২০১৯-০৩-১৫

মঙ্গলবার, ১৯ মার্চ ২০১৯

নিউজিল্যান্ডের সন্ত্রাসী হামলায় ৩ বাংলাদেশি নিহত; আহত ৪; নিখোঁজ ১

OURISLAM24.COM
news-image

আওয়ার ইসলাম: নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চে দুই মসজিদে গুলির ঘটনায় নিহতদের মধ্যে অন্তত তিনজন বাংলাদেশি রয়েছেন বলে জানিয়েছেন বাংলাদেশের অনারারি কনসাল ইঞ্জিনিয়ার শফিকুর রহমান।

গুলিবিদ্ধ অবস্থায় আরও চার বাংলাদেশি চিকিৎসাধীন রয়েছেন এবং  নিখোঁজ রয়েছেন একজন।

স্থানীয় বাংলাদেশি কমিউনিটির কাছ থেকে এ খবর পেয়েছেন বলে  বাংলাদেশের গণমাধ্যককে জানান শরিফুর রহমান।

নিহত বাংলাদেশিরা হলেন- লিংকন ইউনিভার্সিটির শিক্ষক ড. আবদুস সামাদ ও তার স্ত্রী এবং হোসনে আরা ফরিদ নামের এক গৃহবধূ।

ড. মো. আব্দুস সামাদ বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের কৃ‌ষিতত্ব বিভাগের সাবেক অধ্যাপক। তার গ্রামের বা‌ড়ি কু‌ড়িগ্রাম জেলার না‌গেশ্বরী উপ‌জেলার স‌ন্তোষপুর গ্রামে। তিনি ৬ থেকে ৭ বছর আগে বাকৃবি থেকে অবসরে যান এবং স্থায়ীভাবে দুই ছেলেকে নিয়ে নিউজিল্যান্ডে বসবাস করেন।

নিউ জিল্যান্ডে বাংলাদেশের স্থায়ী দূতাবাস নেই, অনারারি কনসাল ইঞ্জিনিয়ার শফিকুর রহমান থাকেন অকল্যান্ডে। সেখান থেকে তিনি ক্রাইস্টচার্চের বাংলাদেশি কমিউনিটির সঙ্গে নিয়মিত যোগাযোগ রাখছেন।

তিনি বলেন, ‘শুক্রবার অনেকেই জুমার নামাজ পড়তে আল নূর মসজিদে গিয়েছিলেন। তাদের মধ্যে কযেকজন না ফেরায় পরিবারের সদস্যরা ফোনে যোগাযোগ করার চেষ্টা করেন। কিন্তু না পেয়ে খোঁজ শুরু করেন। পরে হাসপাতালে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় কয়েকজনের ভর্তি হওয়ার খবর পাওয়া যায়। তাদের মধ্যে তিনজন মারা যান।’

নিউ জিল্যান্ড সফররত বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের কয়েকজন খেলোয়াড়রা হামলার সময় আল নূর মসজিদে গিয়েছিলেন জুমার নামাজ পড়তে। ভেতরে গোলাগুলির বিষয়টি জানতে পেরে তারা বাইরে থেকেই দ্রুত নিরাপদে সরে যান।

শুক্রবার স্থানীয় সময় বেলা ১টা ৩০ মিনিটে ক্রাইস্টচার্চে হ্যাগলি ওভাল মাঠের খুব কাছে অবস্থিত ডিনস অ্যাভ মসজিদ ও লিনউড মসজিদে এবং আরেকটি স্থানে এ হামলা হয়। এতে অন্তত ৪৯ জন নিহত হন।  আহত হয়েছেন আরও ৪৯ জন। এদের মধ্যেও একাধিক বাংলাদেশি।

আইএ