নিউজিল্যান্ডে ২ মিনিট নীরবতা পালন, হিজাবে অন্যধর্মাবলম্বীরাও

আওয়ার  ইসলাম: নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চে দুটি মসজিদে সন্ত্রাসী হামলায় শহীদের স্মরণে আজ শুক্রবার দেশটিতে দুই মিনিটের নীরবতা পালন করা হয়েছে। আল নুর মসজিদের কাছের একটি পার্কে শোক প্রকাশে আজ হাজারো মানুষ সমবেত হন। প্রধানমন্ত্রী জেসিন্ডা আহডার্ন এতো যোগ দেন।

রাষ্ট্রীয় রেডিও, টেলিভিশনে আজান প্রচারের পর দেশটি জুড়ে নীরবতা পালন করা হয়। এ ছাড়া মুসলিমদের সঙ্গে সংহতি প্রকাশ করে আজ নিউজিল্যান্ডের অন্য ধর্মের নারীরা মাথায় হিজাব পরেছেন।

মুসমানদের উদ্দেশে প্রধানমন্ত্রী বলেন, নিউজিল্যান্ড আপনাদের সঙ্গে শোকাহত, আমরা এক।

এর আগে প্রধানমন্ত্রী দেশের মানুষকে নীরবতা পালনের আহ্বান জানিয়ে বলেছিলেন, অনেক নিউজিল্যান্ডবাসী হামলার পর থেকে দিনটিকে স্মরণ করতে এবং মসজিদে ফিরে আসা মুসলিমদের প্রতি সংহতি প্রকাশ করতে চেয়েছেন। নীরবতা পালনের ভাষা একেকজনের একেক রকম হতে পারে। যে যেভাবে ঠিক মনে করবেন সেভাবে পালন করবেন। বাড়ি, কর্মস্থল, স্কুলে যে যেভাবে পারবেন।

গতকাল রাতেই সরকারি কর্তৃপক্ষ আল নুর মসজিদ নামাজের জন্য প্রস্তত করেন এবং আজ নিহত ব্যক্তিদের লাশ একসঙ্গে দাফনের ব্যবস্থা নেন।

উল্লেখ্য, গত শুক্রবার স্থানীয় সময় বেলা দেড়টার দিকে ক্রাইস্টচার্চের আল নুর মসজিদে জুমার নামাজ আদায়রত মুসলিমদের ওপর আধা স্বয়ক্রিয় বন্দুক নিয়ে হামলা চালায় অস্ট্রেলীয় যুবক ব্রেনটন টারান্ট (২৮)। এর পরেই ব্রেনটন কাছাকাছি লিনউড মসজিদে হামলা চালান।

দুটি হামলায় ৫০ জন নিহত হন। এর মধ্যে পাঁচ জন বাংলাদেশি। আহতও হন ৫০ জন। হত্যার অভিযোগ এনে ব্রেনটনকে কারাবন্দী রাখা হয়েছে। প্রধানমন্ত্রী জেসিন্ডা আহডার্ন গতকাল বৃহস্পতিবার দেশটিতে সব ধরনের আধা স্বয়ংক্রিয় অস্ত্রের ওপর নিষেধাজ্ঞা জারি করেছেন।

 

ad

পাঠকের মতামত

২ responses to “শ্রীলঙ্কায় দুই বাংলাদেশির খোঁজ মিলছে না”

  1. EdwardvuH says:

    Вся информация о гипнозе, гипнотерапиия, а также обучение техникам тут – https://www.hypnolife.ru/

  2. estelawd69 says:

    Daily updated super sexy photo galleries
    http://gaymarriedwoman.bloglag.com/?alison

    porn shoots in maryland break my hymen pics porn pattie latina teen pornporn star miss chloe sexy porn free swimsuit

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *