২০১৯-০৩-১৫

মঙ্গলবার, ১৯ মার্চ ২০১৯

স্বামীকে বাঁচাতে গিয়ে শহীদ হন সিলেটের পারভীন

OURISLAM24.COM
news-image

আওয়ার ইসলাম: নিউজিল্যান্ডে মসজিদে হামলাকারী সন্ত্রাসীর গুলির শব্দ শুনে পক্ষাঘাতগ্রস্ত স্বামীকে বাঁচাতে গিয়েছিলেন সিলেটের হোসনে আরা পারভীন। তবে নিজেই লাশ হয়ে ফিরেছেন তিনি।

হোসনে আরা পারভীন ( ৪২) সিলেটের গোলাপগঞ্জের জাঙ্গালহাটা গ্রামের নুরুদ্দিনের মেয়ে। তার স্বামী ফরিদ উদ্দিনের বাড়ি জেলার বিশ্বনাথ উপজেলার চকগ্রামে।

পারভীনের ভাগ্নে মাহফুজ চৌধুরী নিউজিল্যান্ডের আত্মীয়-স্বজনদের বরাত দিয়ে বলেন, ‘নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চ এলাকায় দুটি মসজিদ। একটি মসজিদে নারীরা ও অন্যটিতে পুরুষরা নামাজ পড়েন।

‘পক্ষাঘাতগ্রস্ত স্বামীকে নিয়ে জুমার নামাজ পড়তে মসজিদে গিয়েছিলেন পারভীন। স্বামীকে হুইল চেয়ারে পুরুষদের মসজিদের রেখে নিজে নারীদের মসজিদে যান। এর প্রায় ১৫ মিনিট পরে পুরুষদের মসজিদে গুলির শব্দ শুনে তিনি মসজিদ থেকে বের আসেন। এ সময় হামলাকারী সন্ত্রাসী তাকে লক্ষ করে গুলি করলে তিনি ঘটনাস্থলে শহীদ হন।’

তবে তার স্বামী ফরিদ উদ্দিনের কিছু হয়নি। তিনি তার আত্মীয়-স্বজনদের কাছে রয়েছেন বলে জানান মাহফুজ চৌধুরী।

শুক্রবার জুমার নামাজের সময় নিউজিল্যান্ডে ক্রাইস্টচার্চের আল নূর ও লিনউড মসজিদে সন্ত্রাসীদের হামলায় অন্তত ৪৯ জন নিহত হন। আহত হন আরও ৪৮ জন।

মাহফুজ চৌধুরী বলেন, ‘মসজিদের বাইরে গুলির শব্দ শোনার সঙ্গে সঙ্গে কয়েকজন লোক ফরিদ উদ্দিনকে মসজিদ থেকে বের করে নেওয়ায় তিনি বেঁচে যান। নিউজিল্যান্ডে বসবাসকারী নিহত পারভীনের ভাবি হিমা বেগম ঘটনার পর টেলিফোনে সিলেটে থাকা পরিবারের সদস্যদের এ খবর দেন।

‘নিউ জিল্যান্ডের আইনশৃঙ্খলা বাহিনী নিহত পারভীনের মরদেহ এখনও পরিবারে হস্তান্তর করেনি। পুলিশের পক্ষ থেকে পারভীনের নিহত হওয়ার বিষয়টি নিউজিল্যান্ডে অবস্থানকারী তার স্বজনদের জানানো হয়েছে।’

আইএ