153613

‘শুক্রবারের ইসলামী ঐক্যজোটের বিক্ষোভ মিছিল সফল করুন’

আওয়ার ইসলাম: দাঁড়ী, টুপি ও টাখনুর উপর কাপড় পরাকে সন্দেহভাজন জঙ্গী সদস্য সনাক্তকরণের নিয়ামক বলে বিজ্ঞাপন প্রচার করায় ‘সম্প্রীতি বাংলাদেশ’ এর প্রধান পীযুষ বন্দোপাধ্যায়কে গ্রেফতার এবং ‘সম্প্রীতি বাংলাদেশ’ নামক সংগঠনকে নিষিদ্ধের দাবিতে আগামী শুক্রবার বাদ জুমা বায়তুল মোকাররম মসজিদের উত্তর গেইটে ইসলামী ঐক্যজোট আহুত বিক্ষোভ মিছিল কর্মসূচী সফল করার আহ্বান জানিয়েছেন জোটের মহাসচিব মুফতি ফয়জুল্লাহ।

আজ বুধবার সংবাদ মাধ্যমে পাঠানো এক বিবৃতিতে তিনি দেশের ইসলামপ্রিয় জনতার প্রতি এ আহবান জানান।

বিবৃতিতে তিনি বলেন, ইসলাম বিদ্বেষীরা ইসলামি চেতনাকে সবসময় নিজেদের নিরাপত্তার জন্য হুমকী মনে করে। তাই তারা ইসলাম ও ইসলামি ইবাদাত নির্মূলে রীতিমত যুদ্ধ শুরু করেছে।

তিনি বলেন, পূর্ণ মুসলিম হওয়ার অর্থই হলো শয়তানি চক্রের বিরুদ্ধে অনিবার্য লড়াইয়ের মুখোমুখি হওয়া। যেখানেই লাগাতার লড়াই, সেখানেই লাগাতর প্রশিক্ষণ জরুরি। নামাজ-রোজা-হজ্ব-জাকাত, দাঁড়ি , টখনোর উপরে কাপড় পরিধান ইত্যাদি ইবাদত মুসলিম জীবনে সে প্রশিক্ষণেরই অংশ।

কিন্তু এই দাঁড়ী টুপি ও টাখনুর উপর কাপড় পরাকে সন্দেহভাজন জঙ্গী সদস্য সনাক্তকরণের নিয়ামক বলে বিজ্ঞাপন প্রচার করে কথিত ‘সম্প্রীতি বাংলাদেশ’ এর প্রধান পীযুষ বন্দোপাধ্যায় মুসলমানদের জঙ্গী বানাতে মরিয়া হয়ে ওঠেছে।

মুফতি ফয়জুল্লাহ বলেন, তথাকথিত ‘ সম্প্রীতি বাংলাদেশ’ এবং এর প্রধান পীযুষ বন্দোপাধ্যায়ের বিরুদ্ধে শুধু মুসলিমদের নয়, অমুসলিমদের পক্ষ থেকেও সোচ্চার প্রতিবাদ হওয়া প্রয়োজন।

মসজিদে মসজিদে যদি হিন্দু-বৌদ্ধ-খ্রিস্টান সম্প্রদায়ের অধিকার রক্ষার আলোচনা কাম্য হয়। তাহলে মন্দিরে মন্দিরে, গির্জায় গির্জায়ও মুসলিম জনগণের ধর্মানুভূতি এবং ধর্মীয় ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠানের মর্যাদা রক্ষার আলোচনা কাম্য।

তিনি আরও বলেন, প্রচলিত সন্ত্রাস অথবা জঙ্গিবাদের সঙ্গে ইসলামের কোনো সম্পর্ক নেই। সন্ত্রাসবাদ এখন বৈশি^ক রাজনৈতিক সমস্যা, ধর্মীয় সমস্যা নয়। এই সমস্যা সমাধানে সবাইকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে কাজ করতে হবে। কোথাও কিছু ঘটলেই মুসলমানদের দিকে অহেতুক অপবাদ ও অযুহাতের ঘৃণিত মানসিকতা থেকে সরে আসতে হবে।

-এটি

ad

পাঠকের মতামত

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *