানো হয়

المدخل إلى التحدث بالعربية ، لمدير الجامعة

كيف تكسب الطلاقة في التعبير ، لمدير الجامعة

(أربعون حوارا ، ( مقتبسات

فن الإلقاء والتقديم  ، لمدير الجامعة

 

নিজস্ব মোতালাআ’র সিলেবাস

القراءة الراشدة ، لسيد أبو الحسن على الندوي

الطريق إلى المدينة ، للمؤلف السابق

حكايات عمو محمود ، لمحمود المصري

 و 365 يوما مع صحابة نبينا الحبيب ، لطه كيلينك

مئة قصة ميسرة ، لناصف مصطفى عبد العزيز

نحو ثقافة إسلامية أصلية ، لعمر سليمان العشقر

استمتع بحياتك ، لمحمد بن عبد الرحمن العريقي

 

 

পরিচালনায় ও দরসদানে : শফীকুল ইসলাম আল-ইমদাদী
পরিচালক : জামিয়াতুল উস্তাদ শহীদুল্লাহ ফজলুল বারী (রহ.)
যোগাযোগ: ০১৯৮০-৪৫৬১৮১, ০১৭৮৪-১৩৯২৫৯, ০১৮৮২-৯৩১০৩২

সার্বিক নির্দেশনায় : শোয়াইব আব্দুর রউফ দা.বা.
মুহাদ্দিস ও সিনিয়র শিক্ষক : আল জামিয়াতুল ইমদাদিয়া , কিশোরগঞ্জ ।

সর্বশেষ সব সংবাদ