২০১৯-০৩-১৫

মঙ্গলবার, ১৯ মার্চ ২০১৯

‘মসজিদে সন্ত্রাসী হামলা; ইসলামবিদ্বেষ ও বর্ণবাদ বৃদ্ধির নিকৃষ্ট দৃষ্টান্ত’

OURISLAM24.COM
news-image

আওয়ার ইসলাম: জমিয়তে উলামায়ে ইসলাম বাংলাদেশের সভাপতি আল্লামা আব্দুল মোমিন শায়খে ইমামবাড়ী. মহাসচিব আল্লামা নূর হোছাইন কাসেমী বলেন বিশ্বব্যাপী মুসলমানরা আজ গণহত্যার শিকার হচ্ছে, মুসলমানদের বিরুদ্ধে শত্রুতা খাটো করে দেখছে বিশ্ব।

মুসলমানদের যে নানাভাবে হয়রানি করা হত, ক্রাইস্টচার্চের আল নুর মসজিদের হত্যাকাণ্ডের মাধ্যমে সীমানা ছাড়িয়ে তা গণহত্যায় রূপ নিয়েছে। এ গণহত্যা ইসলামবিদ্বেষ ও বর্ণবাদ বৃদ্ধির সর্বনিকৃষ্ট দৃষ্টান্ত ।

নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চের আল নুর মসজিদে সন্ত্রাসী হামলার নিন্দা জানিয়ে আজ গণ মাধ্যমে প্রেরিত এক শোক বার্তায় জমিয়তের দুই শীর্ষ নেতা বলেন, আল্লাহ নিশ্চয়ই নিহতদের শাহাদাতের মর্যাদা দেবেন। কিন্তু শহীদ মুসলমানদের রক্ত বৃথা যেতে পারে না। এর প্রতিকার যদি করা না হয় তা হলে পশ্চিমা বিশ্বসহ সারা বিশ্বে মুসলিম নিধন মারাত্মক আকার ধারণ করবে।

সুতরাং মুসলিম বিশ্বের নেতাদেরকে শুধু বিবৃতি আর প্রতিবাদ করে বসে থাকলে হবে না। মুসলিম গণ হত্যা বন্ধে কার্যকর প্রদক্ষেপ গ্রহণ করতে হবে।

জমিয়ত নেতারা বলেন, এ পৃথিবীতে মুসলমানরা উড়ে এসে জুড়ে বসেনি, এ পৃথিবী মুসলমানদের আদি নিবাস সুতরাং বিশ্বের যে কোন জায়গায় মুসলমানরা নির্বিগ্ন তাদের ধর্ম কর্ম পালন করার অধিকার রাখে।

নিউজিল্যান্ডেরক্রাইস্টচার্চে যা ঘটেছে তা মুসলিম বিশ্বকে হতবাক করেছে।এধরনের সন্ত্রাসী হামলা কখনো কাম্য হকে পারেনা। বিবেকবান মানুষরা এ গণ হত্যা মেনে নিতে পারে না।

জমিয়ত নেতারা এ গণহত্যায় শোক প্রকাশ করেন শহীদ মুসলামনদের পরিবার পরিজনের প্রতি গভীর সমবেদনা জ্ঞাপন করে, বাংলাদেশ সরকারকে এ হত্যাকান্ডের ব্যাপারে ২য় বৃহত্তম মুসলিম দেশ হিসাবে যথাযথ ভূমিকা পালনের আহবান জানান।

আরআর