145222

দ্বিতীয় ধাপের উপজেলা নির্বাচনের ফলাফল

আওয়ার ইসলাম: নানাবিধ অনিয়ম ও সহিংসতার মধ্য দিয়ে শেষ হলো দ্বিতীয় ধাপের উপজেলা পরিষদ নির্বাচন। দেশের ১৬ জেলার ১১৬ উপজেলায় এ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছে।

নির্বাচনে আ’লীগ প্রার্থীদের জয়জয়কার। বেশির ভাগ উপজেলাতেই নৌকা জয়ী হয়। তবে বেশকিছু উপজেলায় আ’লীগের বিদ্রোহীরা জয়ী হয়েছেন।

১৫ জেলার ১১৬টি উপজেলায় সকাল ৮টায় শুরু হয়ে বিরতিহীনভাবে বিকাল চারটা পর্যন্ত ভোটগ্রহণ চলে।

বিএনপি নেতৃত্বাধীন ২০ দলীয় জোটসহ অন্যান্য রাজনৈতিক দল ও জোট ভোটে অংশ নেয়নি।  দ্বিতীয় দফায়ও ভোটের আগে সব মিলিয়ে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় ৪৮ জন নির্বাচিত হয়েছেন।

গত ৭ ফেব্রুয়ারি দ্বিতীয় ধাপে ১২৯টি উপজেলায় নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করা হয়। পরে ঘোষিত তফসিল থেকে গোপালগঞ্জ জেলার ৫টি উপজেলার নির্বাচন তৃতীয় ধাপে ও দিনাজপুর সদর উপজেলার নির্বাচন চতুর্থ ধাপে করার সিদ্ধান্ত নেয় ইসি।

এছাড়া আদালতের রায়ে ইসি গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জ উপজেলার ভোট স্থগিত করেছে। ব্যুরো অফিস ও প্রতিনিধিদের পাঠানো খবর।

নির্বাচন কমিশনের (ইসি) তথ্য বলছে, দ্বিতীয় ধাপের ২৩টি উপজেলায় আওয়ামী লীগের চেয়ারম্যান প্রার্থীরা বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হয়ে গেছেন। এর মধ্যে ৬টি উপজেলায় চেয়ারম্যান, ভাইস চেয়ারম্যানরা বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হয়ে যাওয়ায় সেখানে কোনো ভোট হচ্ছে না। যে ছয়টি উপজেলায় ভোটের দরকার হচ্ছে না, সে উপজেলাগুলো হচ্ছে- নওগাঁ সদর, পাবনা সদর, ফরিদপুর সদর, নোয়াখালীর হাতিয়া এবং চট্টগ্রামের রাউজান ও মীরসরাই।

এর বাইরে আরও ১৭টি উপজেলায় প্রতিদ্বন্দ্বী না থাকায় চেয়ারম্যান পদে ভোট হচ্ছে না। ওই উপজেলাগুলো হচ্ছে- রংপুরের কাউনিয়া ও গঙ্গাচড়া, দিনাজপুরের হাকিমপুর, পার্বতীপুর ও ঘোড়াঘাট, বগুড়ার আদমদীঘি ও শেরপুর, পাবনার সুজানগর, মৌলভীবাজারের সদর, চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ড, হাটহাজারী, সন্দ্বীপ ও রাঙ্গুনিয়া, রাঙ্গামাটির কাপ্তাই, লংগদু এবং খাগড়াছড়ির সদর ও মানিকছড়ি।

এছাড়া ১৩টি উপজেলার ভাইস চেয়ারম্যান ও ১২টি উপজেলার মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হয়েছেন। ফলে এসব পদেও ভোট হচ্ছে না। সব মিলিয়ে ৪৮ জন বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হয়ে গেছেন।

দ্বিতীয় ধাপে চেয়ারম্যান পদে মোট প্রার্থী ৩৭৭ জন। ভাইস চেয়ারম্যান পদে ৫৪৮ ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে ৪০০ জন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছেন।

ভোটার ১ কোটি ৭৯ লাখ ৯ হাজার ৬ জন। ভোটকেন্দ্রের সংখ্যা ৭ হাজার ৩৯টি। নির্বাচন উপলক্ষে সংশ্লিষ্ট উপজেলায় সাধারণ ছুটি ঘোষণা করা হয়েছে। উপজেলা নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে বিজয়ী।

বিস্তারিত আসছে…

ad

পাঠকের মতামত

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *